উৎসব মুখর পরিবেশে চলছে মণিরামপুরের ইউ পি নির্বাচন

উৎসব মুখর পরিবেশে চলছে মণিরামপুরের ইউ পি নির্বাচন

জেমস রহিম রানা:
যশোরের মনিরামপুরে উৎসবমুখর পরিবেশে ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ভোট গ্রহণ চলছে। আজ রোববার সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। ভোর থেকে ভোটারদের ভোটকেন্দ্রে এসে লাইন দিতে দেখা গেছে। ভোটারদের উপস্থিতিতে সরগরম হয়ে উঠেছে ভোটকেন্দ্র ও কেন্দ্রের বাইরের এলাকা।

এদিকে দুই একটি ভোটকেন্দ্রের বাইরে বোমা হামলা, ভোটারদের কেন্দ্রে যেতে বাধা ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। আজ সকালে সরেজমিনে উপজেলার খাকুনদি সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়, মনোহরপুর বালিকা মাধ্যমিক বিদ‍্যালয়, বাজিতপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ভরতপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়, মনোহরপুর কাচারী বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয়, টেংরামারী সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কোদলাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রোহিতা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে গিয়ে দেখা গেছে কেন্দ্রের ভেতর নারী এবং পুরুষ ভোটারদের লম্বা লাইন পড়েছে। কেন্দ্রের বাইরে ভোটের স্লিপ নেওয়ার জন্য ভোটারদের ভিড় জমেছে।

ভোটকেন্দ্রে আগত নারী এবং পুরুষ ভোটারদের মধ্যে ঈদের আনন্দ বইছে। সকাল ৯টার দিকে টেংরামারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন গোলাম মোস্তফা নামে এক প্রতিবন্ধী বৃদ্ধ। তিনি বলেন, ‘ভোট দিছি সুন্দরভাবে। পরিবেশ ভালো।’ ভোটের পরিবেশ দেখে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন এ কেন্দ্রের সরোয়ার হোসেন (ঘুড়ি) নামে এক মেম্বর প্রার্থী। তিনি বলেন, সুন্দর পরিবেশে ভোট হচ্ছে। কোনো সমস্যা হচ্ছে না। টেংরামারী সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা আনন্দ মোহন মণ্ডল বলেন, এত সুন্দর পরিবেশ অনেক দিন দেখিনি। ভোটাররা উৎসুক পরিবেশে ভোট দিচ্ছেন। একই সুরে মত প্রকাশ করেছেন বাটবিলা সরকারি প্রাথমিক বিদ‍্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার বিমল কুমার।

এদিকে গতকাল শনিবার মধ্যরাত থেকে উপজেলার খানপুর ও পাড়দিয়া ভোটকেন্দ্রের বাইরে ককটেল বিস্ফোরণের খবর পাওয়া গেছে। পাড়দিয়া হাইস্কুল কেন্দ্রের বাইরে রাত থেকে ভোট শুরু হওয়ার আগ পর্যন্ত অন্তত ২০টি বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে বলে জানা গেছে। এ কেন্দ্রের মেম্বর প্রার্থী ইউনুস আলী দাবি করেন, বহিরাগত দুর্বৃত্তরা ঘুঘুরাইল চাতাল মোড়ে বোমা ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। তাঁরা ভোটারদের কেন্দ্রে আসতে বাধা দিচ্ছেন। এ বিষয়ে শ্যামকুড় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তা মাসুদ হোসেন বলেন, পাড়দিয়া ৯ নম্বর কেন্দ্রের বাইরে বোমা হামলার ঘটনার খবর পেয়েছি। ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এখন পরিবেশ অনুকূলে আছে। এদিকে খেদাপাড়া ইউনিয়নের চাঁদপুর-মাঝিয়ালী ভোটকেন্দ্রে স্বতন্ত্র প্রার্থী সামছুজ্জামান শান্তর (ঘোড়া) এজেন্টদের বের করে দেওয়ার অভিযোগ করেছেন প্রার্থীর বোন শিরিনা পারভিন। এ বিষয়ে ওই ইউনিয়নের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ বলেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে দেখছি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে