Sunday, May 29, 2022

পাম্প বন্ধের হুমকি পরিবেশকদের

আবদুল কাদের: চাহিদা বেড়ে যাবার কারণে খুলনা বিভাগের ১০ জেলার বেশিরভাগ পাম্পে চলছে পেট্রোল সংকট। গত ৭ দিন ধরে পেট্রোল পাওয়া যাচ্ছে না। এতে চরম বিপাকে পড়তে হচ্ছে গাড়ির মালিকদের। বিশেষ করে মোটরসাইকেল চালকদের। পাম্প মালিকরা বলছেন, ডিপো থেকে কোন পেট্রোল সরবরাহ করা হচ্ছে না। এভাবে সংকট চললে পাম্প বন্ধের হুমকি দিচ্ছেন জ্বালানি পরিবেশকরা।

শহরের বকচর এলাকার মাসুদ বিশ্বাস জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে পাম্প থেকে পেট্রোল মিলছে না। তেল আনতে গেলে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে পেট্রোল নেই। যেকারণে বাধ্য হয়ে অকটেন কিনতে হচ্ছে। একটানা অকটেনে মোটরসাইকলে চালালে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এতে সমস্যায় পড়ছি।

নিজের প্রাইভেটকার ভাড়ায় চালান শহরের বেজপাড়ার বাসিন্দা সাইদ হাসান হিরা। তিনি বলেন, প্রতিদিন অকটেন কিনে পারা যাচ্ছে না। যাত্রীর কাছে বেশি ভাড়া চাইলে তারা যেতে চায় না। এভাবে পেট্রোল সংকট চললে আমার মতো হাজারো প্রাইভেটকার চালককে বিপাকে পড়তে হবে।

যশোর-ঝিনাইদহ সড়কের সাতমাইল এলাকার আফিল ফিলিং স্টেশনের মালিক গাজী হাসানুল কবীর হাসান বলেন, আমরা খুলনার ডিপো থেকে তেল সংগ্রহ করে থাকি। সেখানে পেট্রোলের মজুদ নেই। আবার পেট্রোলের চাহিদা বেড়ে গেছে। যেকারণে খুলনা বিভাগের সব জায়গায় পেট্রোল সংকট চলছে। এতে গ্রাহকদের সাথে আমাদের কর্মীদের বাকবিতন্ডা চলছে। অনেকে বেশি দামে অকটেন নিতে চাইছে না।

মনিহার এলাকার যাত্রীক পেট্রোল পাম্পের মালিক আতিকুর রহমান জানান, আমরা খুলনার সরকারি জ¦ালানি তেল ডিপো থেকে সংগ্রহ করি। গত ১৫ দিন ধরে সেখান থেকে পেট্রোল দিচ্ছে না। বলা হচ্ছে মজুদ বাড়লে পাবেন। যেকারণে সব পাম্পে পেট্রোল নেই। এতে কিছু গ্রাহকের সাথে আমাদের কথাকাটাকাটি হচ্ছে। বুঝাতে চাইলেও তারা মানতে নারাজ। আবার প্রচুর মোটরসাইকলে বেড়ে যাবার কারণে পেট্রোল বিক্রি বেড়ে গেছে। এতে চাহিদা অনুযায়ী পেট্রোল মিলছে না।

যশোর জেলা জ্বালানি পরিবেশক সমিতির সাধারণ সম্পাদক গোলাম কাদের মিন্টু জানান, খুলনা বিভাগে মোট ২৬৫টি পাম্প রয়েছে। এরমধ্যে যশোর জেলায় রয়েছে ৬১টি। গত ১৫ দিন ধরে খুলনা বিভাগের সব পাম্পে পেট্রোল সংকট মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। একারণে আমরা পাম্পে পেট্রোল নেই সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিয়েছি। পেট্রোল না থাকার কারণে মোটরসাইকেল চালকদের সাথে বেশি বাদানুবাদ হচ্ছে। পরিস্থিতি বেশি খারাপ হলে জালানি তেল বিক্রি বন্ধ করা ছাড়া উপায় থাকবে না। বিষয়টি তিনি সরকারকে নজর দেওয়ার আহবান জানান।

এব্যাপারে বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম ডিলার্স ডিস্ট্রিবিউটরস্ এজেন্টস এন্ড পেট্রোল পাম্প ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাজ্জাদুল করিম কাবুল জানান, দীর্ঘদিন ধরে চাহিদা অনুযায়ী পেট্রোল সরবরাহ করতে পারছে না জ্বালানি কোম্পানিগুলো। সরবরাহ বাড়াতে বিপিসির তৎপরতা নেই। এতে সারা দেশের পাম্পগুলোতে পেট্রোল সংকট চলছে। বেশিরভাগ পাম্প পেট্রোল শূন্য হয়ে পড়েছে। বিপিসির উদাসীনতার কারণে বিপাকে পড়তে হচ্ছে পাম্প মালিকদের। তাদের উচিৎ ঘোষণা দিয়ে পেট্রোল বিক্রি বন্ধ রাখা। তা না হলে পাম্পগুলোতে পেট্রোল বিক্রি বন্ধ করা ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না।

খুলনার পদ্মা অয়েল কোম্পানির সেলস ম্যানেজার আল মামুন জানান, তাদের ডিপোতে সংকট থাকার কারণে পেট্রোল সরবরাহ করা কম হচ্ছে। সব পাম্পে পেট্রোলের চাহিদা বেড়েছে দ্বিগুণ থেকে তিনগুণ। যে কারণে সংকট দেখা দিয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

খুলনা-কলকাতা রুটে বন্ধন এক্সপ্রেস আজ ফের চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক: আজ রোববার থেকে ফের কলকাতা-খুলনা রুটে ‘বন্ধন এক্সপ্রেস’ রেল চলাচল শুরু হবে।...

রসুনের গায়ে আগুন!

সপ্তাহের ব্যবধানে কেজিতে বেড়েছে ৫০ টাকা ক্ষুব্ধ ক্রেতা, স্বস্তিতে নেই কিছু বিক্রেতাও জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক: এবার ভোক্তার...

আনারসের পাতা থেকে সুতা সৃজনশীল কাজে পৃষ্ঠপোষকতা প্রয়োজন

অপার সম্ভাবনার দেশ বাংলাদেশ। কিন্তু হলে কি হবে। সম্ভবনা থাকলেই তো আর আপনা আপনি...

দড়াটানার ভৈরব পাড়ে মাদকসেবীদের নিরাপদ আঁখড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শহরের ঘোপ জেলরোড কুইন্স হাসপাতালের পূর্ব পাশে ভৈরব নদের পাড়ে মাদকসেবীদের...

আজকের মধ্যে অবৈধ ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক বন্ধ না হলে ব্যবস্থা

কল্যাণ ডেস্ক: দেশে অনিবন্ধিত ও নবায়নহীন অবস্থায় পরিচালিত অবৈধ বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার...

নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে : মির্জা ফখরুল

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, দেশে আওয়ামী লীগের অধীনে আর...