Saturday, July 2, 2022

প্রতারণার নতুন কৌশলে মানুষ ঠকেই যাচ্ছে

এবার নতুন ধরনের প্রতারণার খবর পাওয়া গেছে গণমাধ্যমে। প্রতারণাটি হলো প্রতারকরা তামান্না লিমিটেডের নামে চীন থেকে ইলেক্টনিক্সসহ বিভিন্ন পণ্য আমদানি করে সারাদেশে শো-রুম করে বিক্রি করতো। এই কোম্পানির শেয়ার বিক্রির ঘোষণা দিয়ে প্রায় ৩০ জনের কাছ থেকে এক কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। পরবর্তীতে বিনিয়োগকারীদের লভ্যাংশ তো দেয়ইনি এখন মুল টাকাও ফেরত দিচ্ছে না। নিরুপায় হয়ে বিনিয়োগকারীরা তামান্না লিমিটেডের এমডিসহ ৬জনের নামে আদালতে মামলা করেছেন। এদিকে যশোরে এসিআই মোটরস ধানকাটা মেশিন বিক্রির নামে বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে আগাম টাকা নিয়ে নিম্মমানের মেশিন দিয়েছে। যেগুলো ক্রেতারা চালাতে গিয়ে ক্রেতারা হিমশিম খাচ্ছেন। এ ঘটনায়ও ওই মোটরসের চেয়ারম্যানসহ ৫জনের নামে আদালতে মামলা হয়েছে। এভাবে প্রতিনিয়ত নতুন নতুন পথ বের করে প্রতারকরা মানুষকে দিনের পর দিন ঠকিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু এর কোন প্রতিকার নেই। এসব প্রতারণার সাথে যারা জড়িত তাদের ন্যুনতম মানবিক মূল্যবোধ আছে কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট সংশয় আছে। দেশের হাজার হাজার মানুষ প্রতারকেরদের খপ্পরে সর্বস্বান্ত হচ্ছেন। অনেকের মাথা গোঁজার ঠাইটুকুও থাকছে না।

এমন হাজারো আশাহত মানুষের মধ্যে যশোরের তাবাচ্ছুম কবীর, আবদুল্লাহ হাওলাদার, বজলুল হক, সৈয়দা নিলুফা আক্তার, রায়হানা আখত্রা এবং অভয়নগর উপজেলার শরিফুল ইসলামসহ ৩০-৩৫ জন রয়েছেন।
গ্রাম-গঞ্জে এভাবে প্রতারকরা মানুষের সাথে প্রতারণা করছে। কোম্পানি বা ব্যবসার নামে যা দেখাচ্ছে তা প্রতারণার হাতিয়ার। তারা কেউই ব্যবসায়ী নয়। একেবারে শতভাগ ভুয়া। তারা মানুষকে মিষ্টি কথায় ভুলিয়ে তাদের সর্বনাশ করে চলেছে একে একে। এমন কোনো গ্রাম নেই যে সে গ্রামে এভাবে দু-দশজন প্রতারণার শিকার হয়নি। বর্তমান সরকারের আমলে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অনিয়মের বিষয়ে কড়াকড়ি ব্যবস্থা আরোপ হচ্ছে। প্রতারকদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা জরুরী হয়ে পড়েছে। নতুবা একদিন দেখা যাবে বিদেশ গমনেচ্ছু হতাশ মানুষের মিছিল লম্বা হতে হতে দেশের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত পর্যন্ত হয়ে গেছে। যা জাতির জন্য বড়ই ক্ষতিকর হবে।

অভিযোগ শোনা যায়, এসব প্রতারকদের নাকি সন্ত্রাসী বাহিনী আছে। যত ঝক্কি-ঝামেলা তারাই হুমকি দেখিয়ে এমন কি পেশিশক্তি প্রয়োগে করে মোকাবেলা করে। ফলে অনেকে তাদের সর্বস্ব শেষ করে প্রতারকদের হাতে তুলে দিয়ে পথের ফকির হলেও কিছুই করতে পারছে না। এ ক্ষেত্রে রাষ্ট্রিয় সহযোগিতা ছাড়া এ সব দুর্বৃত্তদের হাত থেকে রক্ষা পাওয়ার কোনো উপায় নেই। মাদক, সন্ত্রস প্রভৃতি শক্তহাতে দমন করে সরকার যে প্রশংসনীয় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে, এই প্রতারকদের দমনেও সেইরূপ কঠোর ভূমিকা নিতে হবে। আমরা মনে করি এমন একটা পদক্ষেপ নিলে সাধারণ মানুষ অন্তত ঘরের টাকা পরের হাতে তুলে দিয়ে নিস্ব হবার হতে থেকে রেহাই পাবে। মানষের সর্বস্বান্ত হবার হাত থেকে রক্ষা করার জন্য আদম ব্যাপারীদের দমন সরকারের দায়িত্বও বটে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

কেন বিয়ে করেননি, জানালেন সুস্মিতা

বিনোদন ডেস্ক: কেন বিয়ে করেননি সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন; এমন প্রশ্ন...

করোনায় নতুন শনাক্ত ১৮৯৭, মৃত্যু ৫ জনের

কল্যাণ ডেস্ক: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় (গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে আজ শুক্রবার সকাল...

বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ দমনে যে ভূমিকা দেখিয়েছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়

কল্যাণ ডেস্ক: বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস বলেছেন, বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ দমনে...

যশোরের কেশবপুরে নরসুন্দর যুবককে কুপিয়ে হত্যা

কেশবপুর প্রতিনিধি : জেলার কেশবপুর উপজেলায় নরসুন্দর এক যুবকের গলা ও পেট কেটে হত্যা করেছে...

হতদরিদ্রদের চালের দামও বাড়ল ৫ টাকা

ঢাকা অফিস: খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় দেশের ৫০ লাখ হতদরিদ্র মানুষের কাছে বিক্রি করা চালের...

নির্দলীয় সরকার নিয়ে উত্তপ্ত সংসদ

ঢাকা অফিস: বৃহস্পতিবার সংসদে নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয়েছে। বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা...