শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২২

মোংলায় করোনার নতুন ভেরিয়েন্ট নিয়ে মানুষের মাঝে উদ্বেগ

বায়জিদ হোসেন, মোংলাঃ মোংলা বন্দরে পণ্য বোঝাই ভারতগামী নৌযানের নাবিক ও অন্যান্য জেলা থেকে আসা মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় করোনা নিয়ে সাধারণ মানুষের উদ্বেগ বাড়ছে । স্বাস্থ্যবিধি না মানায় দিনদিন করোনা শনাক্তের হারও বাড়তে শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগ। তবে বন্দর ও শহরের আশপাশ এলাকায় হরহামেশা চলাচল বন্ধ করতে না পারলে করোনা ভাইরাসে মহামারী আকার ধারণ করার সম্ভাবনা বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে এখানকার সচেতন মহল।

ইতি মধ্যে করোনায় নতুন করে আজ সাংবাদিক, পি আই ও অফিসের কর্মকর্তাসহ আক্রান্ত হয়েছে ৬জন। এছাড়া গতকাল বন্দরের ৫ কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছেন। বন্দর সুত্র জানায়, টানা তিন দিন বৃষ্টি শেষ হতে না হতেই দক্ষিণাঞ্চলে জেঁকে বসেছে প্রচন্ড শীত, অন্যদিকে নতুন করে বেড়ে গেছে করোনা শনাক্তের হার।

গত ২৪ ঘন্টার পরিক্ষায় আক্রান্তের হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০ শতাংশ। এদিকে ভারত থেকে পণ্য নিয়ে আসা লাইটার, কার্গো ও কোস্টার জাহাজগুলো ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাওয়ার জন্য একমাত্র রুট হলো মোংলা বন্দর হয়ে বঙ্গবন্ধ ঘষিয়াখালী ক্যানেল। পন্য নিয়ে আসা এ সকল নৌযানের যাত্রী বা নাবিকরা চ্যানেলে নঙ্গর করে নিত্য প্রয়োজনীয় বাজারসহ অন্যান্য কাজের অজুহাতে কিনারে উঠে চলাচল করাসহ মোংলা শহরের বিভিন্ন জায়গায় অবস্থান করে প্রায় ৪-৫ দিন।

এছাড়াও বন্দর বানিজ্যিক জাহাজের দেশী-বিদেশী নাবিক ও অন্য জেলা থেকে আসা লোকজনকে হরহামেশা গোরাফেরা ফিরাতে না পারলে মহামারী আকার ধারণ করতে পারে বন্দর সহ এ উপকুলীয় শহরে। এছাড়াও মোংলা ও এর আশপাশের উপকুলীয় এলাকার মানুষেরা স্বাস্থ্যবিধি না মানায় দিনদিন করোনা শনাক্তের হার বাড়ছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। তবে চলাচল করা এখানকার মানুষদের সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মানিয়ে রাখার জন্য প্রশাসনের এখনই পদক্ষেপ নেয়া উচিত বলে মনে করেন স্বাস্থ্য বিভাগ।

এদিকে, মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকা নিতে আসা ছাত্র ছাত্রীসহ মানুষের উপচে পড়া ভিড়। প্রতিদিনই এই ভিড় সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। তবে শুধু টিকা নেয়ার জন্য ভিড় জমালেও মাক্স বা সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে দেখা যায়নী অনেকের মধ্যে। মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ আঃ হামিদ বলেন, আমরা বন্দরসহ শিল্পাঞ্চল এলাকা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছি। বন্দর কর্তৃপক্ষের সচিবসহ ৫ কর্মকর্তা আক্রান্ত হয়েছে, তার মধ্যে ভাররপ্রাপ্ত সচিব ও হারবার মাস্টার কিছুটা সুস্থ হলেও বাকি ৪জন হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। অন্যদিকে, বন্দর ও শিল্পাঞ্চলে আমদানি-রপ্তানিকৃত পণ্যবাহী ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপারেরা অবাধে চলাফেরা করছে বন্দরের সর্বত্রই। যা করোনা সংক্রমণ ঝুঁকিকে আরো বাড়িয়ে দিচ্ছে বলে মনে করেন সচেতন মহল।

মোংলা উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. জিবেতোষ বিশ্বাস বলেন, আজ করোনার হার গতকালের চেয়ে অনেক বেশি। ২৬ জানুয়ারি করোনা পরীক্ষার নমুনা পরীক্ষা করেছে মাত্র আট জন যার মধ্যে করোনা সনাক্ত হয়েছে ছয় জনের। মোংলা উপজেলায় বসবাসকারীরা করোনার নমুনা পরিক্ষার জন্য আসতে চাচ্ছেনা। যার ফলে কি পরিমান রোক আক্রান্ত রয়েছে তা নির্নয় করা সম্ভব না। তার পরে যারাই নমুনা পরিক্ষার জন্য আসছে গত ৪৮ ঘন্টায় ৪৩ জনের মধ্যে ২৬ জন করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া গেছে।

তারা সকলেই হোমকোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশনে রয়েছে। তবে নমুনা পরিক্ষা পর্যপ্ত হলে করোনা রুগীদের চিহ্ণিত করে দ্রুত চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হতো । তার পরেও আমরা সকল কিছু প্রস্তুত করে রয়েছি, করোনা রোগীদের চিকিৎসায় সদা প্রস্তুত মোংলা স্ব্যাস্থ্য কমপ্লেক্স।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

প্রকাশ্যে শাকিব-বুবলীর সন্তান বীর

কল্যাণ ডেস্ক : ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খান ও শবনম বুবলীর ঘরে আড়াই বছরের...

বৈশ্বিক উদ্ভাবন সূচকে ১৪ ধাপ এগোল বাংলাদেশ

কল্যাণ ডেস্ক : বৈশ্বিক উদ্ভাবন সূচকে ১৪ ধাপ অগ্রগতি হয়েছে বাংলাদেশের। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার প্রকাশিত...

চলিশিয়ার ৬২ হতদরিদ্রের নাম বাদ দেয়ার অভিযোগ

অভয়নগর প্রতিনিধি : যশোরের অভয়নগর উপজেলায় চলিশিয়া ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডে খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির তালিকা থেকে...

কাল থেকে দুর্গোৎসব, প্রস্তুতি সম্পন্ন

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : সনাতন ধর্মালম্বীদের সবচে বড় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা শুরু হচ্ছে আগামীকাল থেকে।...

গরুর এলএসডি রোগ নিয়ে আতঙ্কে যশোরের খামারিরা

এ্যান্টনি অপু : বর্তমান সময়ে গরুর জন্য ভয়ংকর একটি রোগের নাম এলএসডি বা ল্যাম্পিস্কিন ডিজিজ।...

কেশবপুরের আলোচিত মডার্ণ হাসপাতালে চলতি বছরে পাঁচ প্রসূতির মৃত্যু

আব্দুল্লাহ আল ফুয়াদ, কেশবপুর : যশোরের কেশবপুরে যত্রতত্র গড়ে উঠেছে বেসরকারি হাসপাতাল। সাধারণ জনগণের সেবার...