Wednesday, May 25, 2022

বুনোপাড়া : আলোর নিচে অন্ধকার এক পল্লী

জেমস রহিম রানা
গত কয়েক বছরে বদলে গেছে যশোর শহর। সরকারি নানা প্রকল্পে এখন নির্মাণাধীন বড় বড় রাস্তা। হয়েছে আইটি পার্ক, মেডিকেল কলেজ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু শহর লাগোয়া এক প্রান্তিক পল্লীতে উন্নয়নের তেমন প্রভাব পড়েনি। আজও ‘বুনো পাড়া’ নামে পরিচিত এই পল্লী। এখানকার অধিবাসিদের জীবনমান এখনো পড়ে রয়েছে তলানিতেই।

‘আমরা তো গরীব মানুষ। সরকার, চেয়ারম্যান আমাগে কথা ভাবে না। তোমাগে কোয়ে কি অবে। ঠিক মতো ভাতই জোটে না। ছাওয়াল, মাইয়েরা ইসকুলি যাবে কী কইরে?’

সরেজমিন যশোর সদর উপজেলার ধর্মতলার বুনোপাড়া আদিবাসি পল্লী কর্মকারপাড়ায় গেলে বেশ আক্ষেপ করে এমন কথা শুনিয়ে দিলেন পঁয়তাল্লিশোর্ধ দিনমজুর সৌরভ কর্মকার।

তার জীর্ণ টিনের ঘরের অপ্রশস্ত বারান্দায় বসে অভিযোগের প্রমাণও মিললো। পল্লীটিতে প্রায় ৪০টি আদিবাসী পরিবারের দুই শতাধিক মানুষের বাস। যাদের আবার একটি বড় অংশ শিশু। কিন্তু শিশুদের অধিকাংশ শিক্ষা থেকে ঝরে পড়া। তাদেরই একদল ছোটাছুটি করছে বৃষ্টির পানিতে প্লাবিত সামনের ফাঁকা জায়গায়।
এই পল্লীর বাসিন্দা পাঁচ সন্তানের জননী বেবি কর্মকার জানালেন, তার স্বামী পূর্ণ চন্দ্র কর্মকার রিকশা চালান। তবে বয়স হয়ে গেছে, তাই বেশি আয় করতে পারেন না। ছেলেরা দিনমজুরের কাজ করেন। তবে প্রতিদিন কাজ মেলে না। সংসারে তার রাক্ষুসে অভাব। এ কারণে ছেলেমেয়েদের তিনি লেখাপড়া শেখাতে পারেননি।
পল্লীটির মাতব্বর বিষ্ণু কর্মকার জানান, কয়েক পুরুষ ধরে তারা এখানে বসবাস করছেন। যাদের প্রায় সবাই পেশায় দিনমজুর। রেলওয়ের ৪৪ শতক জমির ওপর তারা দীর্ঘদিন যাবত থাকলেও সম্প্রতি সেই জমির বেশ কিছু অংশ কতিপয় প্রভাবশালী দখল করে নিয়েছে। অর্থাভাবে ছেলেমেয়েরা স্কুলে যেতে পারে না। এখনো পর্যন্ত কোন শিক্ষার্থী এসএসসি পাশ করেনি। তার আগেই ঝরে গেছে। সরকারের বিভিন্ন সামাজিক সুরক্ষা থেকেও বঞ্চিত তারা।

তবে দারিদ্র্যের সাথে যুদ্ধ করা কেউ কেউ অবশ্য সন্তানদের নিয়ে স্বপ্নও দেখছেন। তাদেরই একজন গৃহবধূ মনিমালা কর্মকার। তিনি বললেন, ‘আমার স্বামী মোটরগ্যারেজে কাজ করেন। তার একমাত্র আয়ে চলে চার সন্তান, মা-বাবাসহ আট সদস্যের সংসার। তারপরও দুইজনকে স্কুলে পাঠিয়েছি। যত কষ্ট হোক তাদের লেখাপড়া শেখাবোই’।

সীমান্ত কর্মকার নামে দশম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী জানালো, তিন থেকে চার কিলোমিটার দূরবর্তী বালিয়া ভেকুটিয়া স্কুলে তারা হেঁটে যায়। সবাই স্কুলে ভর্তি হয়। কিন্তু একটু বড় হলে আর যায় না। দরিদ্রতাই এর মূল কারণ বলে মনে করে সে।

ঠিক উঠান নয়, ‘গলিপথ’ ধরে কর্মকার পল্লীটি ঘুরে দেখা গেলো, কোন ঘরই সম্পূর্ণ পাকা নয়। নেই স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন ব্যবস্থাও। তারমধ্যে গত তিনদিনের অকাল বৃষ্টি তাদের জন্য অভিশাপ হয়ে দেখা দিয়েছে। পানি কাঁদা ডিঙিয়ে হাঁটতে হাঁটতে সৌরভ কর্মকার নামে একব্যক্তি জানালেন, বর্ষা মৌসুমে অধিকাংশ ঘরের মধ্যে পানি জমে যায়। স্যাঁতস্যাঁতে দুর্গন্ধময় সেই পানির মধ্যে বসবাস করার কারণে অনেকে চর্মরোগে আক্রান্ত হয়।
ঘুরতে ঘুরতে পাওয়া গেলো ৯০ ছুঁই ছুঁই সারথী কর্মকারকে। কেমন আছেন জানতে চাইলে ফুকলা দাঁতে এক গাল হেসে বললেন, ‘যুদ্ধ দেহিছি। একনো মরিনি’। স্থানীয়রা জানালেন, এই বয়সে এসে তিনি বয়স্ক ভাতা পেয়েছেন।

যশোর সদর উপজেলার আরবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহারুল ইসলাম বলেন, আমি চেয়ারম্যানের দায়িত্ব নেয়ার পর ব্যক্তিগত তহবিল থেকে আদিবাসী এই পরিবারগুলোকে পূজা-পার্বণে চাল, ডাল, শাড়ি, লুঙ্গিসহ সাধ্যমতো সাহায্য সহযোগিতা করেছি। এছাড়া বিভিন্ন উৎসবের সময় সহযোগিতা করার চেষ্টা করেছি। তাদের দাবি অনুযায়ী একটি ডিপটিউবয়েলও দিয়েছি। কয়েকজনকে বয়স্ক ভাতা দেওয়া হয়েছে সকল প্রতিবন্ধীর ভাতা পাওয়ার ব্যবস্থা করেছি।

তিনি বলেন, তাদের বসবাসের জায়গাটি অন্য লোকের এবং রেলওয়ের জায়গা। এছাড়া প্রধান সড়ক সংলগ্ন সড়ক ও জনপথের জায়গা লিজ নিয়ে একটি মহল মার্কেট তৈরি করায় সেখানকার উন্নয়ন কিছুটা বাধাগ্রস্ত হয়েছে। তবে তাদের বসবাসের জন্য সরকারের কাছে ইতোমধ্যে তালিকা পাঠিয়েছি। উপযুক্ত খাস জমি পাওয়া গেলে তাদেরকে সরকার প্রতিশ্রুত জমিসহ ঘর করে দেয়ার প্রক্রিয়া চলছে।
ছেলে মেয়েদের শিক্ষার বিষয়ে তিনি বলেন, তাদের জন্য স্কুলে যাতায়াতের সকল বাঁধা উন্মুক্ত করে দেয়াসহ যাতায়াতের জন্য মেধার ভিত্তিতে অনেককে বাইসাকেল কিনে দেয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে আমি তাদের সার্বিক জীবনমান উন্নয়নের চেষ্টা করছি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

চুকনগর গণহত্যা জেনোসাইড হিসাবে জাতিসংঘের স্বীকৃতি চাই

কাজী বর্ণ উত্তম: চলুন ফিরে যাই সেই ১৯৭১ সালে। চারিদিকে অন্ধকার অনিশ্চয়তা, নিজের বসত...

যশোরে দিবালোকে ব্যবসায়ীর আড়াই লক্ষাধিক টাকা ছিনতাই

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোর শহরের মুজিব সড়কে দুই নম্বর আইনজীবী ভবনের সামনে গতকাল দুপুর পৌনে...

মিথিলার প্রেমে পড়ার ‘গুঞ্জন’!

বিনোদন ডেস্ক: গায়ক ও অভিনেতা তাহসান খানের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর একসঙ্গে কাজ করতে...

খুলনায় ধর্ষণ মামলা আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

খুলনা ব্যুরো: খুলনার বটিয়াঘাটায় নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার বাবুল আলীকে ২ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে...

যুদ্ধাপরাধী আমজাজ হোসেন মোল্লার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন তদন্ত কর্মকর্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক: আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে আইসিটি বিডি কেস নং - ১০/২০১৮ সংক্রান্তে যশোর জেলার...

যশোরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় ভারতীয় কিশোরসহ নিহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভারত থেকে যশোরের কেশবপুরে মামা বাড়িতে বেড়াতে আসার সময় ট্রাক চাপায় এক...