দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা

দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টির সম্ভাবনা

কল্যাণ ডেস্ক: ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। কোথাও কোথাও বৃষ্টি না হলেও আকাশ মেঘলা রয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি হতে পারে।
মঙ্গলবার রাত সোয়া নয়টা নাগাদ বৃষ্টি শুরু হয় রাজধানীতে। প্রথমে গুঁড়িগুঁড়ি হলেও পরে তা আর একটু বেড়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে বইছিল হালকা ঝড়ো বাতাসও। এর আগে বিকেলের দিকে দেশের উত্তরাঞ্চলের কিছু কিছু এলাকায় এই বৃষ্টি শুরু হয়। তবে এখন পর্যন্ত এই বৃষ্টি কারণে তাপমাত্রা খুব একটা কমেনি। আগামী কয়েকদিন এই বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।

গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে দিনাজপুরে ১১ মিলিমিটার। এছাড়া চুয়াডাঙ্গায় ৯, কুমারখালী, সাতক্ষীরা ও টাঙাইলে ৮, নেত্রকোনায় ৭, ঈশ্বরদী ও ময়মনসিংহে ৬, সৈয়দপুর ও সীতাকু-ে ৩, যশোর ও ডিমলায় ২, কুমিল্লা, মাইজদীকোট, সিলেট, রাজশাহী, তাড়াশ, সন্দ্বীপ, ফরিদপুর, ঢাকায় ১ মিলিমিটার বৃষ্টি রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া খেপুপাড়া, ভোলা, মোংলা, রংপুরে সামান্য বৃষ্টি হয়েছে বলে আবহাওয়া অফিস জানায়।

আবহাওয়াবিদ শাহীনুল ইসলাম বলেন, দেশের কিছু এলাকা বিশেষ করে ঢাকা, রাজশাহী, রংপুর, যশোরের দিকে বৃষ্টি শুরু হয়েছে। রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে। আগামীকাল চট্টগ্রামসহ আরও এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে। পশ্চিমা লঘুচাপের প্রভাবে ১৪ /১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এই বৃষ্টি থাকতে পারে। হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি কখনও টানা কখনও থেমে থেমে হতে পারে। এই কদিন আকাশ বেশিরভাগ সময় মেঘলা থাকতে পারে।

বুধবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ফেনীতে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা গতকাল ছিল তেতুলিয়ায় ১১ দশমিক ৯। এ হিসেবে তাপমাত্রা আরও খানিকটা বেড়েছে। এদিকে বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকার সর্বনি¤œ তাপমাত্রা ছিল ১৭ দশমিক ৩, আজ ১৮ দশমিক ৪৷ ময়মনসিংহে ছিল ১৬ দশমিক ২, আজ ১৭ দশমিক ৮, চট্টগ্রামে ছিল ১৭ দশমিক ২, আজ ১৭, সিলেট ছিল ১৫ দশমিক ৮, আজ ১৭ দশমিক ৯, রাজশাহীতে ছিল ১৬ দশমিক ৩, আজ ১৫ দশমিক ৩, রংপুরে ছিল ১৩, আজ ১৮ দশমিক ৪৷ খুলনায় ছিল ১৬ দশমিক ৫, আজ ১৮ দশমিক ৬ এবং বরিশালে ছিল ১৩ দশমিক ৮, আজ ১৬ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতর জানায়, পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ হিমালয়ের পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গ ও আশেপাশের এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে, যার বর্ধিতাংশ উত্তরপূর্ব বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। পূর্বাভাসে বলা হয়৷ রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। শেষরাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারাদেশের বিক্ষিপ্তভাবে কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে। এর প্রভাবে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে