Thursday, July 7, 2022

যশোরের ব্যাংকে ডলার নেই! 

নিজস্ব প্রতিবেদক: সারা দেশে ডলারের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিদিন উঠানামা করছে ডলারের দর। এতে সংকট তৈরি হয়েছে যশোরের ব্যাংকগুলোতে। বেশিরভাগ ব্যাংক ডলার দিচ্ছেনা। ডলার সংকটে এলসি খোলা বন্ধ করেছেন অনেক ব্যাংক। কিছু ব্যাংক ডলার বিক্রি করলেও গ্রাহককে কিনতে হচ্ছে ৯৫ থেকে ৯৭ টাকায়। তবে খোলা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকায়। এতে আমদানিকারকরা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম নয় মাসেই দেশের আমদানি ব্যয় ৬১ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে। শুধুমাত্র বেনাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি হয়েছে ১৫ লাখ ৬৭ হাজার ২৯৫ মেট্রিক টন পণ্য। রেকর্ড সৃষ্টি করা এ আমদানি ব্যয় চাপে ফেলেছে দেশের অর্থনীতিকে।

এতে সারা দেশে ডলারের বাজার অস্বাভাবিক হয়ে উঠেছে। বেনাপোল বন্দর দিয়ে যারা আমদানি করেন তারা ডলারের মূল্য বৃদ্ধিতে বেকায়দায় পড়েছেন। ১০ হাজার ডলার যারা এলসি করবেন তাদের দিতে হচ্ছে ৮৫ টাকা ৭৫ পয়সা, ২৫ হাজার থেকে বা বেশি ডলার এলসি করলে ৯৫ টাকা থেকে ৯৭ টাকা প্রতি ডলার পরিশোধ করতে হচ্ছে। আর যারা বেনাপোল দিয়ে ভারতে চিকিৎসার জন্য যাচ্ছেন তারা খোলা বাজার থেকে ডলার কিনছেন ১০৭-১১০ টাকায়।

যশোরের মোটরসাইকেল পার্টস আমদানিকারক রিপন অটোসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এজাজ উদ্দিন টিপু বলেন, ডলারের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধিতে আমরা এলসি করতে পারছিনা। একটি পণ্য চালান এলসি করতে পরিশোধ করতে হচ্ছে ৯৫-৯৭ টাকা। আবার এলসি করার পর ৮০ দিন সময় পাওয়া যায় টাকা পরিশোধের। দেখা যায়- টাকা পরিশোধের সময় ডলারের দাম আরও বেড়েছে। তখন সেই দামে টাকা দিতে গিয়ে লোকসানের শিকার হতে হবে। এতে ভোক্তা পর্যায়ে পণ্যের দামও বৃদ্ধি পাচ্ছে। ডলারের দাম লাগামছাড়া বাড়তে থাকলে আমাদের মতো আমদানিকারকদের জন্য তা হবে অশনি সংকেত।

ফারিয়া মোটরসের স্বত্ত্বাধিকারী রোজোয়ান আহমদ মুরাদ জানান, এলসি করার জন্য ব্যাংকে গেলেও ডলার মিলছেনা। আবার ডলার মিললেও বেশি দাম নিচ্ছে। শহরের বেজপাড়ার রবিউল আলম বলেন, আমার পরিবার চিকিৎসার জন্য ভারতে যাবো। এজন্য আমি অন্তত ১০টি ব্যাংকে গিয়েছি ডলার কেনার জন্য, কিন্তু কোথাও পায়নি। পরে খোলাবাজার থেকে কিনেছি ১১০ টাকা দরে।

ইউনাইটেড কমাশিংয়াল ব্যাংকের ভাইস প্রসিডেন্ট ও খুলনা রিজিওনাল প্রধান ফকির আক্তারুল আলম জানান, ডলারের মূল্য প্রতিদিন বাড়ছে। খোলা বাজারে বেশি দামে বিক্রি হচ্ছে। একারণে এলসির হার কমে গেছে। এতে আমদানিকারকদের পাশাপাশি ব্যাংকও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। সামনে পরিস্থিতি খারাপ হলে ডলারের দাম আরও বাড়বে।

ইসলামী ব্যাংক যশোর জোন প্রধান শফিউল আযম বলেন, সব জায়গায় ডলারের সংকট পড়েছে। এতে খাদ্যপণ্য বাদে অন্য আমদানিকারকরা বেশি দামে ডলার কিনেেছন। সাইথবাংলা এগ্রিকালচার এন্ড কমার্স ব্যাংক যশোরের শাখা ব্যবস্থাপক সৈয়দ আনিছুজ্জামান বলেন, ১০ হাজারের বেশি ডলারের এলসিতে ব্যাংকগুলো ৯৫ টাকা করে নিচ্ছে। ডলার সংকট থাকায় এই অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। রেমিটেন্স কমে যাবার কারণে ডলার সংকট বেশি হচ্ছে। যেকারণে অনেকে এলসি করা কমিয়ে দিয়েছেন। এখন যারা এলসি করবেন তাদের বেশি দামে ডলার ক্রয় করতে হবে।

ঢাকা ব্যাংক যশোরের শাখা ব্যবস্থাপক হুমায়ন কবির জানান, সব ব্যাংকে এখন ডলার সংকট যাচ্ছে। আগে প্রাবাসীরা রেমিটেন্স পাঠানোর পাশাপাশি দেশে ডলার সঙ্গে আনতেন প্রবাসীরা। কিন্তু সেটাও পাওয়া যাচ্ছেনা। আবার খোলাবাজারে ডলার মিললেও বেশি দাম দিতে হচ্ছে। গতকাল আমার এক বন্ধু খোলাবাজার থেকে ১০৭ টাকায় ডলার কিনেছেন। অনেকে ১১০ টাকায় কিনছেন।

এ ব্যাপারে যশোর চেম্বার অব কমার্সের সাবেক সভাপতি মিজানুর রহমান খান জানান, সরকার ডলারের রিজার্ভ যাতে না কমে আসে সেজন্য বিলাসীপণ্য আমদানিতে নিরুৎসাতি করছে। তবে অন্যান্য পণ্য যারা আমদানি করবেন তাদেরকে বেশি দামে ডলার কিনতে হচ্ছে। আবার একটি পণ্য চালান দেশে আসতে কমপক্ষে ৩ মাস সময় লেগে যায়, তখন দেখা যায় ডলারের রেট আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে ভোক্তার উপর চাপ পড়ে। এভাবে ডলার সংকট চলতে থাকলে আগামীতে ব্যবসায়ীরা বিশেষ করে আমদানিকারকরা পথে বসার উপক্রম হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

ঈদের আগে আনন্দধারায় শিক্ষক-কর্মচারীরা

এমপিওভুক্ত যশোরের ৬০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিজস্ব প্রতিবেদক :  সরকার ২ হাজার ৫১টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে নতুন করে এমপিওভুক্ত ঘোষণা...

নতুন রোটারী বর্ষ উদযাপন

নিজস্ব প্রতিবেদক :  রোটারী ডিস্ট্রিক-৩২৮১-এর রোটারী বর্ষের সূচনা উপলক্ষে বুধবার বিকেলে যশোর শহরের বর্ণাঢ্য র‌্যালি...

যশোর বাস মালিক সমিতির নির্বাচন : মনোনয়নপত্র কিনেই ভোটযুদ্ধে প্রার্থীরা

নিজস্ব প্রতিবেদক : মনোনয়নপত্র কিনেই ভোটযুদ্ধে নেমে পড়েছেন যশোর বাস মালিক সমিতির নির্বাচনের প্রার্থীরা। শুরু...

যশোরে বিভিন্ন সহিংসতার ঘটনায় ১৫ জন আসামি

নিজস্ব প্রতিবেদক যশোর সদর উপজেলার চার এলাকায় সহিংসতার ঘটনায় কোতয়ালি থানায় আলাদা চারটি মামলা করা...

সহসা কমছে না লোডশেডিং

ঢাকা অফিস গ্যাস সংকট চলছে তাই বিদ্যুৎ উৎপাদনে বিঘœ ঘটাছে। দেশজুড়ে চলছে লোডশেডিং চলছে। কবে...

অপতৎপরতা রুখতে একসাথে কাজ করতে হবে : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

মণিরামপুর প্রতিনিধি :  পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের প্রতিমন্ত্রী স্বপন ভট্টাচার্য্য এমপি বলেছেন, শেখ হাসিনা...