ফুল বিক্রি করে বাড়ি ফেরা হলো না কিশোরের

Jhinaidah

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: মহেশপুরে আলমসাধু ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ফুল বিক্রেতা ছামির হোসেন (১৭) নামে এক কিশোরের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার সকালে ৬টায় বাকোসপোতা জানালা ব্রিজের কাছে এই ঘটনা ঘটে। ছামিরের বাড়ি শ্যামকুড় গ্রামে ।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গত বছর করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ছামির হোসেনের বাবা মারা যায়। সংসারে অভাব অনটনের কারণে তার মা নাসরিন বেগম ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করেন। অসহায় কিশোর ছামির হোসেন সেই থেকে একই উপজেলার অনন্তপুর গ্রামে তার ফুফুর বাড়িতে থাকতো। ফুফুর আর্থিক অবস্থা তেমন ভালো না থাকায় সেখানে সে ফুলের চাষ ও ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করতো। বুধবার সকালে ছামির মোটরসাইকেযোগে গাঁদা ফুল নিয়ে বাকোসপোতা বাজারে যাচ্ছিল। এমন সময় জীবননগরগামী একটি মাশকলাই বোঝায় আলমসাধু তাকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলে ছামিরের মৃত্যু হয়।
মহেশপুর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, লাশ থানায় আছে, পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে