শনিবার, ডিসেম্বর ১০, ২০২২

গরিবের চাল চুরি করে খাচ্ছে বিত্তবানরা

গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঈদ উপহার ভিজিএফ’র চাল বিতরণে অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রতিবাদে ঝিনাইদহে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। ১৬ জুলাই সকালে সদর উপজেলার মধুহাটি ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে এ কর্মসূচির আয়োজন করে ভুক্তভোগী ইউনিয়নবাসী। এতে নারী পুরুষ ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করে। মধুহাটি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ১ নম্বর ওয়ার্ডে ১৩০ জন, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে ২৪০ জন, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে ১১৬ জন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে ৯৫ জন, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে ২১০ জন ও মহিলা সংরক্ষিত ৪,৫ ও ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মোট ৯০ জন অসহায়ের কার্ড থাকলেও চাল পাইনি বলে অভিযোগ উঠেছে। যাদের কার্ড বরাদ্দ আছে তারা এই উপহার সামগ্রী না পেয়ে ক্ষোভে ফুসে উঠেছে। বক্তারা বলেন, হতদরিদ্রদের ভিজিএফ’র চালের কার্ডে নাম থাকলেও চেয়ারম্যান নিজের পছন্দের ব্যক্তিদের মধ্যে চাল বিতরণ করেন। এমনকি সবাইকে চাল না দিয়ে তা আত্মসাৎ করেছেন বলেও অভিযোগ করা হয়। এ সময় সুষ্ঠু তদন্ত স্বাপেক্ষে চেয়ারম্যানের অপসারণের দাবি জানান তারা। মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। পরে বাজার গোপালপুর চৌরাস্তা মোড়ে চেয়ারম্যানের কুশপুত্তলিকা দাহ করা হয়।

সরকারি চাল নিয়ে নয়-ছয়ের ঘটনা থামছেই না। সরকারের হুঁশিয়ারি থাকা সত্ত্বেও দুর্নীতিবাজদের বুক একটুও কাঁপছে না। চাল নিয়ে চালবাজির খবর মিডিয়ায় প্রতিনিয়ত আসছে। গরিবের মুখের গ্রাস যারা চুরি করে খায়, তাদেরকে মানুষ বলা যায় না। ওরা অমানুষ। মানবতা বর্জিত সমাজের কলঙ্ক। এই চাল সমাজের বিত্তবানরা চুরি করে খাচ্ছে, যা অত্যন্ত লজ্জাজনক। চোর ধরা যে পড়ছে না তা নয়। যারা ব্যবস্থা নেবে তাদের আঁচলের নিচে তো চোরদের আশ্রয়। শুনতে তিক্ত হলেও সত্য এ কথা দিবালোকের মতো স্পষ্ট- যখন যারা ক্ষমতার কাছাকাছি থাকে, তারাই এই অপরাধটি বিনা বাধায় করে। এভাবে চুরি করে খাওয়া কালচারে পরিণত হয়েছে। দেশটা আজ লুটপাটের আখড়ায় পরিণত হয়েছে, তার পেছনের একমাত্র কারণ তদন্তের নামে সময় ক্ষেপণ ও ব্যবস্থা গ্রহণের বেলায় অদৃশ্য হাতের ছোয়ায় স্তব্ধ হয়ে যাওয়া। এই শ্রেণির মানুষগুলো কি সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার মিশন নিয়ে কাজ করছে? দেশটাকে দুর্নীতিমুক্ত করার জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা যখন প্রাণপণ চেষ্টা করছেন তখন তারা সাহস পাচ্ছে কি করে এসব অপরাধ করার। কোনো রকম অনুকম্পা না দেখিয়ে এসব বিত্তবান চোরদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হোক।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

যে কারণে ছিটকে গেল ব্রাজিল

ক্রীড়া ডেস্ক : কাতার বিশ্বকাপের অন্যতম ফেবারিট ছিল ব্রাজিল। বিশেষ করে প্রতিপক্ষকে বিবশ করা খেলা...

ব্রাজিলের স্বপ্ন ভেঙে সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক : ব্রাজিলের সব আক্রমণ গিয়ে প্রতিহত হচ্ছিল ক্রোয়েশিয়ার দুর্ভেদ্য প্রাচীরে। সত্যিই যেন এদিন...

দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে: ডিসি

নিজস্ব প্রতিবেদক: আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবস-২০২২ উপলক্ষে যশোরে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে। শুক্রবার...

যশোরে ৮ নারী পেলেন শ্রেষ্ঠ জয়িতার পুরস্কার

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক: শুক্রবার ছিল নারী জাগরণের অগ্রদূত রোকেয়া সাখাওয়াত হোসেনের ১৪২ তম জন্মবার্ষিকী ও...

বিয়ে করতে অস্বীকার করায় কলেজছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক: শারীরিক সম্পর্কের পর বিয়ে করতে অস্বীকার করায় এক কলেজছাত্রী হারপিক পানে আত্মহত্যার...

যশোরে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে টাকা আত্মসাত, একজন আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক: চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে।...