Friday, August 19, 2022

মোংলায় ব্রিজের ফলক ভাঙচুর ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

মোংলা প্রতিনিধি: মোংলা উপজেলার সুন্দরবন ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড বাঁশতলা মোছাল্লীপাড়ায় নির্বাচনী প্রতিহিংসায় একটি নির্মাণাধীন ব্রিজের নামফলক ভেঙে ফেলার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ অভিযোগে ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা এ ঘটনা ঘটে। শনিবার সকালে পুলিশের আরো একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এ ব্যাপারে এ প্রকল্পে সভাপতি সংরক্ষিত ১,২,৩ নং নারী ইউপি সদস্য জোসনা বেগম বাদী হয়ে মোছাল্লীপাড়া এলাকার মৃত আমির আলী মোছাল্লীর ছেলে মিজান মোছাল্লী ও আফজাল মোছাল্লী, হুজ্জত মোছাল্লীর ছেলে সুমন মোছাল্লী, বারেক মোছাল্লীর ছেলে হাবিব মোছাল্লী, আফজাল মোছাল্লীর ছেলে রাজু মোছাল্লী ও বুড়বুড়িয়া এলাকার মমিন উদ্দিন শিকারির ছেলে কালাম শিকারীর বিরুদ্ধে এজাহার দাখিল করেন। এ ছাড়াও তাদের সঙ্গে আরও অজ্ঞাত নামা ৪/৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

থানায় এজাহার সূত্রে জানা যায়, সুন্দরবন ইউনিয়নের বাঁশতলা মোছাল্লীপাড়াসংলগ্ন একটি খালে ব্রিজ না থাকায় দীর্ঘদিন থেকে ওই এলাকার প্রায় ৮/১০ গ্রামের মানুষ চলাচলে বিঘিœত হচ্ছিল। খালটিতে ব্রিজ না থাকায় অনেক সময় সাঁতরে পার হতে হয় ওখানকার সাধারণ জনগণ ও স্কুলগামী কোমলমতি শিশু-কিশোরদের। এলাকার ২৫ হাজার লোকের চলাচলে সমস্যার কথা চিন্তা করে এর সমাধানে ইউনিয়ন উন্নয়ন সহায়তা তহবিল থেকে একটি প্রকল্প হাতে নেন বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান একরাম ইজারাদার। তাই বর্ষার আগেই দ্রুত এ ব্রিজটির কাজ শেষ করার জন্য তাগিদ দেন ইউপি চেয়ারম্যান।

গত ৩০ জুন এ ব্রিজটির কাজ শেষ হলে এটি উদ্বোধনের প্রস্তুতি গ্রহণ করে ওই ব্রিজের নামফলক স্থাপন করা হয়। কিন্তু এলাকার একটি চিহ্নিত গ্রুপ রয়েছে যারা প্রতিনিয়ত এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ত্রাস সৃষ্টি ও নিরীহ লোকজনের সঙ্গে মারামারি, ঘের দখল, ঘের লুট ও সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার উদ্দেশ্যে বাঁশতলা মোছাল্লীপাড়ায় সরকারি অর্থায়নে তৈরি ব্রিজের নামফলক প্লেট হাতুড়ি দিয়ে ভেঙে ফেলে এবং সব আসামিরা সরকারবিরোধী মন্তব্য করে গালাগালি ও চিৎকার চেচামেচি করতে থাকে বলে অভিযোগ ওঠে। এ সময় সুন্দরবন ইউপি চেয়ারম্যান একরাম ইজারাদারসহ দলীয় শীর্ষ রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে গালাগালি করে ওই সন্ত্রাসীরা বলে স্থানীয় অনেকে অভিযোগ করেন। খবর পেয়ে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এজাহারভুক্ত সাবেক ইউপি সদস্য আফজাল মোছাল্লী বলেন, এলাকায় উন্নয়নমূলক কাজ হোক এটা আমরা চাই এবং সব সময় এর সহায়তা করে আসছি। কিন্তু রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক একটি ঘটনা নিজেরা সাজিয়ে অহেতুক আমাদের হয়রানি করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মাদ মনিরুল ইসলাম বলেন, সুন্দরবন ইউনিয়নের বাঁশতলা মুছল্লীপাড়া এলাকায় একটি ব্রিজের নামফলক ভাঙচুরের খবর শুনে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। সন্ধ্যায় একটি এজাহার দাখিল হয়েছে। শনিবার (০২ জুলাই) সকালে পুলিশের আরও একটি দল তদন্তে পাঠানো হবে এবং দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

আজ যশোরের বিশিষ্ট রাজনীতিক এম রওশন আলীর মৃত্যুবার্ষিকী

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের কৃতি সন্তান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের রাজনৈতিক সহচর, সংবিধানের...

টিউমার অপরেশনের পর নাজমা এখন প্রতিবন্ধী

জিএম আল ফারুক, আশাশুনি : সাতক্ষীরার আশাশুনির সদর ইউনিয়নের শ্রীকলস গ্রামের ভ্যান ও সাইকেলের মিস্ত্রী...

তালায় এমপি রবির সাথে মতবিনিময় শিক্ষক নেতৃবৃন্দের

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরা-২ আসনের সংসদ সদস্য নৌ-কমান্ডো ০০০১ বীরমুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবির...

ঝিকরগাছায় ডাকাতিকালে নৈশ প্রহরী খুনে আটক নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের ঝিকরগাছায় ডাকাতিকালে নৈশপ্রহরী আব্দুস সামাদ হত্যার ঘটনায় এখনো কাউকে আটক করতে...

এদেশে সবচেয়ে বেশি মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছে জিয়াউর রহমান : শাহীন চাকলাদার

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার এমপি বলেছেন, সরকার ভিন্ন...

যশোরে স্কুলছাত্রী ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে বৃদ্ধ আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে কোতোয়ালি থানায় শাহ আলম (৬০) নামে এক...