আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে প্রধান শিক্ষক নিয়োগের পায়তারা

সাতক্ষিরা

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি: আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে সাতক্ষীরার পিএন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পদে লোক নিয়োগের পায়তারা চালানো হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার সকাল ১০ টায় বিদ্যালয়টির শিক্ষকসহ পরিচালনা পরিষদের সদস্যরা ইতোমধ্যে প্রধান শিক্ষক পদে লোক নিয়োগের জন্য বর্তমান ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ভদ্রকান্ত সরকারকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট্যএকটি যাচাই বাছাই কমিটিও গঠন করা হয়েছে।

সাতক্ষীরার পিএন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পদে লোক নিয়োগের জন্য গত বছরের ২৪ নভেম্বর স্থানীয় দৈনিক দৃষ্টিপাত ও জাতীয় দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনে একটি বিজ্ঞাপন দেয়া হয়। ওই বিজ্ঞাপন প্রকাশের পর গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য সালমা পারভীন সাতক্ষীরা সহকারী জজ আদালতে নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত করার জন্য একটি মামলা দায়ের করেন। এই মামলায় আদালতে বিচারক পরদিন শুনানী শেষে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধ রাখার জন্য একটি আদেশ দেন। আদালতের এই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে মঙ্গলবার সকালে শিক্ষকসহ পরিচালনা পরিষদের সদস্যরা নিয়োগ প্রক্রিয়া চালু করার জন্য যাচাই বাছাই কমিটি গঠন করেছেন।

বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সদস্য সামছুজ্জামান বলেন, বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক স্বাক্ষরিত একটি পত্রে আমাকে আজকের পরিচালনা পরিষদের সভায় উপস্থিত থাকার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। সে মোতাবেক আমি বিদ্যালয়ে গেলে সেখানে প্রধান শিক্ষক পদে লোক নিয়োগের জন্য যাচাই বাছাই কমিটি গঠনের জন্য সভায় আলোচনা করা হয়। একপর্যায়ে বিদ্যালয়টির ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ভদ্রকান্ত সরকারকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট্য একটি যাচাই বাছাই কমিটি গঠন করা হয়।

এ ব্যাপারে বিদ্যালয়টির ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ভদ্রকান্ত সরকার যাচাই বাছাই কমিটি গঠনের বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে জানান, তিন সদস্য বিশিষ্ট্য কমিটি গঠন হয়েছে ঠিকই, কিন্তু যাচাই বাছাই কবে করা হবে সেটি এখনও ঠিক করা হয়নি।

জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, আদালতের কোন নিষেধাজ্ঞা থাকলে সে বিষয়ে কার্যক্রম চালানো ঠিক হবেনা। তবে আদালতের নিষেধাজ্ঞার কপিটি আমি এখনও অফিসিয়াল ভাবে হাতে পায়নি। হাতে পেলে নিয়োগ প্রক্রিয়া বন্ধে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে