মঙ্গলবার, অক্টোবর ৪, ২০২২

সরাবরাহ থাকলেও যশোরে ইলিশের বাজারে উত্তাপ

সুনীল ঘোষ :

যশোরে পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে ইলিশের। প্রতিদিন ২শ’ মণের বেশি ইলিশ ঢুকছে আড়তে। কিন্তু দাম কমছে না। দুটোই কেজি ওজনের ইলিশ বিক্রি হচ্ছে সর্বনিম্ন ৭শ’ টাকা দরে। কেজি ওজনের ইলিশের দাম হাজারের উপরে। দুই কেজি ওজনের ইলিশ কিনতে ক্রেতার গুণতে হচ্ছে দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা। এতো দামের ইলিশ কেনার সামর্থ্য সীমিত আয়ের মানুষের নেই। যেকারণে ‘জাটকা’ কিনে স্বাদ নিচ্ছেন ইলিশের। বিক্রেতারা বলছেন এখন উর্ধ্বমুখী বাজার। সব জিনিসের দাম বেড়েছে। পরিবহন খরচ বৃদ্ধি পেয়ে দ্বিগুণ হয়েছে। সেই তুলনায় ইলিশের দাম বাড়েনি। বেচাবিক্রি ভালোই হচ্ছে বলে জানালেন পেশাদার ইলিশ বিক্রেতা নগেন চন্দ্র বিশ্বাস।

মঙ্গলবার বিকেলে বড়বাজারে ৩ টায় কেজি ওজনের ইলিশ কেনেন হাশিমপুরের রইচউদ্দিন। পেশায় তিনি ভ্যানচালক। এবছর আজই প্রথম ইলিশ কিনলাম ৫শ’ টাকা কেজি দরে। তার ভাষায় এটাকে ইলিশ বলা যায় না। এটি আসলে জাটকা। বাবা হিসেবে বাচ্চাদের মুখে এক টুকরো ইলিশ তুলে দিতে না পারার যন্ত্রণা অনেক। হতদরিদ্র রইচউদ্দিন বলেন, সারাদিনের রোজগারের টাকায় এক কেজি জাটকা কিনতে পারলাম।

এ সময় পাশের দোকান থেকে ১২শ’ টাকা কেজি দরে ইলিশ কেনেন দোগাছিয়ার আব্দুল জব্বার। পেশায় চাকরিজীবী। তিনি বলেন, কথায় আছে মাছে-ভাতে বাঙালি। আর বর্ষা মৌসুম আসলেই মনে পড়ে সরষে ইলিশ, ইলিশ ভাজা, ভাপা ইলিশ, ইলিশ পোলাও ও ইলিশ পাতুরির কথা। তাই দাম যাইহোক ইলিশ ছাড়া বর্ষা মৌসুম কাটতে চায় না। ৫ পিচ ইলিশে গুণতে হয়েছে ৬ হাজার ৪৫০ টাকা-বলেন এই ক্রেতা।

মাছ বিক্রেতা শহিদুল ইসলাম বলেন, জব্বার ভাই’র মতো আমার ‘শ’ খানেক বান্দা খরিদ্দার রয়েছে। তারা দাম-দর করেন না। আসেন মাছ নিয়ে চলে যান।

মাছ বিক্রেতা নগেন চন্দ্র বিশ্বাস বলেন, স্বাদের ক্ষেত্রে সাগর আর নদীর ইলিশের মধ্যে ব্যাপক পার্থক্য রয়েছে। বড় আকারের ইলিশের স্বাদ ছোট ইলিশের তুলনায় বেশি। ডিম পাড়ার জন্য ইলিশ সমুদ থেকে নদীতে আসে এবং উজানের বিপরীতে চলে, তখন এদের শরীরে চর্বি বা ফ্যাট জমা হয়। ফ্যাটযুক্ত বা তেলের জন্যই ইলিশের স্বাদ সুস্বাদু হয়। ইলশেগুঁড়ি বৃষ্টিতে যেসব ইলিশ ধরা পড়ে তার স্বাদ সবচেয়ে বেশি মন্তব্য করে তিনি বলেন, এবছর সর্বোচ্চ ২ কেজি ৮শ গ্রাম ওজনের ইলিশ বিক্রি করেছি আড়াই হাজার থেকে ৩ হাজার টাকা কেজি দরে। পাশের মাছ বিক্রেতা এরশাদ আলী বলেন, এবছর দুই কেজি ওজনের ইলিশের মণ কিনতে হয়েছে এক লাখ ৮ হাজার টাকায়। দুই থেকে ২২শ টাকা দরে কেজি বিক্রি করেছি।

জিয়াউর রহমান ও শহিদুল ইসলাম নামে দুই বিক্রেতা বলেন, আজ (মঙ্গলবার) ৩ পিচে কেজি ইলিশ বিক্রি করছি সাড়ে ৪শ টাকা থেকে ৫শ টাকা কেজি দরে। বড় আকারের ইলিশের ক্রেতা কম বলেও মন্তব্য তাদের। তারা বলেন, আজ কেজি ওজনের ইলিশ কিনতে ক্রেতার গুণতে হচ্ছে ১২শ থেকে ১৬শ টাকা পর্যন্ত। বরিশাল, পাথরঘাটা ও ভোলার ইলিশের দাম চট্টগ্রামের ইলিশের চেয়ে একটু বেশি বলে জানান তারা।

চড়াদাম প্রসঙ্গে শাহিন ও হানিফ হোসেন নামে দুই বিক্রেতা বলেন, যশোরের বাজারে পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকলেও অনেক মাছ চলে যাচ্ছে নড়াইলে। এরবাইরে যশোরের আড়ত থেকে ইলিশ যায় জেলার সব উপজেলায়। এসব কারণে দাম একটু চড়া-মন্তব্য তাদের।

পিয়ারু আড়তের সত্ত্বাধিকারী পিয়ারু হোসেন বলেন, যশোরে ৪০টি আড়তে প্রতিদিন ২শ মণের মতো মাছ আসে। এসব মাছ আনা হয় বরিশাল, ভোলা, পাথরঘাটা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার থেকে। তিনি বলেন, এবছর মাছ ধরা পড়ছে কম। তাছাড়া পদ্মা সেতু চালুর হওয়ার পর অনেক মাছ সরাসরি চলে যাচ্ছে ঢাকায়। ল্যাগেজ পার্টির হাত ধরে কিছু মাছ ভারতেও পাচার হচ্ছে বলে জানান এই আড়ত ব্যবসায়ী।

‘মেসার্স তিতাস ফিশের’ সত্ত্বাধিকারী গোলাম তাহের টগর বলেন, যশোরে চাহিদার তুলনায় ইলিশের সরবরাহ কমে গেছে। বরিশাল, ভোলা ও পাথরঘাটার মাছ পদ্মা সেতু দিয়ে ঢাকায় চলে যাচ্ছে। যেকারণে গত বছরের তুলনায় এবার যশোরে বড় আকারের ইলিশ কেজিতে ৩ থেকে ৪শ টাকা বেশি বিক্রি হচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

চাঁচড়ায় রনি হত্যাকাণ্ডে ১২ জনের নামে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর শহরতলীর চাঁচড়ায় রনি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় মামলা হয়েছে। নিহত রনির...

মাতৃদেবীজ্ঞানে আসন নেয় সৃজিতা ঘোষাল

এসআই ফারদিন : সোমবারের সকালটা জেগে উঠেছে ঢাক-বাদ্যের তালে। আর এই ঢাকের তাল বলছে মহা...

এলজিইডি যশোর অফিসের মধ্যে ঠিকাদারকে লাঞ্ছিতের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্থানীয় সরকার অধিদপ্তর (এলজিইডি) যশোর অফিসের মধ্যে হারুণ অর রশিদ নামে এক...

সম্প্রীতি ধরে রাখার আহ্বান এমপি নাবিলের

নিজস্ব প্রতিবেদক : সম্প্রীতি ধরে রাখতে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন যশোর-৩ আসনের সংসদ সদস্য...

যশোরে বাবা ও চাচার বিরুদ্ধে মেয়ের মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোর শহরতলীর শেখহাটিতে পথ রোধ করে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করে জখম, শ্লীলতাহানি...

যশোর বঙ্গবন্ধু প্রথম বিভাগ ফুটবল লিগের ‘খ’ গ্রুপের সেরা রাহুল

নিজস্ব প্রতিবেদক : গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে রেলিগেশন এলাকায় থাকা নওয়াপাড়া খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতির কাছে...