Saturday, July 2, 2022

রসে টইটুম্বুর লিচুগ্রাম আলাইপুর

এইচ আর তুহিন, মাগুরা থেকে ফিরে: গ্রামে প্রবেশ করতেই গাছে গাছে চোখে পড়ে মধু মাসের রসালো ফল লিচু। লিচুর বাম্পার ফলনে গাছের ডাল ন্যুইয়ে পড়েছে মাটিতে। মনে হচ্ছে ভূমির সামান্য ওপরে লিচু ধরেছে। গাছের নিচ থেকে ওপর পর্যন্ত শোভা পাচ্ছে লাল রঙের পাকা ও আধা পাকা রসে টইটুম্বুর লিচু।

বলছিলাম লিচুর জন্য খ্যাত মাগুরার সদর উপজেলার আলাইপুর গ্রামের কথা। এ গ্রামে বাণিজ্যিকভাবে ৬০০ বিঘার ওপরে লিচু চাষ হয়। এখন চলছে লিচু ভাঙা ও বিক্রির ধুম। পাকার পাশাপাশি আধাপাকা লিচুও গাছ থেকে পেড়ে ফেলছেন গাছ মালিকরা। বৃষ্টি হওয়ার কারণে আধাপাকা লিচু পাড়া হচ্ছে। মালিকরা জানান, বৃষ্টি জমে লিচুতে পোকা জন্মায়। এজন্য আধাপাকা লিচুও ভাঙা হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, গাছের নিচেই ভেঙে ফেলা লিচু বাছাই করে ৫০ ও ১০০টি করে আঁটি করছেন শ্রমিকরা। পরে প্লাস্টিকের চারকোনা খাঁচায় পুরনো কাগজ দিয়ে মুড়িয়ে সেগুলো ভ্যানে করে প্রধান সড়কে নিয়ে যাচ্ছে আরেক দল। এরপর ঢাকাগামী ট্রাকে নেয়া হচ্ছে লিচু। যা দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে।
আলাইপুর গ্রামের প্রথম লিচু চাষি আবুবক্কর সিদ্দিক বলেন, সাধারণ চাষবাস করতাম। ১৯৯১ সালে প্রথম তিন বিঘা জমিতে ৬০টি লিচু গাছের চারা রোপণ করি। এরপর ৯৬ সালে আরও কিছু চারা রোপণ করি। চার বছর পর আরও প্রায় ২০০ চারা রোপণ করি। এখন আমার ৬৫০টি গাছ আছে। লিচু চাষে লাভবান হওয়ায় গ্রামের অনেকে উদ্বুদ্ধ হয়ে লিচু চাষ করেন। বর্তমানে আলাইপুর গ্রামে ২০০ একর জমিতে লিচু বাগান আছে।

তিনি আরও বলেন, গত বছর যা ১৫ লক্ষাধিক টাকায় বিক্রি হয়েছিল। এবার ফলন আরো ভালো হয়। ২০ লাখ টাকার ওপরে লিচু বিক্রি করতে পারতাম। কিন্তু টানা চারদিনের বৃষ্টিতে অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। পাকালিচু ঝরে পড়েছে। আবার আধাপাকা লিচুতে পোকা উপদ্রব শুরু হয়েছে। এরপরও ১৮ লাখ টাকার মতো লিচু বিক্রি করতে পারবো। ইতিমধ্যে প্রায় ১০ লাখ টাকার লিচু বিক্রি করেছি।

আবুবক্কর সিদ্দিক বাজারজাত বিষয়ে বলেন, অনেকে বাগানসহ লিচু বিক্রি করে দেন। আবার কেউ নিজেরা লিচু ভেঙে প্রসেসিং করে আড়তে পাঠান। পাশাপাশি বেপারিরা এসেও লিচু কিনে নারায়ণগঞ্জ, ঢাকা, ফরিদপুর, গোপালগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে নিয়ে খুচরা বিক্রি করেন।

এলাকার অন্যতম লিচু চাষি রবিউল ইসলাম বলেন, এক সময় এ এলাকার কৃষকরা ধান-পাটসহ প্রচলিত ফসল চাষে অভ্যস্ত ছিলেন। যা থেকে তাদের উৎপাদন খরচ আসত না। যে কারণে তারা পেঁপে-পেয়ারার পাশাপাশি লিচু চাষ শুরু করেন। পরবর্তীতে লিচু চাষ লাভজনক হওয়ায় গোটা এলাকার কৃষকরা এখন লিচু চাষ করছেন।
দুই দশক আগে লিচু গাছের চারা রোপণ করেন ওই গ্রামের সেলিম হোসেন। তার ৮ বিঘা জমিতে ১০০টি গাছ আছে। সেলিমের তিন লাখ টাকার লিচু বিক্রি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বৃষ্টিতে কিছু নষ্ট হয়েছে। ইতোমধ্যে সেলিম এক লাখ টাকার লিচু বিক্রি করেছেন। আরও ৫০ হাজার টাকার লিচু বিক্রি হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।

লিচু ব্যাপারী চাঁদ আলী বলেন, আলাইপুর গ্রামের লিচু স্বাদে সুমিষ্ট ও রসালো হওয়ায় সারাদেশে চাহিদা রয়েছে। প্রতি এক হাজার লিচুর পাইকারি দর পড়ছে ১হাজার ২০০ টাকা থেকে দেড় হাজার টাকা।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অফিস সূত্রে জানা গেছে, আলাইপুর ছাড়াও মাগুরা সদর উপজেলার হাজরাপুর, ইছাখাদা, খালিমপুর, মিঠাপুর, হাজিপুরসহ অন্তত ১৫ গ্রামে এখন লিচুর ভরা মৌসুম। এসব এলাকার দেড় হাজার বাগান থেকে এবার প্রায় ১৫ থেকে ১৮ কোটি টাকার লিচু কেনাবেচা হবে।

মাগুরা সদর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হুমায়ন কবির বলেন,লিচুর বাগান করতে প্রথম বছর একটু খরচ হয়। পরবর্তীতে তেমন আর খরচ নেই। প্রতি বছর লিচুর ফুল আসলে শুধু গাছে স্প্রে ও সামান্য পরিচর্যা করতে হয়। এসব এলাকার মাটি লিচু চাষের জন্য উপযোগী। এখানে বোম্বাই, চায়না থ্রি, মোজাফ্ফর ও স্থানীয় হাজরাপুরী জাতের লিচুর চাষ হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

কেন বিয়ে করেননি, জানালেন সুস্মিতা

বিনোদন ডেস্ক: কেন বিয়ে করেননি সাবেক বিশ্বসুন্দরী ও বলিউড অভিনেত্রী সুস্মিতা সেন; এমন প্রশ্ন...

করোনায় নতুন শনাক্ত ১৮৯৭, মৃত্যু ৫ জনের

কল্যাণ ডেস্ক: দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় (গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে আজ শুক্রবার সকাল...

বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ দমনে যে ভূমিকা দেখিয়েছে, তা সত্যিই প্রশংসনীয়

কল্যাণ ডেস্ক: বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি হাস বলেছেন, বাংলাদেশ জঙ্গিবাদ দমনে...

যশোরের কেশবপুরে নরসুন্দর যুবককে কুপিয়ে হত্যা

কেশবপুর প্রতিনিধি : জেলার কেশবপুর উপজেলায় নরসুন্দর এক যুবকের গলা ও পেট কেটে হত্যা করেছে...

হতদরিদ্রদের চালের দামও বাড়ল ৫ টাকা

ঢাকা অফিস: খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির আওতায় দেশের ৫০ লাখ হতদরিদ্র মানুষের কাছে বিক্রি করা চালের...

নির্দলীয় সরকার নিয়ে উত্তপ্ত সংসদ

ঢাকা অফিস: বৃহস্পতিবার সংসদে নির্বাচন ব্যবস্থা নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয়েছে। বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা...