রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২

খুলনা বিভাগে ভয়াবহ বায়ু দূষণের প্রধান কারণ ভাটা

খুলনা বিভাগের কয়েকটি জেলায় বায়ু দূষণের মাত্রা ভয়াবহ পর্যায়ে পৌঁছেছে। এসব জেলাগুলোর মধ্যে যশোর জেলা অন্যতম। পরিবেশ অধিদফতরের ভাষ্যমতে বায়ুর মানের সূচক ২০০ ছাড়ালেই সে অবস্থাকে অস্বাস্থ্যকর ধরা হয়। কিন্তু এ বিভাগের যশোরসহ কয়েকটি জেলায় সূচক উঠেছে ৭০০ পর্যন্ত। এর প্রধান কারণ হচ্ছে নিয়ম বহির্ভূত ইটভাটা। জেলা প্রশাসকদের ওই সব ভাটা ভেঙে দেয়ার বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে পরিবেশ অধিদফতর।

ইট ভাটা সম্পর্কে প্রতিনিয়ত যেসব খবর পাওয়া যাচ্ছে তাতে আইন বলে যে একটা জিনিস আছে তা ভাটায় মানা হয় বলে মনে হয় না। এ সব ভাটার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, সেগুলো সরকারি নিয়ম-নীতিমালা উপক্ষো করে চলছে। কৃষি জমিতে তো ভাটা স্থাপন করা হয়েছেই, তারপরও অভিযোগ রয়েছে ভাটাগুলো লোকালয়ে অবস্থিত। পোড়ানো হচ্ছে কাঠ, নষ্ট করা হচ্ছে আবাদী জমি এবং ক্ষতি করা হচ্ছে রাস্তাঘাট। ভাটা মালিকরা এলাকার প্রচন্ড দাপটধারী এবং সন্ত্রাসীদের গডফাদার। কেউ প্রতিবাদ করলে তার সাতঘাটের পানি খাওয়ানো হয়। জীবন নাশেরও আশংকা থাকে। বিভিন্ন স্থানে বেআইনী ভাটার বিরুদ্ধে এলাকার মানুষ প্রতিবাদ সভা, মানববন্ধন প্রভৃতি কর্মসূচি পালন করলেও দাপটধারী মালিকরা তোয়াক্কা করেনি। উপরোন্তু সন্ত্রাসী এনে জনগণের বিরুদ্ধে দাঁড় করিয়ে সেই ভাটা পরিচালনা অব্যাহত রাখে।

ভাটা অপ্রয়োজনীয় কিছু নয়। দেশের উন্নয়নে ভাটার প্রয়োজনীয়তা অপরিহার্য। তাই বলে উন্নয়নের নামে তো এমন কাজ করা যাবে না, যাতে জাতি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ উদ্দেশ্যে ভাটা পরিচালনার জন্য কতগুলো নিয়ম-নীতি সরকার নির্ধারণ করে দিয়েছে। কিন্তু সেসব নিয়ম-নীতি ভাটা মালিকরা মোটেই পরোয়া করছে না। শতভাগ ভাটা এ ক্ষেত্রে বেপরোয়া বলে অভিযোগ রয়েছে। ভাটাগুলোর ওপর পরিবেশ অধিদফতর থেকে যে শর্ত আরোপ করা হয়েছে- তার প্রায় শতভাগ তারা মানে না। লোকালয় থেকে তিন কিলোমিটার দূরে ভাটা হতে হবে। কিন্তু দেখা যাচ্ছে, অনেক ক্ষেত্রে বাড়ির উঠান লাগোয়া ভাটা চলছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সড়ক-মহাসড়ক, রেলপথ থেকে ভাটা দূরে হতে হবে। কিন্তু এক রকম বলা যায় সড়কে, মহাসড়ক ও রেলপথের ওপরেই অনেক ভাটা দিব্বি চলছে। ভাটার ইট মাটি বালি প্রভৃতি বহনের গাড়িগুলো হথে হবে নিñিদ্র এবং বহনের সময় তা আবৃতকরে রাখতে হবে। যাতে ধুলা-বালি উড়ে বা পড়ে পরিবেশ নষ্ট না করে। কিন্তু তার একটিও মানা হয় না। যে ট্রাকটি সড়কে চলার অনুপোযোগী হয়ে লক্কড়-ঝক্কড় হয়ে যায় সেই ট্রাকটি সড়ক থেকে সরিয়ে ভাটায় দেয়া হয়। এসব ট্রাক ভাটার মালামাল বহনের সময় পরিবেশের সর্বনাশ করে। এসব বিষয়গুলো প্রতি প্রশাসনের দৃঢ় পদক্ষেপ নেয়া অতি প্রয়োজন বলে আমরা মনে করি।

বায়ূ দূষণের দ্বিতীয় কারণ অপরিকল্পিত সড়ক উন্নয়ন কাজ। জাতীয় স্বার্থে সড়কের উন্নয়ন করতেই হবে। তাই বলে তো আর যাচ্ছেতাই কিছু করা যাবে না। সড়ক উন্নয়ন কাজে পর্যাপ্ত পানি ব্যবহারের নির্দেশনা থাকলেও তা করা হচ্ছে না। ফলে যানবাহন চলাচলের সময় ধুলাবালি উড়ে বায়ু দূষিত হচ্ছে। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, বায়ু দূষণের কারণে শ্বাসকষ্ট, ক্যানসার, ¯œায়ুজনিত সমস্যা বেড়ে যায়। ফুসফুসে সংক্রমণ, সর্দিকাশি ও চোখের রোগ বুদ্ধি পায়। বায়ু দূষণের কারণে এশিযায় প্রতিবছর মারা যায় ২৬ লাখ মানুষ এবং বাংলাদেশে মারা যায় পৌণে দুই লাখ। এই মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকি ছাড়াও যদি যত্রতত্র ভাটা স্থাপন নিয়ন্ত্রণ করা না যায় তাহলে ২০৭০ সালের মধ্যে আর আবাদযোগ্য জমি মিলবে না। সার্বিক বিষয় বিবেচনায় এনে মানুষ বাঁচাতে যা যা করার দরকার তা দৃঢ় পদক্ষেপে করতে হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

editorial

যানজটের শহর যশোর

মেধাবী ছাত্র মামুনের চিকিৎসায় সাহায্যের আবেদন

যশোরের নারায়নপুর ইউনিয়নের কাঁদবিলা গ্রামের নান্নু মিয়ার ছেলে মামুন। তার পুরো নাম আব্দুল হালিম...

জি কে শামীম ও ৭ দেহরক্ষীর যাবজ্জীবন

কল্যাণ ডেস্ক : অস্ত্র মামলায় জি কে শামীম ও তার সাত দেহরক্ষীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন...

মহালয়া আজ, ক্ষণ গণনা শুরু দুর্গাপূজার

নিজস্ব প্রতিবেদক : শারদীয় দুর্গোৎসবের পূণ্যলগ্ন, শুভ মহালয়া আজ। রোববার (২৫ সেপ্টেম্বর) থেকেই শুরু দেবীপক্ষের। চণ্ডীপাঠের...

আ.লীগ কখনো কারচুপির মাধ্যমে ক্ষমতায় আসেনি : প্রধানমন্ত্রী

কল‌্যাণ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগ সরকারের মেয়াদে নির্বাচন প্রক্রিয়া স্বচ্ছ হওয়ার কথা...

কোটচাঁদপুরে সক্রিয় অপরাধী ও প্রতারক চক্র

কামাল হাওলাদার, কোটচাঁদপুর : ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে দিনে দুপুরে চুরি ছিনতাইসহ প্রতারক চক্রের প্রতারণার মাত্রা বেড়ে...

যানজটের শহর যশোর

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ঘেঁষে ১৬টি বেসরকারি চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠানের নেই পার্কিং ব্যবস্থা। হাসপাতালের...