রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২২

যশোরে ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে পবিত্র আশুরা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে যশোরে পালিত হয়েছে পবিত্র আশুরা। কারবালার শোক ও হৃদয়বিদারক ঘটনাটি মুসলিম বিশ্বে ত্যাগ এবং শোকের প্রতীক হিসেবে পরিচিত।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০ টায় শহরের কেন্দ্রীয় ইদগাহ ময়দান থেকে তাজিয়া মিছিল শুরু হয়। মিছিলকে কেন্দ্র করে পুরো এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা ছিলো আইন-শৃঙ্খলাবাহিনীর। মিছিলটি মুড়লি ইমামবাড়ী যেয়ে শেষ হয়।

শিয়া মুসলমানরা তাজিয়া মিছিলে শোকের প্রতীক হিসেবে খালি পায়ে পুরুষরা কালো পাঞ্জাবি-পাজামা এবং নারীরা কালো কাপড় পরে মিছিল করেছেন। হায় হোসেন, হায় হোসেন মাতম ও বুক চাপড়ে ফোরাত নদীর তীরের কারবালার মর্মান্তিক ঘটনা স্মরণ করেন তারা। এছাড়া, মাতমকারীদের সেবার জন্য নিয়োজিত ছিল সেচ্ছাসেবকরা। তাদের পানি ও শরবত বিতরণ করতে দেখা যায়।

পালিত হয়েছে পবিত্র আশুরামিছিলে অংশ নেয়া আজিজ বিশ্বাস বলেন, শত শত বছর ধরে ইমাম হোসেন (রা.) শহিদ হওয়ার দিনটিতে তাজিয়া মিছিল বের করা হয়। এই মিছিল মূলত শোক মিছিল। তার মৃত্যুতে শোক জানাতেই প্রতিবছর তাজিয়া মিছিলে অংশ নিই।

রশ্মি আরা বলেন, আমি কেশবপুর থেকে এসে মিছিলে অংশ নিয়েছি। প্রতিবছর মিছিলে অংশ নিই। শোক জানাতে আমি আমার পরিবারসহ আসি এই তাজিয়া মিছিলে।

শংকরপুরের বাসিন্দা নুরজাহান ইসলাম বলেন, আমি প্রথমবারের মতো এ তাজিয়া মিছিলে অংশ নিয়েছি আমার খুব ভালো লাগছে। আমি মূলত দেখার জন্য ও মিছিলে অংশ নিতে এসেছি।

মিছিলের মূল আয়োজন করে দানবীর হাজী মোহাম্মদ মহসীন ইমামবাড়ী কার্যকরি সমন্বয় কমিটি। মিছিলে অংশ নেয় বিভিন্ন স্থান থেকে আগত ভক্তরা। শিয়া মুসলমানদের পাশাপাশি অন্যান্য ধর্ম ও সম্প্রদায়ের মানুষ এই তাজিয়া মিছিলে অংশ নেয়। মিছিলের সামনে ছিল ইমাম হাসান ও ইমাম হোসেনের দুটি প্রতীকী ঘোড়া, দ্বিতীয় ঘোড়ার জিন রক্তের লালে রাঙানো।

পালিত হয়েছে পবিত্র আশুরাদানবীর হাজী মোহাম্মদ মহসীন ইমামবাড়ী কার্যকরি সমন্বয় কমিটির সভাপতি এহতেশামুল আনম জানান, তাজিয়া মিছিলের পর মুড়লি ইমামবাড়ায় মাসিহা, কারবালার উপর ফাজায়েল, মাসায়ের মাতুম ও মজলিস অনুষ্ঠিত হয়।

সংগঠনটির কমিটির সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম জানান, কোনো বিশৃঙ্খলা ছাড়ায় তারা দিনটি উদযাপন করতে পারছেন। তিনি বলেন, মুসলিম ধর্ম, সমাজ ও সংস্কৃতিতে মহরম, আশুরা ও কারবালা অতি ব্যাপক অর্থবোধক তিনটি পরিভাষা। ইসলামী মূল্যবোধে এ তিনটির প্রভাবও বেশ সুদূরপ্রসারী।
মিছিলকে ঘিরে শহরজুড়ে নেয়া হয়েছিল প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা। কোনো প্রকার নাশকতা ঠেকাতে দায়িত্ব পালন করছেন প্রশাসনের একাধিক টিম।

পালিত হয়েছে পবিত্র আশুরাএ বছর সুষ্ঠুভাবে তাজিয়া মিছিল সম্পন্ন করতে দা, কাঁচি, বর্শা, বল্লম, তরবারি, লাঠি বহন নিষিদ্ধ করেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। একই সঙ্গে আতশবাজি ও পটকা ফোটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করেছে পুলিশ ও র‍্যাব।

উল্লেখ্য, হিজরি ৬১ সনের ১০ মহররম মহানবি হজরত মোহাম্মদ (সা.)-এর দৌহিত্র হজরত ইমাম হোসেন (রা.) কারবালার ফোরাত নদীর তীরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে শাহাদতবরণ করেন। এই শোক ও স্মৃতিকে স্মরণ করে সারাদেশে পবিত্র আশুরা পালন করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

editorial

যানজটের শহর যশোর

মায়ের সন্ধানে পথে পথে ছেলে

যানজটের শহর যশোর

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল ঘেঁষে ১৬টি বেসরকারি চিকিৎসাসেবা প্রতিষ্ঠানের নেই পার্কিং ব্যবস্থা। হাসপাতালের...

রাজপথে আছি, রাজপথেই থাকবো : নার্গিস বেগম (ভিডিওসহ)

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক নার্গিস বেগম বলেছেন, সরকার তার মসনদ টিকিয়ে...

বাঁকড়ায় সরকারি গাছ কাটার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঝিকরগাছার বাঁকড়ায় সরকারি খাস জমি থেকে কয়েক লক্ষাধিক টাকার রেইনট্রি গাছ কাটার...

পহেলা অক্টোবর থেকে যশোরে পরিবহন চলাচল বন্ধ !

শনিবার যশোর জেলা পরিবহন সংস্থা শ্রমিক ইউনিয়নের নিজস্ব কার্যালয়ে সংগঠনের সভাপতি আজিজুল আলম মিন্টুর...

ঝিকরগাছায় অবৈধভাবে সার বিক্রিকালে ১৫ বস্তা উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা বাজারে অবৈধভাবে সার বিক্রির সময় ১৪ বস্তা ইউরিয়া ও...

কেশবপুরে ভাটা মালিক ও সার ব্যবসায়ীকে জরিমানা

গৌরীঘোনা প্রতিনিধি : যশোরের কেশবপুরে ভাটা মালিক ও সার ব্যবসায়ীকে জরিমানা করা হয়েছে। চুকনগর-সোলঘাতিয়া সড়কের...