Wednesday, May 25, 2022

ঈদের সড়কে যান কেড়ে নিলো ১৭ জান

কল্যাণ ডেস্ক: ঈদের দিন সড়ক দুর্ঘটনা দেশের বিভিন্ন স্থাসে মারা গেছে ১৭ জন। ঈদের আগে পরে আরো কয়েকজন প্রাণ হারিয়েছে যন্ত্রদানবের নিষ্ঠুরতায়। স্বজন হারানোর বেদনা কতটুকু তা যারা এ ব্যথায় ব্যথিত তারা ছাড়া আর কেউ অনুভব করতে পারবে না। যদি স্থানীয় জনতা উত্তেজনা বশত ওই ঘাতক গাড়িগুলো ভাঙচুর করে বসতো তাহলে পরিবহন শ্রমিকরা রাস্তা বন্ধ করে দিয়ে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করতো। ভাঙচুরের অপরাধে পুলিশ মামলা করতো এলাকার সাধারণ নিরীহ মানুষের নামে। মানুষ খুন করেও পরিবহন শ্রমিকরা শেষমেষ পার পেয়ে যেত এবং প্রতিটি ক্ষেত্রে হচ্ছেও তাই। তারা জোর গলায় বলবে সড়ক দুর্ঘটনার জন্য একা শ্রমিকরা দায়ী নয়। এ জন্য পথচারীরাও দায়ী। যাত্রী কল্যাণ সমিতি দুর্ঘটনার যে কারণগুলো চিহ্নিত করেছে তার প্রায় সবগুলোর জন্য চালকরা দায়ী। এ ক্ষেত্রে আমরা বলতে চাই পরিবহন শ্রমিকদের কথা ঠিক হলে সারা বিশ্বের অন্যন্য দেশেও বাংলাদেশের মতো সড়ক দুর্ঘটনা হতো। কিন্তু সেটা কি হয়? ওই সব দেশের শ্রমিকদের দায়বদ্ধতা ও জবাবদিহিতা আছে। আমাদের দেশে এ সব কিছুই নেই। এ কারণে ফ্রিস্টাইলে ঘটে চলেছে সব কিছু। জাপানে দুর্ঘটনায় কেউ নিহত হলে নিহতের পরিবারের ভোরণ-পোষণ ওই পরিবহন শ্রমিককে বহন করতে হয়। এমন কঠোর আইনের মত কোনো আইন বাংলাদেশে চালু না হওয়া পর্যন্ত পরিবহন শ্রমিকরা নিয়ন্ত্রণে আসবে না। ট্রেড ইউনিয়নের নামে তারা যে অরাজকতা সৃষ্টি করে তা কোনোক্রমেই সমর্থন যেগ্য নয়।
দুর্ঘটনার মধ্যে সবচেয়ে বেশি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনা। পর্যালোচনায় দেখা গেছে ৬০ ভাগ চালক হেলমেট ব্যবহার করছে না। এছাড়া বেশিভাগ পথচারী রাস্তা পারাপারে সতর্ক অথবা সচেতন নয়। দুর্ঘনার এটাও একটি অন্যতম কারণ। এ ছাড়া ক্রুটিপূর্ণ যানবাহন, বেপরোয়া গতি, চালকদের ড্যামকেয়ার মানসিকতা অদক্ষতা ও শারীরিক-মানসিক অসুস্থতা, সড়ক আইন মেনে না চলা এসব দুর্ঘটনার কারণ। দুর্ঘটনার হার কমিয়ে আনতে দক্ষ চালক তৈরির উদ্যোগ, চালকের বেতন ও কর্মঘন্টা নির্দিষ্টকরণ, জনসচেতনতা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন সুপারিশ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সড়ক দুর্ঘটনা কমানোর জন্য কয়েকটি দিক নির্দেশনা দিয়েছেন। যার প্রায় সবগুলো উপলব্ধি করেছে সড়ক নিরাপত্তা কর্মপরিকল্পনার সাথে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ উপলব্ধির সাথে সাথে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা কার্যকর করতে দ্রুত উদ্যোগ নেয়া হোক।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

চুকনগর গণহত্যা জেনোসাইড হিসাবে জাতিসংঘের স্বীকৃতি চাই

কাজী বর্ণ উত্তম: চলুন ফিরে যাই সেই ১৯৭১ সালে। চারিদিকে অন্ধকার অনিশ্চয়তা, নিজের বসত...

যশোরে দিবালোকে ব্যবসায়ীর আড়াই লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শহরের মুজিব সড়কে দুই নম্বর আইনজীবী ভবনের সামনে গতকাল দুপুর পৌনে...

মিথিলার প্রেমে পড়ার ‘গুঞ্জন’!

বিনোদন ডেস্ক: গায়ক ও অভিনেতা তাহসান খানের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর একসঙ্গে কাজ করতে...

খুলনায় ধর্ষণ মামলা আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

খুলনা ব্যুরো: খুলনার বটিয়াঘাটায় নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার বাবুল আলীকে ২ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে...

যুদ্ধাপরাধী আমজাজ হোসেন মোল্লার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন তদন্ত কর্মকর্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে আইসিটি বিডি কেস নং - ১০/২০১৮ সংক্রান্তে যশোর জেলার...

যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ভারতীয় কিশোরসহ নিহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারত থেকে যশোরের কেশবপুরে মামা বাড়িতে বেড়াতে আসার সময় ট্রাক চাপায় এক...