সোমবার, অক্টোবর ৩, ২০২২

যশোরে হত্যা ও স্বর্ণ চোরাচালান আলাদা মামলায় দুইজনের যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক :

বেনাপোলের সাদিপুরের কৃষক শাহাজাহান হত্যা ও সোনা চোরাচালানের পৃথক মামলায় দুই জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও অর্থদণ্ডের আদেশ দিয়েছে যশোরের পৃথক দুই আদালত। মঙ্গলবার সিনিয়র দায়রা জজ ও সিনিয়র স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল জজ আদালতের বিচারক ইখতিয়ারুল ইসলাম মল্লিক ও বিশেষ দায়রা জজ ও স্পেশাল জজ (জেলা ও দায়রা জজ) আদালতের বিচারক মোহাম্মদ সামছুল হক আদাদা রায়ে এ আদেশ দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আলমগীর হোসেন আলম বেনাপোলের সাদিপুর গ্রামের ছেউদ উদ্দিন এবং জিহাদ আলী সরদার সাদিপুর গ্রামের মধ্যপাড়ার বাসিন্দা। সাজাপ্রাপ্ত দুইজনই পলাতক।

এ বিষয় নিশ্চিত করেছেন পিপি এ্যাডভোকেট এম ইদ্রিস আলী ও বিশেষ পিপি অ্যাডভোকেট সাজ্জাদ মোস্তফা রাজা।

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০২০ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি সকালে চৌগাছার ৪৯/বি শাহজাদপুর ক্যাম্পের বিজিবি গোপন সংবাদের সাদিপুর গ্রামের মসজিদের সামনে অবস্থানকালীন সকাল সোয়া ১০টার দিকে একজন লোক মসজিদের সামনে এসে বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাকে আটক করা হয়। আটক জিহাদ আলী সরদারের দেহ তল্লাশি করে হাফপ্যান্টের পকেটে রাখা ১০ পিস সোনার বার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন এক কেজি ১৬৬ গ্রাম। এ ব্যাপারে বিজিবির নায়েক সুবেদার আব্দুল মালেক চোরাচালান দমন আইনে আটক ব্যক্তিকে আসামি করে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করেন। তদন্ত শেষে ওই বছরের ৩০ ডিসেম্বর আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক নজরুল ইসলাম। এ মামলার সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আসামি জিহাদ আলীর বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন।

অপরদিকে, বেনাপোলের সাদীপুর গ্রামের কৃষক শাহাজাহান একই গ্রামের আলমগীরের কাছে পাওনা ১০ হাজার টাকা ফেরত চাওয়ায় আলমগীর ক্ষিপ্ত হয়। ২০০৮ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি শাহাজাহান গ্রামের পশ্চিম মাঠের জামিতে পানি দিয়ে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে রাস্তার কালভার্টের উপর পৌঁছালে আলমগীর ধাওয়া করে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তাকে হত্যা করে। এর মধ্যে আশেপাশের লোক ঘটনাস্থলে আসলে আলমগীর ভারতের দিকে পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে নিহতের ছেলে ইউসুপ আমলগীরকে আসামি করে বেনাপোল পোর্ট থানায় হত্যা মামলা করেন। তদন্ত শেষে হত্যার সাথে জড়িত থাকায় ওই বছরের ৪ জুলাই আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই ওমর শরীফ। এ মামলার দীর্ঘ সাক্ষী গ্রহণ শেষে আসামি আলমগীর হোসেন আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড, ২৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

 কারা পাচ্ছেন নোবেল পুরস্কার, আজ থেকেই জানা যাবে

কল্যাণ ডেস্ক: বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদার নোবেল পুরস্কার ঘোষণা শুরু হচ্ছে আজ থেকে। আগামী ১০...

বাঙালির স্মৃতি থেকে মুছে যাবে ইলিশ

গ্রাম্য মাদ্রাসার শিক্ষক আনোয়ারুজ্জান ২০ বছর আগে ইলিশ মাছের ভবিষ্যৎ নিয়ে যা ভেবেছিলেন, আজ...

জাতীয় ক্রাশ রাশমিকার জীবনে টার্নিং পয়েন্ট ‘পুষ্পা’

বিনোদন ডেস্ক: তেলেগু ‘পুষ্পা: দ্য রাইজ’ সিনেমাতে অভিনয় করে ভারতজুড়ে খ্যাতি পেয়েছেন রাশমিকা মান্দানা।...

পাঁচ ঘরোয়া উপায়ে দূর করুন অ্যাসিডিটি

কল্যাণ ডেস্ক: অ্যাসিডিটির সমস্যা নেই এমন মানুষ খুব কমই আছে। নিয়মিত ওষুধ তো খান,...

যশোরের ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী’ ঢাকায় গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরের ঝিকরগাছা এলাকার ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী’ নুরুজ্জামান বাবুকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।...

ব্যাটিং ব্যার্থতায় পাকিস্তানের কাছে হারলো বাংলাদেশের মেয়েরা

ক্রীড়া ডেস্ক : থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে ঘরের মাঠে নারী এশিয়া কাপ শুরু করেছিল বাংলাদেশ। তবে...