Wednesday, July 6, 2022

চাঁচড়া ও নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী চিত্র ।। নৌকার পাশে নেই আ.লীগ

সুনীল ঘোষ ও সালমান হাসান: যশোর সদরের চাঁচড়া ও নওয়াপাড়ায় নৌকার পাশে নেই ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ। ভোটের মাঠ সরগরম করে রেখেছে নৌকার বিদ্রোহীরা। ফলে দলীয় ভোটে বিদ্রোহীরা ভাগ বসানোয় ইউনিয়ন দুটিতে দেখা দিয়েছে নৌকা ডুবির শঙ্কা।

তাছাড়া দলগতভাবে না হলেও সেখানে স্বতন্ত্রর মোড়কে শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে বিএনপির রাজনীতি ঘনিষ্টরা। ফলে ত্রি-মুখী লড়াইয়ের কারণেও ধরাশয়ী হতে পারে নৌকা। আসন্ন নির্বাচন ঘিরে এরকম ধারণা ভোটার থেকে শুরু করে স্থানীয় রাজনীতির তৃণমূলের।

চাঁচড়া
বহিষ্কারের পরও নৌকার বিদ্রোহীর পক্ষে ভোটের মাঠে রয়েছেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের একটি বড় অংশ। যেটি নৌকার প্রার্থীর জন্য গলার কাটা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বহিষ্কারেও বিদ্রোহ দমন না হওয়ায় চলছে হুমকি-ধামকি ও হামলার ঘটনা। নৌকা ডুবির আশংকায় নৌকার মাঝির কর্মী-সমর্থকরা মারমুখি আচরণ করছেন। আর এটি নির্বাচনী পরিবেশ উত্তপ্ত করে তুলছে। চাঁচড়ায় নৌকার বিদ্রোহী আনারস প্রতীকের প্রার্থীকে কোণঠাসা করতে নানাভাবে চাপ প্রয়োগের অভিযোগ উঠেছে।

আনারস প্রতীকের প্রার্থী শামীম রেজা নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় বাধার পাশাপাশি তার কর্মী-সমর্থকদের হুমকি দেয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগ করেন, দলের জন্য যাদের অনেক ত্যাগ রয়েছে, এরকম নেতা-কর্মীরা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচনের জন্য তাকে সমর্থন দেয়ায় তিনি প্রার্থী হয়েছেন। ইউনিয়নবাসীও তাকে সমর্থন জানিয়েছেন। আশা করছেন-নির্বাচনের ফলাফল তার পক্ষে আসবে। ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার ওয়াজেদ আলী মোড়ল বলেন ‘এমন একজন নৌকা প্রতীক পেয়েছেন, যিনি প্রকৃত আওয়ামী লীগার নন। যার কারণে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা তার পক্ষে নির্বাচনের মাঠে নামেনি।
গতকাল চাঁচড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তারা নির্বাচন ঘিরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন। ভোট নিয়ে তাদের মধ্যে উদ্বেগ উৎকন্ঠা বিরাজ করছে। প্রাণহানীর মত ঘটনারও আশংকা রয়েছে তাদের মধ্যে। কারণ হিসেবে তারা বলছেন, গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রাণহানীর ঘটনা ঘটে। ভোট চলাকালে সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে ‘বিশে’ নামে একজন ঝুরি-চানাচুর বিক্রেতা মারা যান। তাই গত শুক্রবার চাঁচড়ার ভাতুড়িয়ার দুই পক্ষের সংঘর্ষের পর গোটা ইউনিয়ন জুড়ে আতঙ্ক বিরাজ করছে। সেখানকার পরিবেশ এখন থমথমে। নৌকার প্রার্থীর ভাড়াটে মাস্তান গুন্ডারা ইউনিয়নে মহড়া দিচ্ছে। যেকোন সময় আনাসর প্রার্থীর অফিসে হামলা করতে পারে। গতকাল বেলা ১২টার দিকে এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন মানুষজন।

এ সময় নৌকার প্রার্থী সেলিম রেজা পান্নুর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করে ব্যস্ত পাওয়া যায়।
নওয়াপাড়া

বহিষ্কারের পরও নির্বাচনের মাঠ থেকে সরে দাঁড়ায়নি ইউনিয়টির নৌকার বিদ্রোহীরা। উল্টো নৌকার প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনে কাজ না করার জন্য নেতাকর্মীদের চাপ দিচ্ছেন। এখানে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি রাজিয়া সুলতানা। কিন্তু ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সিংহভাগ নেতা তার পক্ষে কাজ করছেন না।

প্রার্থীর ছেলে ফটো সাংবাদিক ইমরান হাসান টুটুল জানান, তার বিধবা মা দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন। দলের ত্যাগী নেতা হিসেবে এবারই প্রথম দলের হাইকমান্ড তাকে নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। কিন্তু আওয়ামী লীগের দু’জন বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় নৌকার ফল ঘরে তুলতে পারে বিএনপি। এখানে স্বতন্ত্রের মোড়কে বিএনপি’র দু’জন চেয়ারম্যান প্রার্থী রয়েছেন। সাবেক চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন ও এসএম আসাদুজ্জামান ঝন্টু আওয়ামী লীগের বিদ্রোহীদের কারণে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন। বিদ্রোহীদের কারণে আওয়ামী লীগের ভোট ভাগ হয়ে যাওয়ায় ফাঁকগলে জয়ী হয়ে যেতে পারেন বিএনপি’র রাজনীতি সংশ্লিষ্টরা।
সাবেক চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা আলতাফ হোসেন জানান, চাপের মধ্যে থেকে তাকে প্রচার-প্রচারণা চালাতে হচ্ছে। তিনি জয়ের ব্যাপারে আশাবাদী।

অন্যদিকে, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী কাজী আলম জানান, দলের স্থানীয় নেতাকর্মী ও সর্বসাধারণ তাকে প্রার্থী করেছেন। তাদের দাবির প্রতি সম্মান জানিয়ে নির্বাচনের মাঠে আছেন। জয়ের ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

পিঠে ছুরিবিদ্ধ খোকন নিজেই গাড়ি ভাড়া করে আসেন যশোর হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পিঠে বিদ্ধ হওয়া ছুরি নিয়ে নিজেই যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন...

নায়কদের নামে কোরবানির গরু, আপত্তি জানালেন ওমর সানি

কল্যাণ ডেস্ক : আগামী ১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলিম সম্প্রদায় এই ঈদে পশু কোরবানির...

এশিয়ার বাইরের উইকেটের যে কারণে অসহায় মোস্তাফিজ

ক্রীড়া ডেস্ক : মোস্তাফিজুর রহমানের বোলিং দেখে ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেকে তাকে বলতেন, 'জোর বল করা...

নতুন ২৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত

কল্যাণ ডেস্ক : শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উভয় বিভাগের আওতায় আরও ২ হাজার ৭১৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার...

নওয়াপাড়া বন্দরে অবৈধ তালিকায় ৬০ ঘাট

অবৈধভাবে গড়ে উঠা ঘাটের কারণে কমছে নদীর নাব্যতা ৫ বছরে অর্ধশত জাহাজ ডুবিতে ক্ষতিগ্রস্ত...

মণিরামপুরে জমজমাট কোরবানির পশু হাট

আব্দুল্লাহ সোহান, মণিরামপুর : দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম হাট মণিরামপুরের গরু-ছাগলের হাট। প্রতি শনি ও মঙ্গলবার এখানে...