Sunday, May 29, 2022

ছবি যেন শুধু ছবি নয়

“আশার কথা, নারায়ণগঞ্জ সিটির নির্বাচন দেশের ভোট সংস্কৃতিতে কিছুটা হলেও আস্থার জায়গা তৈরি করেছে। জাতীয় নির্বাচন মানেই ভোটারদের ভোট উৎসব, এই ধারণা গুরুত্ব পাওয়ায় দেশব্যাপী সাধারণ মানুষের মনে একটা আস্থা ও বিশ্বাসের পাল্লা ভারী হতে শুরু করেছে”

রেজানুর রহমান: ছবিটা কার কেমন লাগল জানি না। তবে নিশ্চিত করে বলতে পারি ছবিটা দেশের সাধারণ মানুষের অনেক ভালো লেগেছে। দেশের সাধারণ মানুষ ছবিটা দেখে দারুণ খুশি হয়েছে। একটা ছবি দেশের সাধারণ মানুষকে অনেক প্রেরণা দিয়েছে। ইতোমধ্যে অনেকেই হয়তো ছবিটা চিনে ফেলেছেন। হ্যাঁ, আইভী রহমান ও তৈমুর আলম খন্দকারের একটি ঐতিহাসিক ছবির কথাই বলছি। নির্বাচনী লড়াইয়ে হেরেছেন তৈমুর আলম খন্দকার। এ ধরনের পরিস্থিতিতে সাধারণত কী হয়? পরাজিত প্রার্থী, বিজয়ী প্রার্থীর ছায়া মাড়াতেও রাজি হন না। ক্ষোভ-বিক্ষোভে ফেটে পড়েন। অথবা বিজয়ী প্রার্থী পরাজিত প্রার্থীর মুখোমুখি হতে চান না। এক্ষেত্রে আইভী রহমান ও তৈমুর আলম খন্দকার একটা ইতিহাস সৃষ্টি করলেন। বিজয়ী প্রার্থী আইভী স্বয়ং মিষ্টি নিয়ে গিয়েছিলেন তৈমুরের বাসায়। তৈমুরের মুখে নিজে মিষ্টি তুলে দিয়েছেন। তৈমুরও মিষ্টি খাইয়েছেন আইভীকে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ দেশের সব প্রচার মাধ্যমে এই ছবিটি গুরুত্ব সহকারে প্রকাশ ও প্রচার হয়েছে। দেশের সাধারণ মানুষ ছবিটি দেখে দারুণ আনন্দিত ও উচ্ছ্বসিত। বাসাবাড়ি, অফিস আদালত, মাঠে ময়দানে, রাজনৈতিক আলোচনায় এই ছবিটি গুরুত্বের সাথে আলোচিত হচ্ছে। সবার অভিন্ন মন্তব্য আহা! রাজনীতির আগামীর ছবিটা যদি এমন হয় তাহলে কোনো সংকট, সমস্যা, ষড়যন্ত্রও দেশের উন্নয়ন, অগ্রগতি থামিয়ে দিতে পারবে না। দেশ এগিয়ে যাবেই যাবে…।

একটা কথা বেশ প্রচলিত। যার শেষ ভালো তার সবই ভালো। আমাদের নির্বাচন কমিশন নিয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা আছে। তবে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচন কিছুটা হলেও কমিশনের ওপর আস্থা জাগিয়েছে। জাতীয় নির্বাচন কার্যত ভোটারদের জন্য একটি উৎসবও বটে। কিন্তু এই উৎসবে ভাটা পড়েছিল। জাতীয় নির্বাচনের প্রতি দেশের সাধারণ মানুষ আস্থা হারিয়ে ফেলেছিল। ‘জোর যার নির্বাচন তার’ এটাই যেন নিয়মে পরিণত হয়েছিল। নারায়ণগঞ্জ সিটির নির্বাচন একটা পরিবর্তনের বার্তা ছড়িয়ে দিয়েছে। আইভী রহমান ও তৈমুর আলম খন্দকারের মিষ্টি মুখের ছবিই এখন রাজনীতির মিষ্টিময় আলোচনা। একটা ছবিই যেন বদলে দিয়েছে দৃশ্যপট।

আমার একজন শ্রদ্ধেয় শিক্ষক অনেক দিন আগে একটি নীতিকথা বলেছিলেন। ‘একটি বাড়ির তুলনায় একটি দরজা অনেক ছোট। একটি দরজার তুলনায় একটি তালা আরও ছোট। একটি তালার তুলনায় একটি চাবি আরও অনেক ছোট। অথচ বাড়িটি খোলার সময় অর্থাৎ বাড়িতে ঢোকার জন্য ওই ছোট্ট চাবিটারই প্রয়োজন হয় বেশি’। তেমনই একজন সম্মানিত ভোটারই হলেন যে কোনো নির্বাচনের চাবি। ভোটার ভোট দিয়েই নেতা বানায়। অথচ দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য, এই ভোটাররাই দিনের পর দিন উপেক্ষিত হচ্ছেন। দেশের ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন এর জ্বলন্ত প্রমাণ। ভোট ছাড়াই অনেকে জনপ্রতিনিধি হয়েছেন। আবার ‘জোর যার ভোট তার’ এই নীতিতেও অনেকে স্বঘোষিত জনপ্রতিনিধি হয়েছেন। ইউপি নির্বাচনে সারাদেশে সহিংস ঘটনায় বহু প্রাণহানিও ঘটেছে। ফলে জাতীয় নির্বাচন নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে অনীহার পাশাপাশি আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। ভোট দিয়ে কী হবে? ভোটের আগেই তো নেতা-নেত্রী জয়ের জন্য ‘ভি’ চিহ্ন দেখান। নির্বাচিত হয়ে যান। কাজেই ভোটের তো দরকার পড়ে না।

আশার কথা, নারায়ণগঞ্জ সিটির নির্বাচন দেশের ভোট সংস্কৃতিতে কিছুটা হলেও আস্থার জায়গা তৈরি করেছে। জাতীয় নির্বাচন মানেই ভোটারদের ভোট উৎসব, এই ধারণা গুরুত্ব পাওয়ায় দেশব্যাপী সাধারণ মানুষের মনে একটা আস্থা ও বিশ্বাসের পাল্লা ভারী হতে শুরু করেছে।

একথা সত্য, নারায়ণগঞ্জ সিটির নির্বাচনকে ঘিরেও সহিংসতার আশঙ্কা করা হয়েছিল। কারণ এই নির্বাচনকে ঘিরে যেভাবে কথার লড়াই শুরু হয়েছিল তাতে মনে হয়েছিল, কথায় কথা বাড়তে বাড়তে পাছে না সহিংসতায় রুপ নেয়। কিন্তু সব জল্পনা-কল্পনার অবসান হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের নির্বাচনে তেমন কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। উৎসবমুখর পরিবেশেই ভোটাররা ভোট দিয়েছেন এবং ভোট শেষে প্রার্থীরা ভোটের ফলাফল মেনেও নিয়েছেন। পরাজিত প্রার্থী বিজয়ীপ্রার্থীর মুখে মিষ্টি তুলে দিয়েছেন। বহুদিন বাংলাদেশের কোনো জাতীয় নির্বাচনে এমন সুন্দর, মায়াময় দৃশ্য দেখা যায়নি। আর তাই দেশের সাধারণ মানুষ দারুণ উৎফুল্ল, আনন্দিত। ভবিষ্যতে দেশের সব নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ নির্বাচন মডেলের গুরুত্ব চাই-ইতোমধ্যে এমন দাবিও অনেকে তুলতে শুরু করেছেন।

