রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

শেষ ম্যাচেও ভাল খেলার ধারাবাহিকতা থাকুক

মো: হাসানুজ্জামান ঝড়ু

প্রত্যাশার থেকেও অনেক বেশি ভালো ক্রিকেট খেলছে বাংলাদেশ। গত ছয়/সাত মাস যাবৎ যে ভীতিকর অবস্থার মধ্যে অতিবাহিত করছিল বাংলাদেশ টি-২০ দলটি। বিশ্বমঞ্চে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে এ দলটি। দলীয় সমন্বয়, ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স এর দ্বারা বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা আবার বিশ্বাস করতে পারছে; ভালো মানের ক্রিকেট খেলার সামর্থ্য তাদের মধ্যে আছে। যা তারা সময়মত ডেলিভারি করতে পারেনি। দারুণভাবে ফিরে এসে জিম্বাবুয়ের সাথে জেতা ম্যাচই তার প্রমাণ। তাসকিন আহমেদ এর ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। মোস্তাফিজুর এর আগের মত ডটবল ও ডেথ বোলার মোস্তাফিজ হয়ে ফিরে আসা। আন্তর্জাতিক ১০টি ম্যাচ খেলা টি-২০ বোলার হাসান মাহমুদের বোলিং নৈপূণ্য। বাঁহাতি পেস বোলার শরিফুল ইসলামকে দিয়ে করানো ভারতীয় ভয়ংকর ব্যাটারদের বিপক্ষে ডেথ ওভারে বল করানোর সাহস।

২০২২ সালে তিন সংস্করণে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে লিটন দাসের ১৬৯৩ রান এর মধ্যে বিশ^ ক্রিকেটের সকল রথী মহারথীরা গত ম্যাচে ভারতের সাথে তার করা ২৭ বলে ৬০ রানটি অন্য উচ্চতায় মর্যাদা দেবেন বলে আশা করি। শুধুমাত্র স্ট্রাইক রেট ২২২.২২ নয়, ৩৬০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে মাঠের কোন অংশে শট খেলেননি। ভারতীয় আগ্রাসী পেসারদের বিপক্ষে অনেকদিন পর কোন এশীয় ক্রিকেটার এতটা সাবলীল ব্যাট করল। লিটনের ব্যাটটি যদি আজ পাকিস্তানের বিপক্ষে আরও বেশি পরিস্ফুটিত হয়, তাহলে দীর্ঘদিন পর অন্তত আমাদের ওপেনিং সমস্যার সমাধান হবে বলে মনে করি। যদিও শাহন শাহ আফ্রিদি, নাসিম শাহ, হারিস রউফ, ওয়াসিম জুনিয়র এর অ্যাগ্রেসিভ পেস, ব্যাটার ডোমিনেট সুইং এবং আনঅর্থডক্স বাউন্স অনেক বড় একটা চ্যালেঞ্জ হবে বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটারদের। সাথে শাদাব খান ও মো. নওয়া এর বোলিং মিডল অর্ডারের আফিফ, সাকিব, মোসাদ্দেক ও সোয়ানদের বেশ কঠিন ভাবে সামাল দিতে হতে পারে। মিডল ওভারে ম্যাচের দারুণ গুরুত্বপূর্ণ সময় বিশ^কাপের বেশির ভাগ ম্যাচই ৭-১৫ ওভারের ব্যাটিং ও বোলিং তার ভাল অংশের দলটিই ম্যাচ জেতাতে সাহায্য করেছে।

গত ম্যাচের হারিস, ইফতেখার আহমেদ, নওয়াজ ও শাদাব খানের ২৩৬.৩৬-২৫৪.৫৫ স্ট্রাইকরেটের বিধ্বংসী ব্যাটিং পাকিস্তানের রিজওয়ান-বাবর ওপেনিং নির্ভরশীল ব্যাটিং ইউনিট নয় তা প্রমাণ করেছে। যদিও ডাকওয়ার্থ লুইস টার্ন মেথডের সৌজন্য ৩৩ রানে জিতে রানরেটের অবস্থানটা ভালো অবস্থায় নিয়ে গেছে, +১.১১ যা তাদের পয়েন্ট টেবিলের উপরে উঠতে সাহায্য করেছে।

তাসকিনের দুর্দান্ত বোলিং, লিটনের ব্যাটিং ইনিংস, সাকিব আল হাসানের শতভাগ অলরাউন্ড পারফরম্যান্স, আফিফ, মোসাদ্দেকের ম্যাচ অনুযায়ী ছোট ছোট ইমপ্যাক্টফুল ব্যাটিং, শান্ত’র ৭১ রানের ইনিংসটি তিন অংকে নিয়ে যেতে পারলে দারুণ একটা বিশ^কাপ মিশন রচিত হবে বাংলাদেশের ক্রিকেটের ডিকশনারিতে।

লেখক : সাবেক ক্রিকেটার

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

খালেদার বাসার সামনে তল্লাশিচৌকি, রাজধানীজুড়ে ব্লক রেইড

কল্যাণ ডেস্ক : রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজার সামনের সড়কের দুই পাশে...

নিজের ১০০০তম ম্যাচ রাঙিয়ে আর্জেন্টিনাকে কোয়ার্টার ফাইনালে নিলেন মেসি

ক্রীড়া ডেস্ক : ৬৫ মিনিটে মাঝ মাঠ থেকে বল নিয়ে চিতার মতো অস্ট্রেলিয়ান মিডফিল্ডের ট্রাইঙ্গেল...

কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডস

ক্রীড়া ডেস্ক  : গ্রুপ লিগের পর নকআউট পর্বের শুরুটাও দুরন্ত করলো নেদারল্যান্ডস। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে রাউন্ড...

প্রযুক্তির মাধ্যমে দিনবদল করেছেন শেখ হাসিনা : প্রতিমন্ত্রী স্বপন

নিজস্ব প্রতিবেদক: ‘উদ্ভাবনী জয়োল্লাসে স্মার্ট বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্যে যশোরে শুরু হয়েছে দুই দিনব্যাপী ডিজিটাল উদ্ভাবনী...

কুয়েতে প্রতারণার শিকার শতাধিক বাংলাদেশি

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুয়েতে শতাধিক বাংলাদেশি প্রতারণার শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আকামা পরিবর্তনসহ...

চাঁদাবাজির অভিযোগে হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক: যশোরে ১০ লাখ টাকা চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে এক হিজড়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন...