ওমিক্রন : দেশে আরও নয়জন শনাক্ত

ওমিক্রনে প্রথম মৃত্যু যুক্তরাজ্যে

কল্যাণ ডেস্ক : দেশে আরও নয়জনের শরীরে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের সংক্রমণ ধরা পড়ায় মোট শনাক্ত ওমিক্রনের রোগী বেড়ে ৩০ জন হল।

নতুন শনাক্ত রোগীদের সবাই ঢাকার বাসিন্দা। তাদের শরীর থেকে নেওয়া ভাইরাসের নমুনার জিন বিন্যাস বিশ্লেষণ করে ওমিক্রন সংক্রমণের তথ্য পাওয়ার কথা সোমবার প্রকাশ করা হয়েছে জার্মানির গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লুয়েঞ্জা (জিআইএসএআইডি)।

বিশ্বজুড়ে উদ্বেগ তৈরি করা ওমিক্রনে বাংলাদেশের কারও সংক্রমিত হওয়ার হওয়ার খবর প্রথম এসেছিল গত ৯ ডিসেম্বর। এক মাসের মাথায় শনাক্তের সংখ্যা ত্রিশে পৌঁছালো।

নতুন শনাক্ত ৯ জনের মধ্যে ছয়জন রাজধানীর মহাখালী এলাকার এবং বাকি তিনজন বাসাবোর বাসিন্দা।
মহাখালীর বাসিন্দাদের মধ্যে ছয়জন নারী, তাদের বয়স ১৮ থেকে ৫২ বছরের মধ্যে। আর বাসাবোতে যাদের ওমিক্রন ধরা পড়েছে, তাদের দুজন ৫১ ও ৩০ বছর বয়সী পুরুষ এবং একজন ৫৬ বছর বয়সী নারী।
জিআইএসএআইডি জানিয়েছে, ২৯ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারির মধ্যে বিভিন্ন সময় তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। এসব নমুনার জিনোম সিকোয়েন্স করে তা জিআইএসএআইডিতে জমা দিয়েছে ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ডায়রিয়া ডিজিজ রিসার্স সেন্টার, বাংলাদেশ-আইসিডিডিআর,বি।

সরকারি প্রতিষ্ঠান আইইডিসিআরের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এ এস এম আলমগীর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানিয়েছিলেন, বিদেশফেরত কারও কোভিড ধরা পড়লে তাদের শরীর থেকে ভাইরাসের নমুনা নিয়ে জিনোম সিকোয়েন্সিং করা হচ্ছে।

পাশাপাশি আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসেছেন এমন ব্যক্তিদের কাছ থেকে নমুনা নিয়েও জিনোম সিকোয়েন্স করা হচ্ছে। আক্রান্তদের সংস্পর্শে এসে দেশেও কয়েকজন আক্রান্ত হওয়ার তথ্য পেয়েছে আইইডিসিআর।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে