Wednesday, July 6, 2022

যশোর সদরের ইউপি নির্বাচনে নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী দলীয় প্রতিপক্ষ

কল্যাণ রিপোর্ট:
যশোর সদরের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মূল প্রতিদ্বন্দ্বী দলীয় প্রতিপক্ষ। ১৫টি ইউনিয়নের বেশিরভাগে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্তরা স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন। গ্রুপ পলিটিক্সের দ্বন্দ্বের কারণে নৌকার বিপক্ষে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনের মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বীতায় নেমেছেন তারা।

রাজনীতিতে প্রতিদ্বন্দ্বীদের পাল্টা জবাব দিতেই নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন তারা। যশোরে আওয়ামী রাজনীতি সংশ্লিষ্টদের অনেকেরই এরকম অভিমত। খারাপ ইমেজের কারণে হাইকমান্ড নাখোশ হওয়ায় দলীয় মনোনয়ন দৌড়ে পরাজিত হয়েছে একটি গ্রুপ। ওই পক্ষে থাকার কারণে বড় পদবদবী থাকার পরও দল থেকে মনোনয়ন পাননি তারা। তাই প্রতিপক্ষদের জব্দ করতে অনেকে নিজেরাই বিদ্রোহী হিসেবে প্রার্থী হয়েছেন। আবার কৌশল হিসেবে অন্যদের ভোটে দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন।

এরকম পরিস্থিতিতে যশোরের রাজনীতি সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন গ্রুপ দ্বন্দ্বের জেরে সহিংসতায় মোড় নেবে সদরের আসন্ন ইউপি নির্বাচন। চুড়ামনকাটিতে দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, চাঁচড়া ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন থেকে শুরু করে মানববন্ধন তারই ইঙ্গিত।

তফশিল অনুযায়ী গতকাল ছিলো যশোর সদরের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোননয়ন জমাদানের শেষ দিন। এদিন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ১৫টি ইউনিয়ন থেকে ৮৬ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। নৌকার প্রার্থী আলিমুজ্জামান মিলন, স্বতন্ত্র শহিদুল ইসলাম শহীদ, ইসলামী আন্দোলনের শাখাওয়াত হোসেন ও জাকের পার্টির পলাশ পারভেজ। এদের মধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী শহিদুল ইসলাম শহীদের দলীয় কোন পদপদবী না থাকলেও তিনি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করেন।

ইছালিতে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯ জন। এদের মধ্যে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ফেরদৌসি ইয়াসমিন, স্বতন্ত্র জাহিদুল ইসলাম, সিরাজুল ইসলাম, আইয়ুব হোসেন, শাহানারা খাতুন, আজিজুর রহমান, ইসলামী আন্দোলনের আব্দুল কাদের ও জাকের পার্টির সাইফুর রহমান। আরবপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮ জন। এদের মধ্য নৌকার প্রার্থী মীর আরশাদ আলী।

নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন ৮ জন। চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী রাজিয়া সুলতানা, স্বতন্ত্র আলমগীর হোসেন, আলতাফ হোসেন, হুমায়ন কবির তুহিন, মোশারেফ হোসেন, কেরামত আলী মোল্লা, মাহবুবুর রহমান ও এসএম আসাদুল আলম ঝন্টু। এসব প্রার্থীদের মধ্যে কেরামত আলী মোল্ল্যা যুবলীগের রাজনীতি করেন।

উপশহর ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মাত্র ২ জন। এহসানুর রহমান ও শওকত হোসেন চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।

কচুয়া ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জন। চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন, নৌকার প্রার্থী লুৎফর রহমান ধাবক, স্বতন্ত্র বাবুল হোসাইন, শেখ মাহমুদ হোসেন, আব্দুর রশীদ, মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান, কাজী হাফিজুর রহমান ও হাফিজুর রহমান খাঁন।

চাঁচড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৫জন। এদের নৌকার প্রতীকের প্রার্থী সেলিম রেজা পান্নু। পাশাপাশি এই ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান প্রার্থী হয়েছেন শামসুর রহমান, গোলাম মোস্তফা, ফারুক হোসেন ও শামীম রেজা। রামনগরে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৯ জন। এদের মধ্য নৌকার প্রার্থী হলেন নাজনীন নাহার। বাকি অন্য প্রার্থীরা হলেন, অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, মাসুদ হোসেন, আব্দুস সাত্তার, কামরুজ্জামান, ইমদাদুল হক, জুলেখা বেগম, কামরুজ্জামান ও জামাল উদ্দিন টুটুল। কাশিমপুর ইউনিয়নে চেয়রাম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮ জন। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শরিফুল ইসলাম ছাড়াও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন মাহামুদ হাসান, আইয়ুব হোসেন, সুলাইমান হোসেন, বিএম সাইফুল ইসলাম, সজীব হাসান, মেহেদি খালিদ হোসেন ও মোস্তফা এনামুল বারী।

ফতেপুর ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৭ জন। নৌক প্রতীকের প্রার্থী শেখ সোহরাব হোসেন ছাড়াও মনোয়নপত্র জমা দিয়েছেন আলমগীর হোসেন, আবু তাহের ফাতেমা আনোয়ার, উসমান গনি, রবিউল ইসলাম ও শিল্পী খাতুন। আরবপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৮ জন। নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মীর আরশাদ আলী ছাড়াও চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন মীর কাশেম, শামসুর রহমান, নূরুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান, আসাদুজ্জামান, খন্দকার ফারুক আহমেদ ও গাজী রফিুকুল ইসলাম।

দেয়াড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মনোয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৫ জন। এদের মধ্যে নৌকা প্রতীকের প্রাথী লিয়াকত আলী, বর্তমান চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান, জিয়াউল হক, মাসুদ রানা ও আব্দুল্লাহ। বসুন্দিয়া ইউনিয়নে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ৬ জন। এদের মধ্যে নৌকার প্রার্থী রিয়াজুল ইসলাম ছাড়াও মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন আজিজুর রহমান, মমিনুল ইসলাম, তুহিন খান, শাহাবুদ্দিন ও এনামুল ইসলাম। নরেন্দ্রপুরে চেয়ারম্যান পদে ৬ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। নৌকার প্রার্থী মুদাচ্ছের আলী ছাড়াও চেয়রাম্যান পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন রাজু আহমেদ, জাকির হোসেন, অলিয়ার রহমান, রিজাউল ইসলাম ও ফেরদাউস আলোম।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

পিঠে ছুরিবিদ্ধ খোকন নিজেই গাড়ি ভাড়া করে আসেন যশোর হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পিঠে বিদ্ধ হওয়া ছুরি নিয়ে নিজেই যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন...

নায়কদের নামে কোরবানির গরু, আপত্তি জানালেন ওমর সানি

কল্যাণ ডেস্ক : আগামী ১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলিম সম্প্রদায় এই ঈদে পশু কোরবানির...

এশিয়ার বাইরের উইকেটের যে কারণে অসহায় মোস্তাফিজ

ক্রীড়া ডেস্ক : মোস্তাফিজুর রহমানের বোলিং দেখে ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেকে তাকে বলতেন, 'জোর বল করা...

নতুন ২৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত

কল্যাণ ডেস্ক : শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উভয় বিভাগের আওতায় আরও ২ হাজার ৭১৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার...

নওয়াপাড়া বন্দরে অবৈধ তালিকায় ৬০ ঘাট

অবৈধভাবে গড়ে উঠা ঘাটের কারণে কমছে নদীর নাব্যতা ৫ বছরে অর্ধশত জাহাজ ডুবিতে ক্ষতিগ্রস্ত...

মণিরামপুরে জমজমাট কোরবানির পশু হাট

আব্দুল্লাহ সোহান, মণিরামপুর : দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম হাট মণিরামপুরের গরু-ছাগলের হাট। প্রতি শনি ও মঙ্গলবার এখানে...