বৃদ্ধের জীবন সাহাহ্নে মানবতা বড্ড অসহায়!

Jashore old man pic 01

কল্যাণ রিপোর্ট

এক বৃদ্ধের জীবন সাহাহ্নে মানবতা যেন বড্ড অসহায়। পাঁচদিন ধরে সড়কের পাশে ফুটপাতে পড়ে আছে অজ্ঞাত পরিচয় অসুস্থ এই বৃদ্ধ (৭০)। সম্ভবত রাতের আঁধারে ফুটপাতে তাকে ফেলে রেখে গেছে স্বজনেরা। ‘মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা করা’ এই বৃদ্ধের সদগতি করতে স্থানীয়রা ফোন দিয়েছিলেন ৯৯৯ নম্বরে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ‘আইনগত পদক্ষেপ নেয়ার সুযোগ নেই’ দাবি করে বৃদ্ধকে সেখানেই ফেলে রেখে চলে গেছে। যশোর শহরের রেলগেট এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে।

যশোর শহরের রেলস্টেশনের পাশে রেলগেট ট্যাক্সি স্ট্যান্ডের প্রাইভেটকার চালক রবিউল ইসলাম জানান, রেলস্টেশন সংলগ্ন এই সড়কে সারাদিনই তারা অবস্থান করেন। পাঁচদিন আগে সকাল বেলায় এসে দেখেন, সড়কের পাশে ফুটপাতে এক বৃদ্ধকে শুইয়ে রাখা হয়েছে। তারা কথা বলতে চেষ্টা করলেও বৃদ্ধ কিছুই বলতে পারছেন না। তারা সামান্য খাবার কিনে দিলে কোনোভাবে খেতে পারেন। বৃদ্ধের নাম ঠিকানাও জানা যায়নি। শরীরে পচন ধরেছে। মল-মূত্র ত্যাগ করে গায়ে মাখিয়ে ফেলেছেন। চারপাশে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে।
এই অবস্থায় বৃদ্ধকে বাঁচাতে রোববার দুপুরে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করেন আরেক প্রাইভেটকার চালক সাজু হোসেন। এরপর ঘটনাস্থলে যান যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম। কিন্তু তিনি সেখানে গিয়ে আশপাশে থাকা লোকজনদের বলে আসেন, এখানে পুলিশের কিছু করার নেই।
৯৯৯ এ ফোন দেয়া সাজু হোসেন জানান, নাম পরিচয়হীন বৃদ্ধটিকে কেউ এখানে ফেলে রেখে গেছে। এই অমানবিক অবস্থা দেখে তিনি ৯৯৯ এ ফোন করেছিলেন। কিন্তু পুলিশ এসেও কিছুই করলো না। বৃদ্ধটি এখানে মারা গেলে হয়তো পুলিশ লাশ উদ্ধার করবে।

এ প্রসঙ্গে যশোর কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রফিকুল ইসলাম বলেন, বৃদ্ধটি জীর্ণশীর্ণ অবস্থায় ফুটপাতে পড়ে আছে। কিন্তু তার কোনো ঠিকানা জানা যায়নি। আবার হাসপাতালে এনে ভর্তি করবো, কেউ দায়িত্ব নিতে চায় না। এখানে ‘আইনগত কোনো পদক্ষেপ নেয়ার সুযোগ নেই’ দাবি করে তিনি বলেন, এ জন্যই বৃদ্ধকে সেখানেই রেখে চলে আসতে হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে