রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

বন্ধ হোক ইউনিয়নেরনামে চাঁদাবাজি

চাঁদাবাজ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে সরকার সোচ্চার। এই দুর্বত্তদের দমনে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি নির্দেশনা দিয়েছেন। কিন্তু যখন দেখা যায় চাঁদাবাজরা দোদ- প্রতাপে আগের মতোই তৎপর তখন স্বাভাবিক কারণে প্রশ্ন জাগে তাহলে কর্তৃপক্ষ কি প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাকে গুরুত্ব দিচ্ছে না।

আমরা বরাবরই বলছি অপরাধ অপরাধই। এখানে ছোট বড় ভাবার কোনো অবকাশ নেই। যশোরের বিভিন্ন এলাকায় ভ্যান চালকরা নিত্য চাঁদাবাজের কবলে পড়ে সর্বস্বান্ত হচ্ছে। শরীরের রক্তবিন্দু পানি করে দরিদ্র মানুষ ভ্যান চালিয়ে যে কয়টি টাকা আয় করে, তা থেকে চাঁদাবাজদের হাতে তুলে দিতে হচ্ছে তার একটা অংশ। এটা যে কত বড় কষ্টের বিষয় তা যদি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ একবার নিজেরা ভ্যান টেনে পরীক্ষা করে দেখতেন, তাহলে মনে হয় তারা বিষয়টা সহজে বুঝতে পারতেন এবং চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে তরিৎ ব্যবস্থা নিতেন।

গণমাধ্যমে এ বিষয়ে প্রতিনিয়ত বিস্তারিত খবর প্রকাশিত হয়। কিভাবে কত টাকা চাঁদাবাজরা ভ্যান চালকদের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছে তার বর্ণনা ওই প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়। এর প্রতিবাদ করার কোনো ক্ষমতা দরিদ্র ভ্যান চালকদের নেই। কেউ প্রতিবাদ করে বসলে তিনি শারীরিক নির্যাতনের শিকার হবেন। চাঁদাবাজির কৌশল হিসেবে এখানে ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়ন নামে একটি সংস্থা দাঁড় করানো হয়েছে। পেশাজীবীদের কল্যাণে এমন ধরনের সংস্থা করার অনুমোদন আছে। কিন্তু পেশাজীবীদের কল্যাণের পরিবর্তে যদি কারো ব্যক্তিগত কল্যাণের হাতিয়ার হয়, ওই সংস্থা সেটা কোনো অবস্থায় সমর্থনযোগ্য নয়। ইউনিয়নের নামে এখানে এক ব্যক্তি লুটপাট করে খাচ্ছে। ইউনিয়নের অনুমোদ আছে বলে রাস্তায় আটকিয়ে চাঁদাবাজির অনুমোদন থাকতে পারে না। ইউনিয়নের সদস্যরা ইউনিয়নের অফিসে গিয়ে চাঁদা পরিশোধ করবে। যদি কেউ চাঁদা না দেয় তাহলে তিনি সদস্য থাকতে পারবেন না। তার সুযোগ সুবিধার জন্য ইউনিয়ন কোনো কাজ করবে না।

বিষ্ময়কর ঘটনা এই যে হাইওয়েতে প্রকাশ্যে চাঁদাবজি চলে অথচ পুলিশ এবং থানা পুলিশ কিছু জানে না। তাহলে তারা কি জানে? দায়িত্ব পালনে তাঁরা কতটুকু সক্রিয় তা তাদের কথাতেই প্রমাণ করে।

পেশাজীবীদের ট্রেড ইউনিয়ন করা তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু তাই বলে ইউনিয়নের নামে চাঁদাবাজি করা গণতান্ত্রিক অধিকার নয়। এটা নিঃসন্দেহে আইন বিরোধী কাজ। এ বেআইনী কাজ সংঘটিত হচ্ছে কিনা তা জানিনে বলে পার পাওয়ার কোনো সুযোগ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নেই। আমরা চাই চাঁদাবজিদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হোক।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

খালেদার বাসার সামনে তল্লাশিচৌকি, রাজধানীজুড়ে ব্লক রেইড

কল্যাণ ডেস্ক : রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজার সামনের সড়কের দুই পাশে...

নিজের ১০০০তম ম্যাচ রাঙিয়ে আর্জেন্টিনাকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিলেন মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক : ৬৫ মিনিটে মাঝ মাঠ থেকে বল নিয়ে চিতার মতো অস্ট্রেলিয়ান মিডফিল্ডের ট্রাইঙ্গেল...

কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডস

ক্রীড়া ডেস্ক  : গ্রুপ লিগের পর নকআউট পর্বের শুরুটাও দুরন্ত করলো নেদারল্যান্ডস। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে রাউন্ড...

প্রযুক্তির মাধ্যমে দিনবদল করেছেন শেখ হাসিনা : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘উদ্ভাবনী জয়োল্লাসে স্মার্ট বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে যশোরে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী...

কুয়েতে প্রতারণার শিকার শতাধিক বাংলাদেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুয়েতে শতাধিক বাংলাদেশি প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আকামা পরিবর্তনসহ...

চাঁদাবাজির অভিযোগে হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে এক হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন...