Wednesday, July 6, 2022

বিয়েতে নারীদের সম্মতির অধিকার দিল তালেবান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নতুন এক ডিক্রিতে মেয়েরা কারও সম্পত্তি নয় বলে মন্তব্য করেছে আফগানিস্তানের তালেবান সরকার। পাশাপাশি বিয়েতে মেয়েদের সম্মতি লাগবে বলেও ঘোষণা দিয়েছে তারা।
শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) জারি করা এক ডিক্রিতে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

বিয়েতে নারীর সম্মতির অধিকার দিলেও শিক্ষা বা বাড়ির বাইরে কাজ করার নিষেধাজ্ঞা সম্পর্কে কিছুই জানানো হয়নি।

১৫ আগস্ট কট্টর ইসলামপন্থি এই গ্রুপ দেশটির ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে নারী অধিকারবিরোধী অবস্থান নেওয়ায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের চাপের মধ্যে রয়েছে। বন্ধ করে দিয়েছে সাহায্য তহবিল।

পরিপত্র জারির সময় তালেবান মুখপাত্র জাবিহিল্লাহ মুহাজিদ বলেন, ‘একজন নারী কোনো সম্পত্তি নয়, একজন মহৎ এবং স্বাধীন মানুষ; কেউ তাকে শান্তির বিনিময়ে…বা শত্রুতা শেষ করার জন্য বিনিময় করতে পারে না।’

এতে নারীদের জন্য বিয়ে এবং সম্পত্তির অধিকারের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। বলা হচ্ছে, মেয়েদের বিয়েতে বাধ্য করা উচিত নয় এবং বিধবাদের স্বামীর সম্পত্তির অংশ দিতে হবে।

সিদ্ধান্ত গ্রহণের সময় এ বিষয়গুলো মাথায় রাখার জন্য আদালতের প্রতিও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। ধর্ম বিষয়ক ও তথ্য মন্ত্রণালয় এই অধিকারগুলো সম্পর্কে প্রচারণা চালাবে বলেও জানানো হয়েছে।

তবে এই পরিপত্রে নারীদের শিক্ষার, ঘরে ও বাইরে কাজ করার অধিকার বা অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্তি বিষয়ে কিছু বলে নি, যা আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রধান উদ্বেগের বিষয়।

তালেবানরা ১৯৯৬ থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত আগের শাসনামলে নারীদের কোনো পুরুষ আত্মীয়ের সঙ্গ ছাড়া এবং পুরো মুখ ও মাথা না ঢেকে ঘর থেকে বের হওয়া এবং মেয়েদের শিক্ষা গ্রহণ নিষিদ্ধ করেছিল।

এবার ক্ষমতা দখলের পর তালেবানরা বলছে যে, তারা বদলে গেছে কিছু কিছু প্রদেশে মেয়েদের জন্য উচ্চ বিদ্যালয় খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু অসংখ্য নারী এবং অধিকারকর্মীরা এখনও তাদের সন্দেহের চোখেই দেখছে।

আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়গুলো কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তহবিল এবং উন্নয়ন ব্যয়ে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার হিমায়িত করেছে। এগুলো পুনরায় চালু করার জন্য অর্থাৎ আফগানিস্তানের সঙ্গে ভবিষ্যতে যেকোন কর্মকা-ের ক্ষেত্রে নারী অধিকার রক্ষাকে প্রধান শর্ত হিসেবে উল্লেখ করেছে তারা। এসব নিষেধাজ্ঞার কারণে নগদ প্রবাহ শুকিয়ে যাওয়ায় ব্যাংকিং তারল্য সংকটে ভুগছে আফগানিস্তান। তালেবান ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে অর্থনৈতিক পতনের ঝুঁকির সম্মুখীন তারা। অনেক প্রদেশেই তুমুল খাদ্যসংকটে ভুগছে দেশটির নাগরিকরা। অনেকের সন্দেহ অর্থনৈতিক পতনের ঝুঁকি সামলাতেই বিয়েতে মেয়েদের সম্মতির অধিকার দিল তালেবানরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

পিঠে ছুরিবিদ্ধ খোকন নিজেই গাড়ি ভাড়া করে আসেন যশোর হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পিঠে বিদ্ধ হওয়া ছুরি নিয়ে নিজেই যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন...

নায়কদের নামে কোরবানির গরু, আপত্তি জানালেন ওমর সানি

কল্যাণ ডেস্ক : আগামী ১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলিম সম্প্রদায় এই ঈদে পশু কোরবানির...

এশিয়ার বাইরের উইকেটের যে কারণে অসহায় মোস্তাফিজ

ক্রীড়া ডেস্ক : মোস্তাফিজুর রহমানের বোলিং দেখে ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেকে তাকে বলতেন, 'জোর বল করা...

নতুন ২৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত

কল্যাণ ডেস্ক : শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উভয় বিভাগের আওতায় আরও ২ হাজার ৭১৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার...

নওয়াপাড়া বন্দরে অবৈধ তালিকায় ৬০ ঘাট

অবৈধভাবে গড়ে উঠা ঘাটের কারণে কমছে নদীর নাব্যতা ৫ বছরে অর্ধশত জাহাজ ডুবিতে ক্ষতিগ্রস্ত...

মণিরামপুরে জমজমাট কোরবানির পশু হাট

আব্দুল্লাহ সোহান, মণিরামপুর : দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম হাট মণিরামপুরের গরু-ছাগলের হাট। প্রতি শনি ও মঙ্গলবার এখানে...