Wednesday, July 6, 2022

বোরো চাষের নিশ্চয়তা পেলো ২৭ বিলের কৃষক

রাবেয়া ইকবাল, কেশবপুর
বিল খুকশিয়ার ৮ ব্যান্ডের কপাট উন্মুক্তর মধ্য দিয়ে জলাবদ্ধ ২৭ বিলের কৃষকরা চলতি বোরো মৌসুমে চাষের নিশ্চয়তা পেয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় বিলের ৬৮ গ্রামের কৃষকদের উপস্থিতিতে প্রধান অতিথি হিসেবে সাবেক চেয়ারম্যান এস এম মনজুর রহমান ৮ ব্যান্ডের কপাট উন্মুক্ত করে দিয়ে ২৭ বিলের কেশবপুর-মনিরামপুরের কৃষকদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন বাস্তবায়ন করেছেন।

৮ ব্যান্ডে উপস্থিত কৃষকদের মধ্যে শফিকুল ইসলাম, আব্দুল হালিম, আব্দুল জলিল ও শাহাদাৎ হোসেন বলেন, জলাবন্ধতার কারণে কয়েক বছর ধরে ২৭ বিলে ধান চাষ করা সম্ভব হয়নি। ফলে এই অঞ্চলের কৃষকরা চরম দুর্বিসহ জীবন যাপন করে আসছিল। গত বছর সুফলাকাটি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এসএম মনজুর রহমানের সার্বিক প্রচেষ্টার ফলে সেচ ব্যবস্থার মাধ্যমে ২৭ বিলের দুই তৃতীয়াংশ জমিতে ধান চাষ করা সম্ভব হয়েছিল। কিন্তু চলতি বছর ২৭ বিলের অধিকাংশ কৃষকদের মতামত বা ইচ্ছার বিরুদ্ধে ব্যক্তিস্বার্থ হাচিলে ডায়ের খালে ক্রস বাঁধ দিয়ে আগুরী প্রথা চালু করা হয়। ২৭ বিলের কৃষকদের আশ্বস্ত করা হয়েছিল মাত্র দুই সপ্তাহের মধ্যে বাড়ি ঘরের পানি সরিয়ে দেয়া হবে। কিন্তু কথার সাথে কাজের কোন মিল পায়নি ২৭ বিলের কৃষকরা। তাই ২৭ বিলের কৃষকদের মাঝে পুনরায় হতাশা দেখা দেয়। ক্ষোভে ফেটে পড়ে এই এলাকার কৃষকরা। অবশেষে ২৭ বিলের জলাবদ্ধতা নিরাসন ও আগামীতে এই বিলের জমি ধান চাষে উপযোগী করে তুলতে করণীয় পদ্ধতি ঠিক করতে সাবেক চেয়ারম্যান এসএম মনজুর রহমান ছুটে যান ২৭ বিলের পানি নিষ্কাশনের মুল কেন্দ্র ডায়ের খালের এইট ব্যান্ড, ক্রস বাঁধ ও হরিহর নদের পাড়ে। এই পাড়ে দাঁড়িয়ে তিনি ২৭ বিলের কৃষকদেরকে চলতি ইরি বোরো মৌসুমে ধান চাষের আশার বানি শুনান। এরপর তিনি নিজস্ব অর্থয়নে একদিকে শ্রমিক দিয়ে রাতদিন ২৪ ঘন্টা অক্লান্ত পরিশ্রম করে পলিতে ভরাট হয়ে যাওয়া এইট ব্যান্ডের ৮টির মধ্যে ৭টি কপাটের ভিতরে-বাইরের পলি অপসারণ ও সংষ্কার, অন্যদিকে ড্রেজার ম্যাশিন দিয়ে ৮ ব্যান্ডের সামনে থেকে ডায়ের খালের ক্রসবাঁধ পর্যন্ত প্রায় ৩০০ হাত ভরাট হয়ে যাওয়া পলি অপসারণের কাজ দ্রুত শেষ করে শনিবার সন্ধায় ২৭ বিলের কৃষকদের উপস্থিতিতে কপাট উন্মুক্ত করে কৃষকদের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ করেন। কপাট তুলে দেয়ার পর দ্রুত গতি দেখে উপস্থিত ২৭ বিলের কৃষকরা আনন্দ মেতে ওঠে।

২৭ বিল স্বেচ প্রকল্প কমিটির কোষাধ্যক্ষ সাবেক চেয়ারম্যান এসএম মনজুর রহমান বলেন, অতিবৃষ্টি ও অপরিকল্পিত ডায়ের খালের ক্রস বাঁধ, আঙ্গুরী প্রথা চালু ও বিল খুকশিয়ার এইট ব্যান্ডের দায়িত্বপ্রাপ্তদের গাফিলাতির ফলে প্রায় দু’ মাস ধরে পানিবন্দি হয়ে পড়েছিল ২৭ বিলের কেশবপুর ও মনিরামপুর উপজেলার ৬৮ গ্রামের মানুষ। বসতবাড়ি ও রাস্তার পানি সামান্য কমলেও চলতি মৌসুমে এই বিলে ধান চাষ নিয়ে অনিশ্চয়তার মুখে পড়ে সাধারণ কৃষকরা। ২৭ বিলের পানি নিষ্কাশনের একমাত্র উপায় হল বিল খুকশিয়ার ৮ ব্যান্ড। তাই ২৭ বিলের কৃষকদের ভাগ্য উন্নয়নে গত এক সপ্তাহ ধরে দিন রাত কাজ চলানো হয়েছে এই গেটে। গেটের সামনে ও হরিহর নদীতে পলি অপসারণে চলমান রয়েছে স্কেভেটর মেশিন। এইট ব্যান্ডের ৮টির মধ্যে ৭টি কপাট সংস্থার করা শেষ হয়েছে। শনিবার উপস্থিত ২৭ বিলের কৃষকদের নিয়ে একটি কপাট উন্মুক্ত করা হয়েছে। রোববার বকি কপাটগুলে উন্মুক্ত করা হবে। পানির যে দ্রুত, আশা করি আগামী এক সপ্তার মধ্যে ২৭ বিলের কৃষকরা তাদের উচু জমিতে বীজ ধান ফেলাতে পারবে এবং যথা সময়ে ২৭ বিলের কৃষকরা তাদের জমিতে সোনালী ধান চাষ করতে পারবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

৩ সেপ্টেম্বর প্রেসক্লাব যশোরের বিশেষ সাধারণ সভা

প্রেসক্লাব যশোরের গঠনতন্ত্র পরিবর্ধনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে মঙ্গলবার ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির দিনব্যাপী...

কেন্দ্রীয় ত্রাণ তহবিলে ২০ লাখ টাকা অনুদান দিল যশোর বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক উত্তরবঙ্গে বন্যার্তদের জন্য বিএনপির কেন্দ্রীয় ত্রাণ তহবিলে ২০ লাখ টাকা অনুদান দিল যশোর...

যশোরে কলেজছাত্রীর আত্মহত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক মঙ্গলবার যশোরে গলায় ফাঁস দিয়ে কামরুন্নাহার কেয়া (১৮) নামে এক শিক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছেন।...

পর্যবেক্ষণে অসুস্থ বিএনপি নেতা নূর-উন-নবী

নিজস্ব প্রতিবেদক যশোর সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি নূর-উন-নবী (৬৬) ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে ঢাকার একটি...

জাতীয় স্কুল ফুটবলের শিরোপা যশোরে নিয়ে আসতে চায় পলাশ বাহিনী

নিজস্ব প্রতিবেদক প্রথমবার অংশ নিয়েই জাতীয় স্কুল ফুটবল প্রতিযোগিতার ফাইনাল যায়গা করে নিয়েছে বেনাপোল মাধ্যমিক...

যশোর বক্সিং টুর্নামেন্টে শ্রেষ্ঠ মঈন স্মৃতি সংসদ

নিজস্ব প্রতিবেদকপাঁচটি স্বর্ণ ও দু’টি সিলভার নিয়ে যশোর জেলা বক্সিং টুর্নামেন্টের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে...