Wednesday, July 6, 2022

সুষম উন্নয়নের প্রবেশদ্বার পদ্মাসেতু

শেখ মফিজুল ইসলাম: ধানের দাম বেশি। বিচালির দামও বেশ চড়া। ইরি-বোরো কেটেই আঊশ ধান রোপনে ব্যস্ত কৃষক। খোঁজ করছেন উন্নতবীজ। সবজির বাজার বেশ গরম। তাই সবজি চাষি বেশ মনোযোগী। যতœসহকারে তরকারির আবাদ করছেন। ঝাল, আলু, পটল, পেঁয়াজ, বেগুন, ঢেঁড়স ইত্যাদি সবজি আর নষ্ট হওয়ার ভয় নেই, বস্তাবন্দি হয়ে পঁচার আশংকা নেই। এখন আর ফেরি পারাপারে নষ্ট হবে না ঘণ্টার পর ঘণ্টা, কষ্ট করতে হবেনা যানজটে পড়ে ঘাটে বসে। কারণ পদ্মা সেতু খুলছে-আশায় বুক বাঁধছে দক্ষিণ-পশ্চিমের ২১ জেলার শ্রমিক, কৃষক, পথচারিসহ সব শ্রেণি পেশারমানুষ।

ইন্টারভিউকার্ড পেয়েও যারা সঠিক সময়ে ঢাকায় হাজির হতে পারেননি, স্বপ্ন কল্পনা জলাঞ্জলি গেছে ঘাটের জ্যামে; তারাও আফসোস করছেন। ভেবে কষ্ট পাচ্ছেন প্রিয়জন জ্যামে আটকে আ্যাম্বুলেন্সে মারা গেছে ঘাটে, সঠিক সময়ে পোঁছাতে পারিনি; চিকিৎসা হয়নি। গরু বোঝাই ট্রলার ডুবিতে গরু ভেসে গেছে খর¯্রােতা পদ্মায়। গরু ব্যবসায়ীর লক্ষ লক্ষ টাকা ভেসে গেছে জলে। ক্ষতিগ্রস্ত মানুষটির চোখের জল আমরা দেখেছি, সে করুণ দৃশ্য আর দেখতে চাইনা। দুর্যোগ, ঝড় উপেক্ষা কওে প্র্রমত্তা পদ্মা পাড়ি দিতে হয়েছে। ট্রলারডুবি, জাহাজ ডুবিতে মানুষের মৃত্যু এখনও কালের সাক্ষী। এ সংবাদ শুনতে চাইনা, দেখতে চাইনা।

সেতুর লাগোয়া জেলাগুলি থেকে অনেকেই বাড়ি এসে চাকরি বাকরি, অফিস আদালত, কলকারখানা সামলাতে পারবেন। সময় এবং অর্থ দুটোই সাশ্রয় হবে। গুরুত্বপূর্ণ প্রশাসনিক দপ্তর ঢাকা থেকে স্থানান্তরিত করলে জনগণের যেমন সময় বাঁচবে তেমনি দুর্ভোগ কমবে। পদ্মা সেতু লাগোয়া গড়ে ওঠা হোটেল, রেস্তোরা, পর্যটন কেন্দ্র, বিনোদন কেন্দ্রে হাজার হাজার মানুষের সমাগম হবে। কাজ পাবে প্রচুর লোক। তাদের পরিবারে আর্থিক স্বচ্ছলতা আসবে। পাশাপাশি এ দেশিয় কৃষ্টি-কালচার, সাহিত্য-সংস্কৃতি, ঐতিহ্য লোকায়ত শিল্প, কুটিরশিল্প মানুষের সামনে তুলে ধরা যাবে। আসবে বিদেশি পর্যটক। তাদের সাথে পরিচয় ঘটবে, সেটি প্রচার প্রসারের একটি মাধ্যম হতে পারে।

এশিয়ান হাইওয়ে যুক্ত হবে পদ্মাসেতুর সাথে। ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, নেপাল, ভুটান, মায়ানমার হয়ে চীন-জাপান ইত্যাদি নানা দেশের সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন ইতিহাস রচিত হবে। বেনাপোল স্থলবন্দর, বন্দর নগরী চট্টগ্রাম,পায়রা সমুদ্র বন্দর এক সূত্রে গেঁথে ফেলছে পদ্মা সেতু। পণ্য আমদানির রফতানিতে, যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে। জাতীয় আয়ের পাল্লা হবে ভারি।

