ফলোআপ ।। বহিরাগতদের উৎপাত ঠেকাতে এমএম কলেজ ছাত্রী নিবাসে পুলিশ টহল শুরু

ফলোআপ

কল্যাণ রিপোর্ট
প্রশাসনের তৎপরতায় উৎপাত থামলেও সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজ ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের আনাগোনা বন্ধ হয়নি। পুলিশ টহল শুরুর পর ছাত্রী নিবাসের আশপাশে ভিড়ছে না তারা। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন কোনে অবস্থান করে মাদক সেবন চালিয়ে যাচ্ছে। ‘অরক্ষিত ক্যাম্পাসে নিরাপত্তাহীন ছাত্রী হোটেল নিবাসীরা’ শীর্ষক সংবাদ প্রকাশের পর নড়চড় শুরু হয়।

গত শনিবার দৈনিক কল্যাণে রিপোর্টটি প্রকাশের পর বৈঠকে বসে কলেজ প্রশাসন। পরের দিন রোববার এই বৈঠকের পর ক্যাম্পাসে টহল দেয় পুলিশ। ক্যাম্পাসের পরিবেশ রক্ষার্থে শিক্ষকরাও তৎপরতা দেখান। যার নাম ভাঙিয়ে ক্যাম্পাসের পরিবেশ বিনষ্ট চলছে কলেজের শীর্ষ স্থানীয় সেই ছাত্র নেতাকেও সর্তক করা হয়।
কিন্তু এত কিছুর পরও থেমে নেই ক্যাম্পাসে বহিরাগত প্রবেশ। মহিলা হোস্টেলের দিকে অবস্থান না করলেও কলেজের অনত্র জড়ো হচ্ছে তারা। তৎপরতার মুখে দিনে প্রকাশ্যে না করলেও অন্ধকার নামলে নির্বিঘেœ মাদক সেবন করছে। কলেজের কিছু বিপথগামী শিক্ষার্থীর কারণে দীর্ঘদিন ধরে ক্যাম্পাসে বহিরাগত প্রবেশ চলছে। ছাত্রনেতা পরিচয়দানকারী কলেজের কতিপয় শিক্ষার্থী বহিরাগত আনাগোনা, মেয়েদের উত্যক্ত ও মাদকসেবনের হোতা। ছাত্ররাজনীতির নামে তারা বাইরে থেকে উচ্ছশৃঙ্খল এসব অছাত্র যুবকদের জড়ো করে। প্রভাব দেখাতে ক্যাম্পাস দাপিয়ে বেড়ায়। আর এদের বেশির ভাগই শীর্ষ পদধারী এক ছাত্রনেতার অনুসারী। যার কারণে কলেজ প্রশাসন সবকিছু জানলেও একপ্রকার নির্বিকার। কিন্তু এদের উৎপাত ও অপতৎপরতা নিয়ে সংবাদ প্রকাশের পর এসব বন্ধে তৎপর হয় কলেজ প্রশাসন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে