Tuesday, July 5, 2022

নিজের ছেলের সঙ্গে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ে দিলেন স্কুলশিক্ষিকা

চুয়াডাঙ্গায় শামসুন্নাহার নামের এক শিক্ষিকার বিরুদ্ধে নিজের ছেলের সঙ্গে তারই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে এলাকা জুড়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। একজন শিক্ষিকার এহেন দায়িত্ব জ্ঞানহীন কাণ্ডে হতবাক হয়েছে সচেতন মহল।

অভিযুক্ত শামসুন্নাহার সদর উপজেলার বেগমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা। ওই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া নিজের ছেলের সঙ্গে বিয়ে দিয়েছেন। বিষয়টি তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন এলাকার সচেতন মহল।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার এক দিনমজুর বাবার মেয়ে ওই পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছাত্রী (১১)। তার বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শামসুন্নাহার। গত ২০ মার্চ ওই শিক্ষিকা তাঁর দশম শ্রেণি পড়ুয়া ছেলে সঙ্গে বিয়ে দেন ওই ছাত্রীর। প্রথম কয়েক দিন বিষয়টি গোপন থাকলেও বাল্য বর-বধূ নিয়ে ঘটা করে শ্বশুর বাড়িতে বেড়াতে আসলে তা জানাজানি হয়ে যায়। এ নিয়ে সচেতন মহলে চলছে নানা সমালোচনা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত শিক্ষিকা শামসুনাহার জানান, তাঁর নিজ বাড়ির অবস্থা খুব একটা ভালো না। বিশেষ করে তাঁর মায়ের খুব শরীর খারাপ। মায়ের ইচ্ছা নাতি ছেলের বউ দেখার। মূলত মায়ের ইচ্ছা পূরণ করার জন্যই তিনি নিজের ছেলের সঙ্গে তারই স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে বিয়ে দিয়েছেন। তবে বিয়ে রেজিস্ট্রি করা হয়নি। বেগমপুর দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক ও বেগমপুর ইউনিয়নের কাজি মফিজুল ইসলাম ধর্মীয় রীতি মেনে বিয়ে দিয়েছেন।

এ বিষয়ে বেগমপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশিদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিয়ের বিষয়টি জানেন না জানিয়ে বলেন, একজন স্কুল শিক্ষিকার এ ধরনের অপরাধ কাম্য নয়।

বিয়ের কাজি মফিজুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করে জানান, এ ধরনের কোনো বিয়ে তিনি পড়াননি। তাঁকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

এই বিয়ের বিষয়ে জানতে চাইলে বেগমপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলী হোসেন জোয়ারদার বলেন, ‘বেগমপুর ইউনিয়নকে বাল্য বিবাহ মুক্ত করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদ বদ্ধপরিকর। একজন স্কুল শিক্ষিকা কীভাবে এই ধরনের কাজ করতে পারে আমার বুঝে আসে না।’

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শামীম ভূঁইয়া বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা করা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

নেশাগ্রস্থ অবস্থায় আইনজীবী সহকারীসহ দুই যুবক আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক :  নেশাগ্রস্থ অবস্থায় আইনজীবী সহকারীসহ দুই যুবককে আটক করেছে যশোর সদর ফাঁড়ি পুলিশ।...

অনুমতি ছাড়া ২য় বিয়ে, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক অনুমতি ছাড়াই দ্বিতীয় বিয়ে করায় হাদিউজ্জামান নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে যশোর আদালতে মামলা...

যশোরে যুবক ছুরিকাহত

নিজস্ব প্রতিবেদক :  যশোর শহরে পূর্ব শত্রুতা জেরে ইমরান হোসেন (২২) নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাত...

ডেনমার্কে শপিং মলে বন্দুকধারীর হামলা, নিহত ৩

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ডেনমার্কের অন্যতম বৃহৎ একটি শপিং মলে হামলা চালিয়েছে এক বন্দুকধারী। এতে তিনজন...

দীঘি বললেন, ‘হ্যাঁ, আমি বিবাহিত’

বিনোদন ডেস্ক তার বয়স যখন মাত্র ৬ বছর। তখন তাকে সিনেমার পর্দায় নিয়ে আসেন কিংবদন্তি...

ইতালির ফুটবলে প্রথম নারী রেফারি

ক্রীড়া ডেস্ক : রেফারিংয়ে নতুন একযুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে ইতালিয়ান ফুটবল। আসন্ন ২০২২-২৩ মৌসুমের জন্য...