চাহিদা অনুসারে গড়ে উঠবে ভৌত অবকাঠামো। স্থাপিত হবে নতুন নতুন কলকারখানা, শিল্প, বাণিজ্য কেন্দ্র। তাগিদ পড়বে মৎস্য চাষে, কৃষিখামারে, পশুপালনে। তা ছাড়া যশোরের ঝিকরগাছার গদখালির ফুলের চাষতো আছেই।

এপারের পাসপোর্টধারীরা সুযোগ পেলেই কেনাকাটা করতে যান কলকাতায়। যেহেতু কলকাতা কাছাকাছি। রেখে আসেন কোটি কোটি টাকা। আশা করা যায় এবার তারা ঢাকামুখী হবেন। যেহেতু ঢাকায় যাওয়া সহজ। তবে ব্যবহার্য পণ্যের মান উন্নত হওয়া আবশ্যক। যাতে ক্রেতা এ দেশের রুচি সম্মত পণ্য সামগ্রী পান।

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন নাকের গোড়ায়। আশা-স্বপ্নœ বাড়ছে, উদ্বেগও বাড়ছে। আম জনতা মনে করেন আইন শৃঙ্খলা যেন বজায় থাকে। বেপরোয়া গাড়ি যেন না চলে। পাকা ড্রাইভার যেন গাড়ি চালায়। দুর্ঘটনায় যেন প্রাণ না ঝরে সড়কে। খর¯্রােতা পদ্মা যেন পরিবেশ দূষণের শিকার না হয়।

সুন্দরসুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ সবারই কাম্য। প্রত্যাশা এখন চোখে মুখে। সুষম উন্নয়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে পদ্মা সেতু। যেটা আমাদের গর্ব, আমাদের অহংকার। অবাক বিশ^ চেয়ে রয়; বাংলাদেশ মাথা নোয়াবার নয়। যুগযুগজিও পদ্মা সেতু। যুগযুগজিও বঙ্গবন্ধু কন্যা, দেশ নায়ক শেখহাসিনা। (লেখক : সহকারী অধ্যাপক,পাকশিয়া আইডিয়াল কলেজ শার্শা, যশোর।)

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে

সর্বশেষ

পিঠে ছুরিবিদ্ধ খোকন নিজেই গাড়ি ভাড়া করে আসেন যশোর হাসপাতালে

নিজস্ব প্রতিবেদক : পিঠে বিদ্ধ হওয়া ছুরি নিয়ে নিজেই যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে এসেছেন...

নায়কদের নামে কোরবানির গরু, আপত্তি জানালেন ওমর সানি

কল্যাণ ডেস্ক : আগামী ১০ জুলাই পবিত্র ঈদুল আজহা। মুসলিম সম্প্রদায় এই ঈদে পশু কোরবানির...

এশিয়ার বাইরের উইকেটের যে কারণে অসহায় মোস্তাফিজ

ক্রীড়া ডেস্ক : মোস্তাফিজুর রহমানের বোলিং দেখে ক্যারিয়ারের শুরুতে অনেকে তাকে বলতেন, 'জোর বল করা...

নতুন ২৭১৬ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত

কল্যাণ ডেস্ক : শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উভয় বিভাগের আওতায় আরও ২ হাজার ৭১৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার...

নওয়াপাড়া বন্দরে অবৈধ তালিকায় ৬০ ঘাট

অবৈধভাবে গড়ে উঠা ঘাটের কারণে কমছে নদীর নাব্যতা ৫ বছরে অর্ধশত জাহাজ ডুবিতে ক্ষতিগ্রস্ত...

মণিরামপুরে জমজমাট কোরবানির পশু হাট

আব্দুল্লাহ সোহান, মণিরামপুর : দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম হাট মণিরামপুরের গরু-ছাগলের হাট। প্রতি শনি ও মঙ্গলবার এখানে...