রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

যশোর শহরে ফের ওএমএস’র আটা বিক্রি শুরু, অনিয়মের প্রমাণ মিললেই লাইসেন্স বাতিল

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক :

যশোর পৌর এলাকায় ফের ওএমএস’র আটা বিক্রি শুরু হয়েছে। রোববার আটা বিক্রি শুরু হলে ডিলার পয়েন্টগুলোতে উপচেপড়া মানুষের ভিড় জমে। পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমসিম খেতে দেখা যায় ডিলারদের। প্রথমদিন দুপুর ১টার আগেই বরাদ্দের আটা শেষ হয়ে যায়। তবে বিকেলেও ৩০ টাকা কেজি দরের চাল নিতে প্রচুর মানুষের ভিড় ছিল।

এদিকে সরকারের সাশ্রয় মূল্যের এই চাল-আটা নিয়ে নয়-ছয় হলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান। হার্ডলাইনে অবস্থান নিয়েছেন জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নিত্যানন্দ কুন্ডু। তার সাফ কথা ওএমএস ও খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির চাল-আটা বিতরণে অনিয়ম হলে ভোগ করতে হবে কঠোর শাস্তি।

যশোর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিস সূত্রে জানা গেছে, ২০১০-১১ অর্থ বছরে সরকার দরিদ্র মানুষের জন্য শহর পর্যায়ে ওএমএস ও গ্রাম পর্যায়ে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি চালু করে। যশোর পৌর এলাকায় ১৪ জনকে ওএমএস’র ডিলার নিয়োগ করা হয়। প্রত্যেক ডিলার (শুক্রবার বাদে) প্রতিদিন ১৫৭ জনকে ৩০ টাকা দরে চাল ও ১৮ টাকা দরে আটা বিতরণ করে আসছিলেন। ওএমএস’র দোকান থেকে সাশ্রয় মূল্যে একজন দিনে সর্বোচ্চ ৫ কেজি চাল ও ৫ কেজি আটা কিনতে পারেন। তবে ইউনিয়ন পর্যায়ে কার্ডধারী উপকারভোগীরা ১০টাকা দরে মাসে ৩০ কেজি করে চাল পেয়ে আসছিলেন।

বৈশি^ক পরিস্থিতির কারণে চলতি বছর প্রায় সব জিনিসের দাম বেড়ে গেছে। এ পরিস্থিতিতে ১ সেপ্টেম্বর থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ে চালের কেজি ১৫ টাকা দরে বিক্রি শুরু হয়। তবে ওএমএস’র চালের দাম ৩০ টাকা বহাল রাখা হয়। এরআগে ১৬ মে খাদ্য অধিদপ্তরের নির্দেশে ওএমএস’র আটা বিক্রি বন্ধ হয়ে যায়। শুধুমাত্র বিভাগীয় শহরগুলোতে টিসিবি’র মাধ্যমে চাল ও আটা বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয় সরকার।

এদিকে ওএমএস’র আটা বিক্রি বন্ধের কারণে সবচেয়ে বিপাকে পড়েন হতদরিদ্র ও ডায়বেটিস রোগীরা। যশোরের বাজারে খোলা আটার কেজির দাম ওঠে ৪৫ থেকে ৪৯ টাকা। প্রতিকেজি প্যাকেট আটার দাম হাকানো হয় ৫৫ থেকে ৬৫ টাকা।

বেজপাড়ার সোহেল জানান, ওএমএস’র আটা বিক্রি বন্ধের পর মাসে তাকে ২১শ’ টাকা বেশি খরচ হয়েছে। ওএমএস’র দোকানে ফের আটা বিক্রি শুরু হওয়ায় খুশি। অনুরুপ প্রতিক্রিয়ার কথা জানান, ফুডগোডাউন এলাকার লোকমান ও রঞ্জিতা দাস।

রাসেল চত্বর এলাকার (চারখাম্বা মোড়) ওএমএস’র ডিলার তোতা মিয়ার ছেলে রফিকুল ইসলাম বলেন, প্রায় সাড়ে ৫ মাস পর ফের আটা বিক্রি শুরু হয়েছে। একজন ডিলার প্রতিদিন ১৫৭ জনের আটার বরাদ্দ পাচ্ছেন। তবে চাল পাচ্ছেন ৩১৪ জনের।

যশোর জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক নিত্যানন্দ কুন্ডু জানান, যশোর পৌর এলাকায় ১৪ জন ডিলারের মাধ্যমে সাশ্রয় মূল্যে ফের আটা বিক্রি শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, ডিলারদের সাফ জানিয়ে দেয়া হয়েছে কোনো রকম অনিয়ম-দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেলে লাইসেন্স বাতিলসহ কঠোর শাস্তি ভোগ করতে হবে।

যশোর জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান বলেন, ওএমএস’র চাল-আটা বিক্রি কার্যক্রম তদারকির জন্য ১৪ জন ট্যাগ অফিসার দায়িত্ব পালন করছেন। অনিয়ম-দুর্নীতির ঘটনা ঘটলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

খালেদার বাসার সামনে তল্লাশিচৌকি, রাজধানীজুড়ে ব্লক রেইড

কল্যাণ ডেস্ক : রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজার সামনের সড়কের দুই পাশে...

নিজের ১০০০তম ম্যাচ রাঙিয়ে আর্জেন্টিনাকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিলেন মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক : ৬৫ মিনিটে মাঝ মাঠ থেকে বল নিয়ে চিতার মতো অস্ট্রেলিয়ান মিডফিল্ডের ট্রাইঙ্গেল...

কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডস

ক্রীড়া ডেস্ক  : গ্রুপ লিগের পর নকআউট পর্বের শুরুটাও দুরন্ত করলো নেদারল্যান্ডস। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে রাউন্ড...

প্রযুক্তির মাধ্যমে দিনবদল করেছেন শেখ হাসিনা : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘উদ্ভাবনী জয়োল্লাসে স্মার্ট বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে যশোরে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী...

কুয়েতে প্রতারণার শিকার শতাধিক বাংলাদেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুয়েতে শতাধিক বাংলাদেশি প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আকামা পরিবর্তনসহ...

চাঁদাবাজির অভিযোগে হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে এক হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন...