রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

অন্তঃসত্ত্বা ডায়াবেটিক নারীর চোখের সমস্যা

কল্যাণ ডেস্ক: বেশির ভাগ মানুষের ধারণা, গর্ভকালীন একজন নারীর কেবল স্ত্রীরোগ ও প্রসূতি বিশেষজ্ঞের তত্ত্বাবধানে নিয়মিত চেকআপ করাই যথেষ্ট। কিন্তু অন্তঃসত্ত্বা নারীর আনুষঙ্গিক আরও নানা সমস্যা থাকা অস্বাভাবিক নয়। বিশেষ করে গর্ভকালীন ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, থাইরয়েডসহ অন্যান্য সমস্যার জন্য অনেক সময় সংশ্লিষ্ট চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া লাগতে পারে।

অন্তঃসত্ত্বা নারী যদি ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হয়ে থাকেন, তবে তাঁর পরিচর্যায় আরও যত্নবান হতে হবে। গর্ভকালীন তাঁদের ডায়াবেটিসজনিত চোখের সমস্যা দেখা দেওয়া খুবই সাধারণ সমস্যা। এর মধ্যে ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি অন্যতম। কারও হয়তো আগে থেকেই এ সমস্যা থাকতে পারে, যা তাঁর অজানা। এ জন্য শুরুতেই একটা চেকআপ দরকার।

ঝুঁকিতে যাঁরা

যাঁদের আগে থেকেই ডায়াবেটিস আছে ও তা নিয়ন্ত্রণে নেই। একই সঙ্গে উচ্চ রক্তচাপ ও রক্তে কোলেস্টেরল বেশি, মদ্যপান ও ধূমপানে আসক্ত, তাঁদের ঝুঁকি বেশি।

উপসর্গ

ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথিতে প্রাথমিক অবস্থায় কোনো উপসর্গ থাকে না। এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, যুক্তরাষ্ট্রের ৪০-৪৫ শতাংশ সদ্য শনাক্ত ডায়াবেটিস রোগীর মধ্যে কম–বেশি রেটিনোপ্যাথি পাওয়া যায়। তাঁদের অর্ধেকেই জানেন না, চোখে সমস্যা রয়েছে। ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি হলে ডায়াবেটিসের কারণে চোখের রক্তনালিতে পরিবর্তন হয়। রক্তনালি থেকে রক্তের জলীয় অংশ বা প্রোটিন বাইরে বেরিয়ে আসে, পরে রেটিনায় রক্তক্ষরণ হয়। একপর্যায়ে চোখের দৃষ্টি নষ্ট হয়। এমনকি অন্ধত্বও দেখা দিতে পারে।

যা করতে হবে

* বিশ্বে ডায়াবেটিস হলো কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর অন্ধত্বের অন্যতম কারণ। এ অন্ধত্ব প্রতিরোধে রোগটি প্রাথমিক পর্যায়ে শনাক্ত করা জরুরি। যেসব নারীর আগে থেকে ডায়াবেটিস ও রেটিনোপ্যাথি আছে, গর্ভাবস্থায় তাঁদের চোখের অবস্থা আরও খারাপের দিকে যেতে পারে। আর যাঁদের আগে থেকে রেটিনোপ্যাথি নেই, তাঁদের ক্ষেত্রে সমস্যাটি নতুন করে দেখা দিতে পারে। তাই ডায়াবেটিস থাকলে সন্তান ধারণের আগেই একবার চোখ পরীক্ষা করাবেন।

* যদি রেটিনোপ্যাথি থাকে, তাহলে মাত্রা বুঝে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নিতে হবে। রেটিনোপ্যাথি না থাকলেও গর্ভাবস্থার প্রথম তিন মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার চোখ পরীক্ষা করিয়ে নিতে হবে। যদি গর্ভকালীন পরীক্ষায় রেটিনোপ্যাথি ধরা পড়ে, তাহলে দুই-তিন মাস অন্তর নিয়মিত চোখ পরীক্ষা করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

* আর যদি দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে আসা, হঠাৎ কম দেখা, একটা জিনিস দুটি দেখা, চোখের সামনে কালো স্পট দেখা ইত্যাদি উপসর্গ দেখা দেয়, তবে সঙ্গে সঙ্গে চোখ পরীক্ষা করাতে হবে।

* ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে।

আরও পড়ুন: অভয়নগরে কমতে শুরু করেছে ডেঙ্গু রোগী

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

খালেদার বাসার সামনে তল্লাশিচৌকি, রাজধানীজুড়ে ব্লক রেইড

কল্যাণ ডেস্ক : রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজার সামনের সড়কের দুই পাশে...

নিজের ১০০০তম ম্যাচ রাঙিয়ে আর্জেন্টিনাকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিলেন মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক : ৬৫ মিনিটে মাঝ মাঠ থেকে বল নিয়ে চিতার মতো অস্ট্রেলিয়ান মিডফিল্ডের ট্রাইঙ্গেল...

কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডস

ক্রীড়া ডেস্ক  : গ্রুপ লিগের পর নকআউট পর্বের শুরুটাও দুরন্ত করলো নেদারল্যান্ডস। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে রাউন্ড...

প্রযুক্তির মাধ্যমে দিনবদল করেছেন শেখ হাসিনা : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘উদ্ভাবনী জয়োল্লাসে স্মার্ট বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে যশোরে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী...

কুয়েতে প্রতারণার শিকার শতাধিক বাংলাদেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুয়েতে শতাধিক বাংলাদেশি প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আকামা পরিবর্তনসহ...

চাঁদাবাজির অভিযোগে হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে এক হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন...