নির্যাতিতার মাকে কংগ্রেসের প্রার্থী করলেন প্রিয়াংকা

নির্যাতিতার মাকে কংগ্রেসের প্রার্থী করলেন প্রিয়াংকা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের নির্বাচনে কংগ্রেস নেত্রী প্রিয়াংকা গান্ধী উন্নাও এলাকায় গণধর্ষণের শিকার তরুণীর মা আশা সিংহকে তার দলের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছেন।
এ ছাড়া বৃহস্পতিবার তিনি সিএএ-এনআরসিবিরোধী আন্দোলনে গ্রেফতার হওয়া সদফ জাফর, আরেক আন্দোলনের নেত্রী পুনম পান্ডেসহ ৫০ নারী কংগ্রেস প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছেন। খবর বানন্দবাজার পত্রিকার।

উত্তরপ্রদেশ রাজ্যের নির্বাচনের জন্য কংগ্রেসের প্রথম দফায় মোট ১২৫ জনের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হয়েছে। প্রিয়ংকার ৪০ শতাংশ আসনে নারী প্রার্থীর প্রতিশ্রুতি মেনে তাদের মধ্যে ৫০ নারী প্রার্থী রাখা হয়েছে।
জাতপাতের সমীকরণ মাথায় রেখে ১২৫ জনের মধ্যে ব্রাহ্মণ, ঠাকুর, তফসিলি জাতি, জনজাতি, ওবিসি, মুসলমান, বৈশ্য— সব সম্প্রদায়ের প্রতিনিধিত্ব রয়েছে।

নির্বাচনের পর কংগ্রেস প্রয়োজনে অন্য দলকে সমর্থন করবে বলে জানিয়ে দিলেন প্রিয়াংকা গান্ধী। যার অর্থ, ভোটের আগে সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে কংগ্রেসের কোনো রকম সমঝোতা না হলেও, ভোটের পরে অখিলেশ যাদবের সঙ্গে জোটের সম্ভাবনা খোলা রাখছেন প্রিয়াংকা।

প্রিয়াংকা এ বিষয়ে প্রশ্নের উত্তরে জানিয়েছেন, কংগ্রেস বিজেপিকে হঠাতে প্রয়োজনে ভোটের পর অন্য দলকে সমর্থনের কথা ভাববে।

এর মধ্যে আশা সিংহকে প্রার্থী করা প্রিয়াংকার সব থেকে বড় চমক বলে কংগ্রেস নেতারা দাবি করছেন।
বিজেপির সাবেক বিধায়ক কুলদীপ সিংহ সেঙ্গারের বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে আশাদেবীর কিশোরী কন্যাকে চাকরি দেওয়ার নাম করে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে।

পুলিশ তখন বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ নিতে রাজি হয়নি। সেঙ্গারের লোকেরা আশার স্বামীকে মারধর করে। সেই অভিযোগ জানাতে গেলে তাকেই মিথ্যে মামলায় গ্রেফতার করে মারধর করে পুলিশ।
পুলিশি হেফাজতেই তখন তার মৃত্যু হয়। আশার মেয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বাসভবনের সামনে ধর্নায় বসেছিলেন। গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মঘাতী হওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। দিল্লির তিস হাজারি কোর্ট কুলদীপকে কারাদ- দিলেও উচ্চ আদালতে মামলা চলছে।

প্রার্থী হিসেবে আশা সিংহের নাম ঘোষণা করে প্রিয়াংকা বলেন, উনি ভোটে লড়তে চেয়েছিলেন। আমরা তাকে সুযোগ দিয়েছি। যে ক্ষমতাকে কাজে লাগিয়ে তাকে দমন করা হয়েছিল, পরিবারের ওপর অত্যাচার হয়েছিল, সেই ক্ষমতাই তিনি নিজের হাতে নিন- আর নিজের অধিকারের জন্য নিজের লড়াই লড়ুন।
চল্লিশ শতাংশ আসনে নারী প্রার্থী দিলেও প্রিয়াংকার নিজে ভোটে লড়ার সম্ভাবনা নেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে