Wednesday, July 6, 2022

যশোর জেলা বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি হচ্ছেই না

 মেয়াদোত্তীর্ণের ৮ বছর পর কমিটি ভাঙা হয়
আহবায়ক কমিটির মেয়াদও ৩ বছর উত্তীর্ণ

বিশেষ প্রতিনিধি : যশোর জেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটি ভেঙে দিয়ে তিন মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে বলা হয়েছিল আহবায়ক কমিটিকে। কিন্তু সাড়ে তিন বছর পেরিয়ে গেলেও সেই কমিটি গঠন করা হয়নি।
২০১৮ সালের ২০ মে ভেঙে দেয়া হয়েছিল যশোর জেলা বিএনপির নির্বাহী কমিটি। মেয়াদ উত্তীর্ণের কারণে ৮ বছর পর ওই কমিটি ভাঙা হয়। আহবায়ক কমিটিকে পরবর্তী ৩ মাসের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে বলা হয়েছিল। কিন্তু এরই মধ্যে পেরিয়ে গেছে সাড়ে ৩ বছর। জেলা সম্মেলনের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচন করতে পারেনি জেলা বিএনপি। যদিও করোনাকে দায়ী করছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। অবশ্য এই যুক্তি মানতে নারাজ দলীয় নেতা-কর্মীরা। তারা বলছেন, গত ৬ মাস দেশ স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে গেছে। দলীয় কার্যালয়ে সভা-সমাবেশ করছে দলটি, অথচ পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার আগ্রহ কম রয়েছে নেতাদের মধ্যে। এতে তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে।

দলীয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৮ সালের ২০ মে লালদিঘিরপাড়ে অবস্থিত দলীয় কার্যালয়ে নির্বাহী সভায় কমিটি ভেঙে ৫৩ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছিল। এর আগে ২ বছরের কমিটি ৮ বছর পার করেছিল। কমিটিকে আগামী ৩ মাসের মধ্যে নির্বাচন করার জন্য বলা হয়। কমিটির আহবায়ক করা হয়েছিল বিএনপির প্রয়াত সাবেক স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলামের সহধর্মীনি অধ্যাপক নার্গিস বেগমকে। সদস্য সচিব করা হয় অ্যাডভোকেট সাবেরুল হক সাবু ও যুগ্ম আহবায়ক হয়েছেন দেলোয়ার হোসেন খোকন।
ওই সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির খুলনা বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মঞ্জু। বিশেষ অতিথি ছিলেন দলের খুলনা বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত।

জেলা বিএনপি সূত্রে জানা গেছে, ২০০৯ সালে যশোর জেলা বিএনপির কমিটি গঠিত হয়। ১৪০ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন প্রয়াত শহিদুল ইসলাম নয়ন ও সাধারণ সম্পাদক হন অ্যাডভোকেট সাবেরুল হক সাবু। এরপর ৮ বছর পার হয়ে গেলেও জেলা সম্মেলন করা হয়নি। ইতোমধ্যে দলীয় সভাপতি শহিদুল ইসলাম নয়নসহ কমিটির ১৮ সদস্য মারা গেছেন। বহিষ্কার রয়েছেন ৩ জন। এই অবস্থার মধ্যে চলেছে যশোর বিএনপি।

তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবি দীর্ঘ ৮ বছর জেলা কমিটির সম্মেলন না হবার কারণে সরকার বিরোধী আন্দোলন যশোরে হয়নি। কোন মিছিল-মিটিং ছিল না বললেই চলে। বেশিরভাগ নেতারা মামলার ভয়ে নিজেদেরকে আড়াল করে রেখেছেন। শীর্ষ কয়েকজন নেতা পুলিশের নাশকতার মামলার আসামি ছিলেন। এমনতাবস্থায় ঝিমিয়ে পড়ে যশোর জেলা বিএনপির কর্মকান্ড। জেলার রাজনীতির মাঠে ক্ষমতাসীনরা ছাড়া আর কোন দল মাঠে নেই বিগত ১০ বছর ধরে। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবার পর জেলা বিএনপি দলীয় কার্যালয়ের সামনে সভা-সমাবেশ করেছে কয়েকটি। মূলত কর্মীদের মনোবল চাঙ্গা রাখতে তারা দলীয় কার্যালয়ের সামনে জড়ো হচ্ছেন। কার্যত সাংগঠনিক ভিত তাদের প্রায় ভেঙে গেছে। দলটির একমাত্র হাল ধরে রেখেছেন বিএনপি প্রয়াত নেতা সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলামের ছোট ছেলে অনিন্দ্য ইসলাম অমিত। তার নেতৃত্বে কর্মীদের একটি অংশ সভা-সমাবেশে অংশ নিচ্ছেন। আর বেশিরভাগ নেতারা সভায় মুখ দেখিয়ে সকটে পড়েন।

জেলা বিএনপির নিস্ক্রিয়তার কারণে এর অঙ্গ সংগঠন জেলা যুবদল ও ছাত্রদলের অবস্থাও ভঙ্গুর।
যশোর জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকন জানান, আমরা পুলিশের শক্ত বাধা উপেক্ষা করে দলীয় কার্যালয়ের সামনে কর্মসূচি পালন করছি। বর্তমান সরকার বিএনপির ওপর দমন নিপীড়ন চালাচ্ছে। বেশিরভাগ নেতারা একাধিক মামলার আসামি। এই অবস্থায়ও দলকে আমরা ধরে রেখেছি। কর্মীরা আমাদের পাশে থাকছেন সব সময়। আশা করছি খুব শিগগিরই আমরা জেলা বিএনপির পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে পারব এবং সরকার বিরোধী আন্দোলনে অংশ নেব।

যশোর জেলা বিএনপি সদস্য সচিব অ্যাডভোকেট সাবেরুল হক সাবু জানান, সারাদেশে দলকে পুনঃগঠনের অংশ হিসেবে যশোর বিএনপিকেও ঢেলে সাজানো হবে। করোনার কারণে এতোদিন পূর্ণাঙ্গ কমিটি হয়নি। তবে আমরা বসে নেই। উপজেলা পর্যায়ে দল পুনঃগঠন প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে। আশা করছি জানুয়ারি মাসের শেষের দিকে জেলা বিএনপি পূর্ণাঙ্গ কমিটি পাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

পিঠে ছুরিবিদ্ধ খোকন নিজেই গাড়ি ভাড়া করে আসেন যশোর হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পিঠে বিদ্ধ হওয়া ছুরি নিয়ে নিজেই যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন...

নায়কদের নামে কোরবানির গরু, আপত্তি জানালেন ওমর সানি

কল্যাণ ডেস্ক : আগামী ১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলিম সম্প্রদায় এই ঈদে পশু কোরবানির...

এশিয়ার বাইরের উইকেটের যে কারণে অসহায় মোস্তাফিজ

ক্রীড়া ডেস্ক : মোস্তাফিজুর রহমানের বোলিং দেখে ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেকে তাকে বলতেন, 'জোর বল করা...

নতুন ২৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত

কল্যাণ ডেস্ক : শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উভয় বিভাগের আওতায় আরও ২ হাজার ৭১৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার...

নওয়াপাড়া বন্দরে অবৈধ তালিকায় ৬০ ঘাট

অবৈধভাবে গড়ে উঠা ঘাটের কারণে কমছে নদীর নাব্যতা ৫ বছরে অর্ধশত জাহাজ ডুবিতে ক্ষতিগ্রস্ত...

মণিরামপুরে জমজমাট কোরবানির পশু হাট

আব্দুল্লাহ সোহান, মণিরামপুর : দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম হাট মণিরামপুরের গরু-ছাগলের হাট। প্রতি শনি ও মঙ্গলবার এখানে...