হ্যাঁ, আগামীতে দেশের যে কোনো নির্বাচনের ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জের প্রসঙ্গ উঠবে এটাই স্বাভাবিক। এখন কথা হলো নারায়ণগঞ্জের এবারের নির্বাচনের বিশেষত্ব কি? কোন জাদুমন্ত্র বলে নির্বাচনটি জনমনে এতটা আস্থা ও বিশ্বাসের জন্ম দিল? উত্তর একটাই-সংশ্লিষ্ট সব মহলের নিরপেক্ষ ভূমিকা। পাশাপাশি ‘আমার ভোট আমি দেব যাকে খুশি তাকে দেব’, এই স্বাধীনতাও ছিল নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের একটা সৌন্দর্য। মোটকথা নির্বাচনী প্রচারণায় প্রার্থীদের মধ্যে অভিযোগ পাল্টা অভিযোগ থাকলেও ভোটের দিন কোনো পক্ষই নির্বাচনী আচরণবিধি ভঙ্গ করেননি।

অবাধ সুষ্ঠু নির্বাচনের ক্ষেত্রে নারায়ণগঞ্জের এবারের নির্বাচন সত্যিকার অর্থে মডেল হয়ে থাকবে। পত্র-পত্রিকা, টিভি চ্যানেলসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ সিটি নির্বাচনের প্রশংসা চলছে জোরে-শোরে। একটি জাতীয় দৈনিকে ‘নারায়ণগঞ্জের মতো সুষ্ঠু ভোট কি জাতীয় নির্বাচনে সম্ভব?’ এমন শিরোনাম দিয়ে বিশেষ রিপোর্ট প্রকাশ হয়েছে। নগরীর ফুটপাতের পাশে একটি চায়ের দোকানের সামনে ভাঙ্গা বেঞ্চির আড্ডায়ও এই প্রসঙ্গটি আলোচিত হতে দেখলাম। নারায়ণগঞ্জে সুষ্ঠু নির্বাচনের পর সাধারণ মানুষের মধ্যে কতই না আশা ভরসার ডাল পালা বিস্তৃত হয়েছে। একজন বললেন, নারায়ণগঞ্জ তো দেখায়া দিল ভাই। আমরা এই ধরনের নির্বাচনই চাই। অন্য একজন বললেন, দেশটা অনেকদূর আগাইছে। সেই তুলনায় আমরা দেশের মানুষেরা আগাই নাই। সাথে সাথে প্রতিবাদ করলো অন্য একজন-মানুষ না আগাইলে দেশ আগায় কি কইর‌্যা? মানুষ না থাকলে দেশের কি কোনো মূল্য আছে? তর্কটা জমে উঠল। দেশ আগে না মানুষ আগে? তখনই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠল ভালো মানুষ প্রসঙ্গ এবং সঙ্গত কারণেই আইভী রহমান ও তৈমুর আলম খন্দকার ভালো মানুষের তালিকায় উঠে এল। আসুন আমরা এমন ভালো মানুষের পক্ষে দাঁড়াই।

লেখক : কথাসাহিত্যিক, নাট্যকার, সম্পাদক আনন্দ আলো।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

দুই বছর পর যাত্রা শুরু করলো ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’

আইয়ুব হোসেন পক্ষী,বেনাপোল প্রতিনিধি: করোনার জেরে দু’বছর ধরে বন্ধ ছিল খুলনা-কলকাতা বন্ধন এক্সপ্রেস। তবে...

ছাত্রনেতা শাহীর মুক্তির দাবিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলা চিঠি 

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি খোলা চিঠি লিখেছেন যশোর...

খুলনা-কলকাতা রুটে বন্ধন এক্সপ্রেস আজ ফের চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ রোববার থেকে ফের কলকাতা-খুলনা রুটে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ রেল চলাচল শুরু হবে।...

রসুনের গায়ে আগুন!

সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে বেড়েছে ৫০ টাকা ক্ষুব্ধ ক্রেতা, স্বস্তিতে নেই কিছু বিক্রেতাও জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক: এবার ভোক্তার...

আনারসের পাতা থেকে সুতা সৃজনশীল কাজে পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন

অপার সম্ভাবনার দেশ বাংলাদেশ। কিন্তু হলে কি হবে। সম্ভবনা থাকলেই তো আর আপনা আপনি...

দড়াটানার ভৈরব পাড়ে মাদকসেবীদের নিরাপদ আঁখড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শহরের ঘোপ জেলরোড কুইন্স হাসপাতালের পূর্ব পাশে ভৈরব নদের পাড়ে মাদকসেবীদের...