সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২

পাইকগাছার বিভিন্ন এলাকা থেকে পানি নেমে যাওয়ায় আমন চাষ শুরু

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি :

পানি নিষ্কাশনে দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করায় স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে পাইকগাছার প্রায় প্রতিটি এলাকা। ইতোমধ্যে পানি সরে যাওয়ায় শুক্রবার থেকে আমন চাষ শুরু করেছে গড়ইখালী ইউনিয়নের কৃষকরা। কয়েক দিনের টানা বর্ষণে উপজেলার অন্যান্য এলাকার ন্যায় গড়ইখালী ইউনিয়নের গোটা এলাকা তলিয়ে যায়। উপজেলার ১০ ইউনিয়নের মধ্যে কৃষি সমৃদ্ধ ইউনিয়ন গড়ইখালী। এ ইউনিয়নে একদিকে যেমন রবি মৌসুমে তরমুজসহ বিভিন্ন ধরনের সবজির চাষ হয়, তেমনি বর্ষা মৌসুমে ইউনিয়নের প্রতিটি কৃষক আমন চাষ করে থাকে। ৩০ হাজার মানুষের বসবাস এ ইউনিয়নে। চলতি মৌসুমে বৃষ্টির অভাবে অন্যান্য এলাকার কৃষকরা যখন দিশেহারা তখন এই ইউনিয়নের কৃষকরা ঘোষখালী নদীর পানি দিয়ে বীজতলা তৈরি এবং স্বল্প পরিসরে আমন চাষ শুরু করে।

গত রোববার থেকে টানা বৃষ্টিপাত শুরু হলে ইউনিয়নের কৃষকরা পুরোদমে ধান রোপণের কাজ শুরু করে। এদিকে বৃহস্পতিবার ভোররাতে কয়েক ঘন্টার ভারী বর্ষণের অন্যান্য এলাকার ন্যায় অত্র ইউনিয়নের গড়ইখালী, ফকিরাবাদ, শান্তা, কুমখালী, গাংরখী, বাইনবাড়িয়া, উত্তর বাইনবাড়িয়া, দক্ষিণ বাইনবাড়িয়া, আমিরপুর, উত্তর আমিরপুর, দক্ষিণ আমিরপুর, পাতড়াবুনিয়া, বগুলার চক, কানাখালী, বাসাখালী ও হোগলার চকসহ ইউনিয়নের গোটা এলাকা পানিতে তলিয়ে যায়। ফসলি জমি, পুকুর ও জলাশয় পানিতে একাকার হয়ে যায়। প্লাবিত ইউনিয়নের পানি নিস্কাসনে পূর্ব থেকেই প্রস্তুত ছিলেন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জিএম আব্দুস সালাম কেরু। ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনেরও ছিল বিভিন্ন দিক নির্দেশনা। চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম কেরু লোকজন নিয়ে বৃষ্টির মধ্যে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে পানি নিস্কাসনে প্রয়োজনীয় সব ধরনের ব্যবস্থা নেন। বিশেষ করে ইউনিয়নের ঘোষখালী, গাংরখী ও নাপতিখালী প্রধান যে ৩টি স্লুইস গেট রয়েছে সবগুলো গেটের জোয়ার তোলা বন্ধ করে সার্বক্ষণিক ভাটা দেয়ার ব্যবস্থা করেন। এছাড়া বাইনবাড়িয়া, পাটকেলখালী, শান্তা, গাংরখী ও শালুকখালী খালের অবৈধ নেট-পাটা অপসারণ করার পাশাপাশি শান্তা ও কুমখালীসহ বিভিন্ন এলাকার বাঁধ কেঁটে দ্রুত পানি নিষ্কাসনের ব্যবস্থা নেন। যার ফলে বৃহস্পতিবার রাতের মধ্যে ফসলি জমি ও পুকুর জলাশয় সহ গোটা এলাকার পানি সরে যায়। পানি সরে যাওয়ার সাথে সাথে ফসলি জমি জেগে যাওয়ায় শুক্রবার থেকে আবারও কৃষকরা আমন ধান রোপণ কাজ শুরু করেছে। বাইনবাড়িয়ার কৃষক বিশ^জিৎ জানান ভারি বর্ষণে আমাদের ফসলি জমি পানিতে তলিয়ে যায়, ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পানি নিস্কাসনে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে অনেক ক্ষতি হতো। বর্তমানে ফসলি জমি জেগে যাওয়ায় শুক্রবার সকাল থেকে আমরা আবার আমন ধান রোপণ কাজ শুরু করতে পেরেছি। ইউপি চেয়ারম্যান জিএম আব্দুস সালাম কেরু জানান আমার ইউনিয়নের বেশিরভাগ মানুষ কৃষির উপর নির্ভরশীল। বৃহস্পতিবার ভারি বর্ষণে ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকা তলিয়ে যায়। পানি নিস্কাসনে স্লুইস গেটগুলোতে ভাটার ব্যবস্থা করা এবং খালের বাঁধ ও নেট-পাটা অপসারণ করায় দ্রুত পানি নিস্কাসন করা সম্ভব হয়েছে। শুক্রবার সকাল থেকে ইউনিয়নের প্রতিটি এলাকায় স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে এসেছে বলে গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান জানান। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মমতাজ বেগম জানান, জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হতে পারে এমন আশঙ্কায় ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের আগে থেকেই প্রস্তুত থাকার নির্দেশনা দেয়া ছিল। নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করায় অনেক এলাকা দ্রুত স্বাভাবিক হয়েছে আবার অনেক এলাকা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। দুই এক দিনের মধ্যে সব এলাকা সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হয়ে যাবে এমনটাই জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

যশোরে নৌকাডুবে শিশুর মৃত্যু

খাজুরা প্রতিনিধি : যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার মির্জাপুর গ্রামে নৌকায় পারাপার সময় নৌকা ডুবে মৃত্যু হয়...

চিকিৎসায় নোবেল পেলেন সুইডেনের জিনবিজ্ঞানী সান্তে প্যাবো

কল্যাণ ডেস্ক : চিকিৎসা বিজ্ঞানে এ বছর নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন সুইডেনের জিনবিজ্ঞানী সান্তে প্যাবো। আজ...

সয়াবিন তেলের দাম কমল লিটারে ১৪ টাকা

কল্যাণ ডেস্ক : আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমায় অবশেষে দেশের বাজারেও কমল সয়াবিন তেলের দাম। এর...

কুয়েত সরকারের পদত্যাগ

কল্যাণ ডেস্ক: সংসদ নির্বাচনে বিরোধীরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়ায় উপসাগরীয় দেশ কুয়েতে সরকার পদত্যাগ করেছে। রোববার...

শাকিব এই দেশ ছেড়ে চলে যাক: ডিপজল

বিনোদন ডেস্ক: ঢালিউডে এই সময়ের সমালোচিত নাম শাকিব। ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এই অভিনেতা ও...

বউকে ফিরিয়ে নিতে যুবকের অভিনব নাটক

কল্যাণ ডেস্ক : বউকে সংসারে ফিরিয়ে নিতে অভিনব কৌশলের আশ্রয় নিয়েছেন এক যুবক। কৌশলের আদ্যপান্ত...