দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রীর অবদান বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

প্রতমিন্ত্রী স্বপন ভট্টার্চায

কল্যাণ রিপোর্ট
স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য বলেছেন, দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। উন্নয়নের ঢেউ এখন শহর ছাড়িযে গ্রামের মানুষের দোরগোড়ায় পৌছেছে।

মানুষ এখন আর না খেয়ে থাকেনা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু দেশে সুসমবন্টন আইন চালু করার মহৎ উদ্যোগ নিয়েছিলেন । যা আমাদের দেশের জন্য বিশেষ প্রয়োজন ছিল। প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অবদান বিশ্বব্যাপী স্বীকৃত। উন্নয়নের ঢেউ এখন শহর ছাড়িযে গ্রামের মানুষের দোরগোড়ায় পৌছেছে।

মানুষ এখন আর না খেয়ে থাকেনা। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু দেশে সুসমবন্টন আইন চালু করার মহৎ উদ্যোগ নিয়েছিলেন । যা আমাদের দেশের জন্য বিশেষ প্রয়োজন ছিল।

তিনি বলেন, পৌরসভায় কর্মচারীদের ১১ মাসের বেতন বন্ধ রাখার বিষয়ে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী সরকার অনুমোদন দিতে পারে না। কারণ এ আইন কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য না। এর পেছনে অন্য কোন ষঢ়যন্ত্র কাজ করছে কি না তা দেখতে হবে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে যশোর শিল্পকলা অ্যাকাডেমিতে বাংলাদেশ পৌরসভা সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত খুলনা বিভাগীয় ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

সংগঠনের খুলনা বিভাগীয় আহ্বায়ক মোস্তাক আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে বিশেষ অতিথি ছিলেন, ঝিনাইদহ পৌরসভার মেয়র সাইদুল করিম মিন্টু, নড়াইল পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরা, কেশবপুর পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলম, কালিয়া পৌরসভার মেয়র ওয়াহিদুজ্জামান হীরা, পাইকগাছা পৌরসভার মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সহিদুল ইসলাম প্রমূখ।

প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুস সাত্তার। অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল আলীম মোল্লা। সম্মেলনে খুলনা বিভাগের ৩৬ টি পৌরসভায় কর্মরত বিভিন্ন শ্রেণির কর্মকর্তা কর্মচারি অংশগ্রহণ করেন।

সম্মেলনে বক্তরা তাদের মাসিক বেতন, গ্রাচুইটি ও অবসরভাতাসহ বিভিন্ন দাবি জানিয়ে বলেন, ইতোপূর্বে সরকার আমাদের বারবার দাবি পুরনের আশ্বাস দিলেও তা বাস্তবে রূপ পায়নি। আগামী একমাসের মধ্যে সরকার প্রতিশ্রুত সকল দাবি বাস্তবায়নের দাবি জানিয়ে বলেন, দাবি বাস্তবায়নে সরকার গড়িমশি করলে আগামী জানুয়ারি মাস থেকেই দূর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নড়াইল পৌরসভার মেয়র আঞ্জুমান আরা বলেন, পৌরসভায় কর্মরত সরকারি নিয়োগপ্রাপ্তরাও আজ চরম সংকটের মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। তাদের যৌক্তিক দাবি মেনে নেয়া সরকারের যুগান্তকারী সিদ্ধান্ত হবে বলে আমি মনে করি।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রতিমন্ত্রী জাতীয় পতাকা উত্তোলন, শান্তির প্রতীক কবুতর ও ফেস্টুনসহ বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন ঘোষণা করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে