রফতানী বন্ধ থাকায় ঝিনাইদহে পানের দাম কম

ঝিনাইদাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঝিনাইদহ
রফতানি বন্ধ থাকায় জেলার নাম মাত্র মূল্যে বিক্রি হচ্ছে পান। এই দরপতনে গত কয়েক মৌসুমের মত এবারও ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন পান চাষিরা। পানের দামের এমন অব্যাহতময় নি¤œমুখী অবস্থা থাকলে চাষ ছেড়ে দিতে বাধ্য হবে বলেও অনেকে জানিয়েছেন।

ঝিনাইদহ জেলার সদর উপজেলার মুরারীদহের বিস্তীর্ণ এক মাঠে ব্যাপকভাবে চাষ করা হয় মিষ্টি জাতের পান। ফলন ভালোর আশা করে ভোর সকাল থেকেই পানবরজে পান তুলছেন কৃষকেরা। ক্ষেতের আগাছা দমন, পানের মরা পাতা বাছাইসহ নানা পরিচর্যায় ব্যস্ততা তাদের। কঠোর পরিশ্রম করলেও খুশি নন তারা। কারণ বর্তমানে পানের দরপতনে লোকসানের সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের।

শহরের নতুন হাটখোলা, হলিধানী, ডাকবাংলা, হরিণাকুন্ডু উপজেলার আমতলাসহ বিভিন্ন হাটে প্রতি পণ পান সর্বোচ্চ ৪০ টাকা ও সর্বনি¤œ ৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যা গত বছরের তুলনায় পানের দাম অর্ধেকে নেমেছে। এতে উৎপদান খরচও উঠছে না তাদের। পন্যদ্রব্যের উর্দ্ধগতির বাজারে পানের দাম কম হওয়ায় দিশেহারা কৃষকরা।

পানের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিতে বাজার মনিটরিংসহ রফতানি বৃদ্ধিতে সকল প্রকার কার্যক্রম চালানো হচ্ছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্য মতে, এ বছর ৬ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের মাঠে প্রায় ২ হাজার ৩৬৯ হেক্টর জমিতে পানের আবাদ হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে