Thursday, July 7, 2022

মারাত্মক স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে দক্ষিণ ও পশ্চিমের ১৭ নদীর পানি

নিজস্ব প্রতিবেদক: দক্ষিণ ও পশ্চিম অঞ্চলের ১৭ নদীর পানি দূষিত হওয়ার কারণে মাত্রাতারিক্ত ভারি ধাতু মানবদেহে প্রবেশ করায় এ অঞ্চলের মানুষ মারাত্মক স্বাস্থ্যঝুঁকিতে রয়েছে। দূষণের বিরুদ্ধে প্রয়োগহীন আইনী ব্যবস্থা নিঃশেষ করেছে এ নদীগুলো। ফলশ্রুতিতে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হয়েছে। দূষিত নদীর পানি পান করে গবাদি পশুর মৃত্যুও হচ্ছে।

কোরিয়া ভিত্তিক জার্ণাল ‘হিলন’ এ প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে নদীগুলোর ৪০ বছরের দূষণচিত্র তুলে ধরা হয়েছে। জাতীয় নদী রক্ষা কমিশনের সচিব মঞ্জুরুল কাদের গত মাসে খুলনা জেলা প্রশাসককে এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দিয়েছেন।

গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যশোরের ভৈরব, ঝিনাইদহের কুমার, খুলনার রূপসা, ময়ূর, বিলডাকাতিয়া, পশুর, শরিয়তপুরের পদ্মা, কুষ্টিয়ার মাথাভাঙ্গা, গড়াই, মধুমতি, সাতক্ষীরার কাকশিয়ালি, বরিশালের কীর্তণখোলা, সুগন্ধা, লোহালিয়া, তেতুলিয়া নদী দূষণের ভয়াবহতা ফুটে উঠেছে। নদীগুলোকে ঘিরে গড়ে উঠেছে শিল্প কলকারখানা। অপরিকল্পিত নগরায়ন ও অনিয়ন্ত্রিত শিল্প কারখানাগুলোই নদী মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অধিকাংশ শিল্প কারখানার রাসায়নিক ও ক্ষতিকর পদার্থ মিশ্রিত অপরিশোধিত দূষিত বর্জ্য সরাসরি নদীতে ফেলায় নদীর পানি মারাত্মক দূষণ হচ্ছে। নদীগুলোতে অতিরিক্ত রাসায়নিক সার, কীটনাশক, তেল, গ্রীজ, পয়ঃবর্জ্য, গৃহস্থলী বর্জ্য ও প্লাস্টিক বর্জ্য দ্বারা বিষাক্ত হচ্ছে।

প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, নদীতে শিল্প দূষণে জলজ প্রাণি ও উদ্ভিদের জন্য ব্যবহার অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। ক্ষেত্র বিশেষ নদীর পানি আলকাতরা সদৃশ্য আবার কোথাওর পানি রংধনূর মত। এ অঞ্চলের জনগণ সুপেয় পানির সংকটে ভুগছে। হারিয়ে যাচ্ছে জলজপ্রাণি, মৎস্য ও জীববৈচিত্র।

বাংলাদেশ ইনভায়রণমেন্টাল ল ইয়ার্স এ্যাসোসিয়েশন বেলা’র পক্ষ থেকে আইনজীবী এস হাসানুল বান্না জেলা প্রশাসকের কাছে পাঠানো প্রতিবেদনে বলেছেন, দূষণ ও দখলমুক্ত করার জন্য আদালতের রায় অনুযায়ি অবিলম্বে পদক্ষেপ নেয়া জরুরি। এতে নদী সুরক্ষা, সংরক্ষণ, উন্নয়ন ও শ্রীবৃদ্ধি হবে। নৌযান চলাচল সহজ হবে। পরিবেশ দূষণ ও দখলকারীদের তালিকা তৈরি করে আইনী ব্যবস্থা নেয়া ও ক্ষতিপূরণ আদায়ের ব্যবস্থা করতে হবে।

খুলনার জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেন, নদী কমিশনের প্রতিবেদন পাওয়ার পর নদী দূষণকারী প্রতিষ্ঠান এবং দখলকারী ব্যক্তিদের তালিকা নদী কমিশনে পাঠানো হয়েছে। নির্দেশনা পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। পরিস্থিতি প্রতিনিয়ত পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

ঈদের আগে আনন্দধারায় শিক্ষক-কর্মচারীরা

এমপিওভুক্ত যশোরের ৬০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিজস্ব প্রতিবেদক :  সরকার ২ হাজার ৫১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে নতুন করে এমপিওভুক্ত ঘোষণা...

নতুন রোটারী বর্ষ উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক :  রোটারী ডিস্ট্রিক-৩২৮১-এর রোটারী বর্ষের সূচনা উপলক্ষে বুধবার বিকেলে যশোর শহরের বর্ণাঢ্য র‌্যালি...

যশোর বাস মালিক সমিতির নির্বাচন : মনোনয়নপত্র কিনেই ভোটযুদ্ধে প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : মনোনয়নপত্র কিনেই ভোটযুদ্ধে নেমে পড়েছেন যশোর বাস মালিক সমিতির নির্বাচনের প্রার্থীরা। শুরু...

যশোরে বিভিন্ন সহিংসতার ঘটনায় ১৫ জন আসামি

নিজস্ব প্রতিবেদক যশোর সদর উপজেলার চার এলাকায় সহিংসতার ঘটনায় কোতয়ালি থানায় আলাদা চারটি মামলা করা...

সহসা কমছে না লোডশেডিং

ঢাকা অফিস গ্যাস সংকট চলছে তাই বিদ্যুৎ উৎপাদনে বিঘœ ঘটাছে। দেশজুড়ে চলছে লোডশেডিং চলছে। কবে...

অপতৎপরতা রুখতে একসাথে কাজ করতে হবে : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

মণিরামপুর প্রতিনিধি :  পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এমপি বলেছেন, শেখ হাসিনা...