এক টেস্টের জন্য ২০ জনের বহর যে কারণে

এক টেস্টের জন্য

ক্রীড়া ডেস্ক : বাংলাদেশ যেমন ঘনবসতিপূর্ণ দেশ, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলেরও এখন একই অবস্থা। পাকিস্তানের বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের বাংলাদেশ স্কোয়াডে রাখা হয়েছে ২০ জনকে! আলোচনা-সমালোচনার ঝড়ও উঠেছে প্রবল। তবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন জানিয়েছেন, শুধু এই টেস্ট নয়, নিউ জিল্যান্ড সফরকেও ভাবনায় রাখতে হয়েছে বলেই এত বড় স্কোয়াড।

চট্টগ্রাম টেস্টে বাংলাদেশের স্কোয়াড ছিল ১৭ জনের। এক টেস্টের জন্য ওই স্কোয়াডই যথেষ্ট বড়। মিরপুরের জন্য সেখানে যোগ করা হয় আরও ৩ ক্রিকেটারকে।

মিরপুর টেস্টের আগে অনুশীলনের সময় মাত্র দুই দিন। এতজন ক্রিকেটারকে ভালো করে পরখ করার সময় ও সুযোগই হবে না। ২০ জনের স্কোয়াড তাই জন্ম দেয় বড় বিস্ময়ের।

প্রধান নির্বাচক বুধবার বললেন, পরের সিরিজকে ভাবনায় রেখেই এত বড় স্কোয়াড দিতে হয়েছে তাদের।
“আসলে এক টেস্টের দল ভাবলে চলবে না এটিকে। নিউ জিল্যান্ড সফরের জন্যই এত বড় দল। সবাইকে বাবলে রাখতে হচ্ছে, এখান থেকে বাবল আর ভাঙবে না। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ ৮ তারিখ শেষ, ৯ তারিখই ওরা নিউ জিল্যান্ডে রওনা হবে। বাবলের বাইরে কারও অনুশীলনের সুযোগ নেই।”

“নিউ জিল্যান্ডে ১৭ বা ১৮ জন যাবে। ওদের অনুশীলন করতে হবে তো। স্কোয়াডে ফাস্ট বোলার দেখেন কতজন আছে। বাংলাদেশের সিরিজে কি সাধারণত আমরা এত ফাস্ট বোলার রাখি? রেখেছি মূলত নিউ জিল্যান্ড সফরের জন্য। ৫-৬ জন ফাস্ট বোলার রাখব আমরা সেখানে। দুই টেস্টের পাশাপাশি দুটি প্রস্তুতি ম্যাচও আছে। সব কিছু বিবেচনায় নিয়েই রাখা হয়েছে ওদেরকে।”

নিউ জিল্যান্ডে এবার বাংলাদেশের সফর মাত্র দুটি টেস্টের। তবে প্রস্তুতি ভালোভাবে নিতে দল চলে যাচ্ছে একটু আগেভাগেই। সেখানে পৌঁছে কোয়ারেন্টিন শেষে দুটি প্রস্তুতি ম্যাচের পর প্রথম টেস্ট নতুন বছরের প্রথম দিন থেকে মাউন্ট মঙ্গানুইতে। দ্বিতীয় টেস্ট ৯ জানুয়ারি থেকে ক্রাইস্টচার্চে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে