বিচ্ছেদের গুজবে প্রিয়াংকা লিখলেন তোমার বাহুডোরেই আমি মরতে চাই!

নিক-প্রিয়াঙ্কা

 

বিনোদন ডেস্ক : প্রিয়াঙ্কা নিজের নামের পাশ থেকে নিকের পদবি সরিয়ে দিতেই এত কাণ্ড ঘটে যাবে ভাবতেই পারেনি প্রিয়াংকা চোপড়া। যদি বুঝতেন তাহলে হয়তো নিজের নামের পাশ থেকে জোনাস শব্দটা সরাতেনই না।

ইনস্টাগ্রামে শুধু পদবি বদলেছিলেন। তাতেই চিন্তায় পড়েন ভক্তরা। গুঞ্জন উঠে তাহলে কী তিন বছরের মধ্যেই ঘর ভাঙছে নিক-প্রিয়াঙ্কার?

ফেসবুক ও টুইটারের বায়োতে প্রিয়াঙ্কা জোনাস পদবি মুছে দিয়ে দেওয়ার পরই এ গুঞ্জন শুরু হয়।

সোমবার রাতে হঠাৎ রটে গিয়েছিল, প্রিয়াংকার নাকি ঘর ভাঙছে! জীবনসঙ্গী নিক জোনাসকে ডিভোর্স দিতে চলেছেন, এমন গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়তে সময় লাগেনি।

আগ বাড়িয়ে অনেকে এটাও বলছিলেন, দীর্ঘদিন ধরে অশান্তির জন্যই নাকি প্রিয়াংকা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন!

ঘটনার সূত্রপাত প্রিয়াংকার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল। সেখানে আগে তাঁর নামের পদবী লেখা ছিল ‘প্রিয়াংকা জোনাস’। সম্প্রতি ‘জোনাস’ সরিয়ে ফিরেছেন আগের পদবি ‘চোপড়া’য়। আর তাতেই এত কাণ্ড!

ঘটনা গড়িয়েছে প্রিয়াংকার ঘর পর্যন্ত। বিচ্ছেদের খবর রটতেই অভিনেত্রীর মা মধু চোপড়া সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, এ খবর একেবারেই মিথ্যে। প্রিয়াংকা ও নিক সুখেই আছেন।

এবার প্রিয়াংকা নিজেই দিলেন সুখের সংসারের প্রমাণ। ইনস্টাগ্রামে নিক জোনাসকে লিখে পাঠালেন ভালবাসার বার্তা।

সম্প্রতি নিক জোনাস তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে শরীরচর্চার ভিডিও আপলোড করেছেন। সেই ভিডিওর কমেন্ট বক্সে প্রিয়াংকা লিখেছেন, ‘তোমার বাহুডোরেই আমি মরতে চাই!’

হয়তো কমেন্টটি প্রিয়াংকা ইচ্ছা করেই লিখেছেন এতসব গুঞ্জনের জবাব দিতে। যে উদ্দ্যেশেই হোক, এই কমেন্ট নিন্দুকদের মুখ একেবারে বন্ধ করে দিয়েছে, তাতে কোনো সন্দেহ নেই।

২০১৮ সালের ডিসেম্বরে নিক জোনাসকে বিয়ে করেন প্রিয়াংকা চোপড়া। তিনি এখন ব্যস্ত আছেন ‘দ্য ম্যাট্রিক্স রেজারেকশন’ ছবির প্রচারে। আগামী ২২ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে ছবিটি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে