Tuesday, August 16, 2022

সাতক্ষীরায় সাব রেজিস্ট্রিটার সংকট : জমি রেজিস্ট্রিতে ভোগান্তি

সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি :

সাব রেজিস্ট্রিটার সংকটের কারণে সাতক্ষীরায় জমি ক্রেতা বিক্রেতাদের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে। জেলা সদর সহ সাত উপজেলার সাতজন সাব রেজিস্ট্রারের পদ থাকলেও সেখানে অনধিক তিন জন সাব রেজিস্ট্রার দিয়ে চলছে সরকারের অভ্যন্তরীন রাজস্ব উপার্জনের অন্যতম মাধ্যমটির কর্মযজ্ঞ। ফলে জমি ক্রয় বিক্রিতে প্রতিটি উপজেলায় সপ্তাহে মাত্র দুই থেকে তিনি দিন কাজ হয়ে থাকে। এতে করে ভোগান্তীতে পড়ছেন জমি ক্রেতা বিক্রেতারা।

বর্তমান সময়ে ভূমি সেবা এবং জমিজমা রেজিস্ট্রেশন গতানুগতিক এবং সনাতন পদ্ধতির পরিবর্তে তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর এবং বিধি বিধান মেনে হওয়ার ব্যবস্থা বিদ্যমান।

জমি ক্রেতা বিক্রেতা সহ ক্রয় বিক্রির সাথে সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, জমি রেজিস্ট্রেশনের শর্ত তথা খাজনা দাখিলা, দলিল, পচ্চা, ভোটার আইডি কার্ড, খতিয়ান, সরকারি ফি সহ আনুসাঙ্গিক অপরাপর বিধি যথাযথ থাকলে মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যে সংশ্লিষ্ট সাব রিজিষ্ট্রার যাচাই পরবর্তি জমি রেজিষ্ট্রি করেন। কিন্তু জেলার সাব রেজিষ্ট্রি অফিস গুলোর চিত্র যেন হাটের ভিড়, সাত উপজেলার কোনটি সপ্তাহে এক দিন আবার কোনটিতে সপ্তাহে দুই দিন বা তিন দিন জমি রেজিষ্ট্রি হচ্ছে। যে কারণে ক্রেতা বিক্রেতাদের ব্যাপক উপস্থিতি, দিনের পর দিন অপেক্ষা, তার পর নির্দিষ্ট দিনে রেজিষ্ট্রি অফিসে উপস্থিত হয়ে সকাল হতে সন্ধ্যা, কোন কোন দিন রাত পর্যন্ত ভোগান্তী নিয়ে অপেক্ষা প্রহর শেষে জমি রেজিষ্ট্রি করে বাড়ি ফিরতে হয়।

একাধিক নির্ভরযোগ্য সুত্র জানায়, জমিজমা ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের একটি বড় অংশ জেলার বাইরে থেকে শুধুমাত্র রেজিষ্ট্রি কাজ সম্পন্ন করা জন্য আসেন। সাতক্ষীরার নাগরিক হলেও তারা কর্মসংস্থান বা ব্যবসা বাণিজ্যের জন্য দেশের বিভিন্ন এলাকাতে অবস্থান করেন। অন্যদিকে মহিলা ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের একটি বড় অংশ শ্বশুর বাড়ী অর্থাৎ স্বামীর বাড়ীতে অবস্থান করায সেখান থেকে জমি রেজিষ্ট্রির জন্য তাদের আসতে হয় সংশ্লিষ্ট রেজিষ্ট্রি অফিসে। কিন্তু নির্দিষ্ট দিনে কাজ সম্পন্ন করতে না পেরে যথা সময়ে তারা গন্তব্যে পৌছাতে পারেন না। সাব রেজিষ্টারের অভাব থাকায় এভাবে দিনের পর দিন অপেক্ষা করতে হচ্ছে ভুক্তভোগীদের। সপ্তাহের নির্দিষ্ট দিনে সংশ্লিষ্ট সাব রেজিষ্ট্রি অফিসে একসাথে শত শত ভুক্তভোগী, সেবা গ্রহীতা জমি ক্রেতা বিক্রেতারা উপস্থিতি হন।

সূত্র আরো জানায়, অন্যান্য সরকারি অফিস গুলোর ন্যায় সাব রেজিষ্ট্রারদের কর্ম দিবস সপ্তাহে পাঁচ দিন। এ ক্ষেত্রে জেলার কোন কোন রিজিষ্ট্রি অফিসে কাজ হচ্ছে এক, দুই বা তিন দিন। জনসাধারণ সরকারের সব শর্ত পুরণ করেই রেজিষ্ট্রি অফিসে আসছে আর ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষায় থাকছে। দীর্ঘদিন যাবৎ সাতক্ষীরার সাব রেজিস্ট্রার সংকটে তার উপর সম্প্রতি শ্যামনগর এর সাব রেজিস্ট্রার ইসলামকাঠির সাব রেজিষ্ট্রার বদলি হওয়ায় সংকট আরো বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ বিষয়ে জেলা রেজিস্ট্রার আব্দুল হাফিজ বলেন, বর্তমানে জেলায় সাব রেজিস্ট্রার কর্মরত আছেন মাত্র তিন জন। এই তিনজনকে দিয়ে কাজ চালানো হচ্ছে। তবে জনভোগান্তীর বিষয়টি স্বীকার করলেও সরকারের রাজস্ব উপার্জনে সামান্য ঘাটতি হচ্ছে না বলে জানান তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

যশোরে পূর্ব শত্রুতার জেরে গাছিদা দিয়ে রাজমিস্ত্রীকে কুপিয়ে জখম

নিজস্ব প্রতিবেদক : যশোরে পূর্ব শত্রুতার জেরে উসমান হোসেন (৬৩) নামে একজনকে কুপিয়ে জখম করেছে।...

ক্রিকেট আম্পয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন যশোরের নির্বাচনের মাঠে দুই প্যানেল

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ক্রিকেট আম্পায়ার্স অ্যান্ড স্কোরার্স অ্যাসোসিয়েশন যশোর জেলা শাখার ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনে দুটি...

বেনাপোলে বিএনপির দোয়া অনুষ্ঠানে হামলায় আহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক : বেনাপোলে বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জন্মদিন উপলক্ষে সুস্থতা...

কেশবপুর প্রেসক্লাবের ভোট ১১ সেপ্টেম্বর

কেশবপুর প্রতিনিধি : কেশবপুর প্রেসক্লাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। ১৬ আগস্ট প্রেসক্লাব নির্বাচন...

ঝিনাইদহে নবজাতক হত্যায় আটক ৩

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে সদ্য ভূমিষ্ঠ এক ছেলে শিশুকে গলা টিপে হত্যার অভিযোগে...

দুই চোরসহ ভ্যান উদ্ধার

দেবহাটা প্রতিনিধি : দেবহাটা থানা পুলিশের অভিযানে ইঞ্জিন ভ্যান চুরির ২৪ ঘন্টার মধ্যে ২ চোরসহ...